এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মৌসম নূরের তৃণমূলে যোগদান নিয়ে উচ্ছ্বাস সিপিআইএমে, জোট নিয়ে নয়া ভাবনা

মৌসম নূরের তৃণমূলে যোগদান নিয়ে উচ্ছ্বাস সিপিআইএমে, জোট নিয়ে নয়া ভাবনা

Priyo Bandhu Media


2016 র বিধানসভা নির্বাচনের মতোই 2019 সালের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এই রাজ্যে কংগ্রেসের হাত ধরে লড়ার ব্যাপারে প্রথম থেকেই আশা প্রকাশ করে আসছেন রাজ্যের আলিমুদ্দিন স্ট্রিটের নেতারা। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অবশ্য এই ব্যাপারে তেমন ভাবে কোনো স্পষ্ট কথা বলা না হলেও বাম কংগ্রেস জোট নিয়ে “ধরি মাছ না ছুঁই পানি”‘র মত অবস্থা চলছিল।

রাজ্যে বামেদের পক্ষ থেকে কংগ্রেসকে সাথে নিয়ে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস এবং কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কথা বলা হলেও গত 19 শে জানুয়ারি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা বিজেপি বিরোধী ব্রিগেড সমাবেশে সেই কংগ্রেসের হাইকমান্ডের পক্ষ থেকে পাঠানো মল্লিকার্জুন খাড়গে, অভিষেক মনু সিংভিকে সেই মঞ্চে উপস্থিত থাকতে দেখে কিছুটা হতাশ হয়ে যান রাজ্যের সিপিএম নেতারা।

আলিমুদ্দিন স্ট্রিটের অনেক নেতাদের মনেই জল্পনার সৃষ্টি হয় যে, তাহলে কি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে জাতীয় রাজনীতিতে তৃণমূলের হাত ধরার জন্য এই রাজ্যেও তৃণমূলের সাথে জোট করবে কংগ্রেস! আর এই ক্ষেত্রে যদি কংগ্রেস তৃণমূলের সাথে জোট করে তাহলে বামেরা যে এখানে অনেকটাই অপ্রাসঙ্গিক হয়ে করবে তাও বুঝতে পেরেছেন রাজ্যে বাম নেতারা।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর তাইতো তৃণমূলের ব্রিগেড সমাবেশে কংগ্রেস নেতাদের উপস্থিতি তাঁদের অনেকটাই ভাবিয়ে তুলেছিল। কিন্তু সম্প্রতি রাজ্যের হেভিওয়েট কংগ্রেস সাংসদ তথা মালদহের গনি পরিবারের অন্যতম সদস্যা মৌসম বেনজির নূরের তৃণমূলে যোগদান বামেদের বাড়তি অক্সিজেন যুগিয়েছে। কিন্তু কংগ্রেস সাংসদ তৃণমূলে যোগ দিলে বামেদের এত উৎসাহের কারণ কি?

বিশেষজ্ঞদের মতে, রাজ্যে তৃণমূলের সঙ্গে জোট করলে কংগ্রেসে যে আরও ভাঙ্গন ধরবে তা তুলে ধরে এই মৌসম বেনজির নূরের মতই উদাহরণ এবার কংগ্রেসের কাছে দিতে চাইছে বাম শিবির। আর তাই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে সেই তৃণমূল থেকে কংগ্রেসকে দূরে সরে আসার জন্য আবেদন জানিয়ে কংগ্রেসের সাথে নিজেদের জোট সমীকরণের রাস্তাকে প্রশস্ত করে তুলতে চাইছেন তারা।

কংগ্রেস সূত্রের খবর, আসন্ন লোকসভা নির্বাচন নিয়ে তারা এখনো পর্যন্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেননি। তবে রাজ্যে যে তৃণমূল বিরোধী লড়াই হবে সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত বিধান ভবনের নেতারা। আর তাই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের সাথে যাতে তাঁদের জোটের রাস্তাটি আরও পরিষ্কার হয়ে ওঠে সেজন্য মৌসম বেনজির নূরের উদাহরণ টেনে এনে কংগ্রেস হাইকম্যান্ডের কাছে বামেরা এই বার্তাই দিতে চাইছে যে লোকসভায় তাঁরা যেন কোনোক্রমেই তৃণমূলের সাথে জোট না করে।

সূত্রের খবর, আগামী 4 এবং 5 ফেব্রুয়ারি আসন্ন লোকসভা ভোট নিয়ে আলিমুদ্দিন স্ট্রিটে রাজ্য কমিটির একটি বৈঠক ডাকা হয়েছে। আর সেখানেই এই জোটের ব্যাপারে জেলা নেতাদের কাছ থেকে বিস্তারিত রিপোর্ট চাইতে পারেন রাজ্যের বাম নেতারা। আর তারপরই লোকসভা নির্বাচনে বাম এবং কংগ্রেস হাতে হাত রাখে কিনা সেই ব্যাপারটি পরিষ্কার হয়ে যেতে পারে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!