এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > রাজ্যের সমবায় ব্যাঙ্কগুলির নড়বড়ে অবস্থার জন্যে বাম শাসকদের দোষারোপ

রাজ্যের সমবায় ব্যাঙ্কগুলির নড়বড়ে অবস্থার জন্যে বাম শাসকদের দোষারোপ

বর্তমানে সমবায় ব্যাঙ্কগুলির অবস্থা ফিরেছে। মাত্র কয়েক বছর আগেও রাজ্যের প্রাক্তন সরকার বামফ্রন্টের আমলে রাজ্যের সমবায় ব্যাঙ্ক গুলি জরাজীর্ণ অবস্থার মধ্যে দিয়ে এক দীর্ঘ সময় অতিক্রম করেছে। এদিন মুর্শিদাবাদের বহরমপুর রবীন্দ্রসদনে সমবায়ের একটি অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করতে সেখানে উপস্থিত হয়ে এমন কথাই বললেন রাজ্যের সমবায়মন্ত্রী অরূপ রায়। এদিনের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে রাজ্যের বর্তমান অবস্থায় প্রেক্ষিতে সমবায় ব্যাঙ্কগুলির উন্নয়ন প্রসঙ্গে তিনি বললেন, “এই প্রথমবার একসঙ্গে ১৩০টি সমবায়কে CSP (কাস্টমার সার্ভিস পয়েন্ট) পরিষেবার স্বীকৃতি দিল রাজ্য সমবায় দপ্তর। গোটা রাজ্যে মোট ২৬০০টি CSP রয়েছে।” প্রসঙ্গতঃ এদিনের অনুষ্ঠানের আগের দিনই এই CSP-র উদ্বোধনে রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী ছাড়াও সেখানে উপস্থিত ছিলেন সংশ্লিষ্ট দপ্তরের ডিরেক্টর সত্যব্রত সামন্ত, জেলাশাসক পি উলগানাথন প্রমুখ বিশিষ্ট জন। এদিন জেলার যেসমস্ত সমবায় ভালো আমানত দেখাতে পেরেছে তাদের ও কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ পুরস্কৃত করা হয়েছে। একই সাথে SHG মহিলাদের হাতে একাধিক সাহায্য প্রদান করা হয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

 

এদিনের অনুষ্ঠাণের পরে রাজ্যের মন্ত্রী রাজ্যের পূর্ববর্তী সরকারের সাথে বর্তমান সরকারের সমবায় ব্যাঙ্কে উন্নয়ন এবং আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত বিষয়ের তুলনা মূলক আলোচনা করে বললেন, “গত সরকারের আমলে ২০১০ সাল পর্যন্ত ব্যাঙ্কে দুর্নীতি ছিল। দুর্নীতি, স্বজনপোষণ এবং অনাদায়ি ঋণের কারণে অধিকাংশ সমবায় ব্যাঙ্ক বন্ধ হয়ে গেছিল। বীরভূম জেলার সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্কও বন্ধ হয়ে যায়। এই ব্যাঙ্কগুলো বাঁচানোর জন্য রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী ১১২ কোটি টাকা অনুমোদন করেন। কারণ সমবায় ব্যাঙ্কের উপরেই গোটা এলাকার উন্নয়ন নির্ভর করে। আমরা রিজ়ার্ভ ব্যাঙ্কের কাছে লাইসেন্সও আদায় করেছি। এখন সমবায় আন্দোলনের মাধ্যমে ব্যাঙ্কগুলো ভালো চলছে।” একই সাথে মন্ত্রী আরোও কথা সংযোজন করে বললেন, “সাধারণ মানুষ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের উপর দিনের পর দিন আস্থা হারাচ্ছে। আস্থা বাড়ছে সমবায় ব্যাঙ্কের উপরে। আমানত বৃদ্ধি পাবে বলে আমাদের আশা। সমবায় ব্যাঙ্কে এক লাখ কোটি টাকা আমানতের লক্ষ্য রয়েছে। এখনও পর্যন্ত ৩৫ হাজার কোটি টাকা রয়েছে।”

Top
error: Content is protected !!