এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > দলীয় চেয়ারপার্সনকে সড়াতে বামেদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে অনাস্থা আনল তৃণমূল কাউন্সিলররা

দলীয় চেয়ারপার্সনকে সড়াতে বামেদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে অনাস্থা আনল তৃণমূল কাউন্সিলররা

এ যেন এক নজিড় হয়ে থাকল ডানকুনি পুরসভায়। দলের চেয়ারম্যানকে সরাতে বামেদের সাথে হাত মেলালেন তৃনমূল কাউন্সিলারেরা। কিন্তু  তৃনমূল পরিচালিত পুরসভার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কেন অনাস্থা আনার সিদ্ধান্ত নিলেন সেই তৃনমূলেরই কাউন্সিলারেরা?

জানা যায়, 21 আসনের ডানকুনি পুরসভায় তৃনমূল 11, বাম 8, কংগ্লেস ও নির্দল একটি করে আসন পায়। কিন্তু চেয়ারম্যান নির্বাচনের আগে দলেরই দুই কাউন্সিলর বেঁকে বসায় নির্দল ও কংগ্রেসের সাহায্য নিয়ে বোর্ড গঠন করে তৃনমূল কংগ্রেস। আর এরপর থেকেই বিভিন্ন সময় তৃনমূলের জেলা ও রাজ্য নেতৃত্বের কাছে চেয়ারম্যানের নামে দুর্নীতির অভিযোগ তোলেন তৃনমলেরই দুই বিক্ষুব্ধ কাউন্সিলর। তৎকালীন সময়ে দলৈর তরফে কোনোরকমে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া হলেও সোমবার দুপুরে 6 তৃনমূল কাউন্সিলর ও দুই সিপিএম কাউন্সিলর পুরসভার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে একটি অনাস্থা প্রস্তাব জমা দেন শ্রীরামপুরের মহকুমাশাসকের কাছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

রাজনৈতিক মহলের জল্পনা, শাসকদল তৃনমৃলের পাশাপাশি বামেদের দুই কাউন্সিলরও এই অনাস্থায় সই করে ঠিক কী বার্তা দিতে চাইলেন? তবে এইসব জল্পনা উড়িয়ে অনাস্থায় সই করা নিয়ে মুখই খোলেননি কোনো কাউন্সিলর। এদিকে তাঁর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব জমা পড়লেও তিনি বিষয়টি জানেনই না বলে জানিয়েছেন তৃনমূল পরিচালিত ডানকুনি পুরসভার চেয়ারপার্সন হাসিনা শবনম।

এদিকে কাউন্সিলররা দলেরই নিয়োগ করা চেয়ারপার্সনের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনায় অস্বস্তিতে তৃনমূল কংগ্রেস। তৃনমূল সূত্রের খবর. মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুরসভার সমস্ত তৃনমূল কাউন্সিলরদের নিয়ে একটি বৈঠকে বসবেন জেলা তৃনমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী অরুপ বিশ্বাস। সব মিলিয়ে দলের চেয়ারম্যানকে সরাতে বামেদের সাথে হাত মিলিয়ে ঠিক কি বার্তা দিলেন তৃনমূল কাউন্সিলরা! জল্পনা তুঙ্গে

Top
error: Content is protected !!