এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > সিপিএমের রাজ্য সম্পাদকের উপর হামলা – অভিযোগের তির বিজেপির দিকে, উত্তাল রাজ্য

সিপিএমের রাজ্য সম্পাদকের উপর হামলা – অভিযোগের তির বিজেপির দিকে, উত্তাল রাজ্য

ত্রিপুরায় দীর্ঘ বাম শাসনের পতন হওয়ার পরই সেখানকার বাম নেতৃত্বরা সেই রাজ্যের শাসকদল বিজেপির বিরুদ্ধে প্রবল সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলেছিল। আর এবার সেই ত্রিপুরায় বেশ কয়েকটি পুরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে উপনির্বাচনে সেই সিপিএমের ত্রিপুরা রাজ্য সম্পাদকের উপর হামলার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। আর যে ঘটনায় আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে তীব্র সরগরম হয়ে উঠেছে ত্রিপুরার রাজনীতি।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই ত্রিপুরা রাজ্যের বেশ কয়েকটি পুরসভার ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচন গত বৃহস্পতিবার হওয়ার কথা ছিল। যেখানে আগেভাগেই 148 টির মধ্যে 91 টিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করেছিল সেখানকার শাসকদল বিজেপি। আর এতেই বিরোধীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ তোলা হয়েছিল যে, বিজেপি লাগামহীন সন্ত্রাস চালিয়ে এই নির্বাচনে জয়লাভ করেছে। তবে 91 টি আসনে জিতলেও বাকি ছিল 67 টি ওয়ার্ড। যার নির্বাচন ছিল গত বৃহস্পতিবার।

এদিকে এদিনের এই ভোটেও রাজ্যের শাসকদল বিজেপির বিরুদ্ধে সন্ত্রাস চালানোর অভিযোগে ভোট বয়কটের সিদ্ধান্ত নেয় সেখানকার বিরোধীদল সিপিএম। সূত্রের খবর, এদিন রাজনৈতিক কর্মসূচি সেরে ত্রিপুরার বিশালগড় দিয়ে ফিরছিলেন সেখানকার সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক গৌতম দাস।

অভিযোগ, বিশালগড়ে তাঁর গাড়ি যানজটে আটকে গেলে অদূরেই চায়ের দোকানে বসে থাকা কিছু বিজেপি সমর্থক গৌতমবাবুর গাড়ি ঘিরে ধরে তাঁকে দরজা খুলে নামানোর চেষ্টা করে। এমনকি তাঁকে মারধরও করা হয়। এদিকে যানজট কমে যাওয়ায় কোনোরকমে সেই গৌতমবাবুকে উদ্ধার করে চালক গাড়ি চালিয়ে গোটা পরিস্থিতি সামাল দেয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিকে এই ঘটনায় জেলা পুলিশ সুপারের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করেন ত্রিপুরার সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক। লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যের বিরোধী দলের ওপর এহেন হামলায় বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হয়ে মাঠে নেমেছে সিপিএম। জানা যায়, রাজ্য সম্পাদকের উপর হামলার প্রতিবাদে এদিন ত্রিপুরার আগরতলা সহ বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবাদ মিছিল বের করেন সিপিএমের কর্মী-সমর্থকরা।

বামেদের অভিযোগ যে, এই হামলার পেছনে রয়েছে স্থানীয় বিজেপি নেতা নবাদুল বণিক। তবে তাঁদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগকে অস্বীকার করে নিয়েছে বিজেপি। সব মিলিয়ে এবার ত্রিপুরায় বামেদের রাজ্য সম্পাদকের উপর হামলার ঘটনায় প্রবল সরগরম সেখানকার রাজ্য রাজনীতি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!