এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > আদালতের গেরোয় ১০ লক্ষ চাকরিপ্রার্থীর ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন

আদালতের গেরোয় ১০ লক্ষ চাকরিপ্রার্থীর ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন

এ রাজ্যে বেকারদের নিয়ে ছিনিমিনি খেলার যেন শেষ নেই। একদিকে এসএসসি সংক্রান্ত মামলায় দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে আছে রাজ্যের কয়েকলক্ষ চাকরিপ্রার্থীর ভবিষ্যৎ। তারই মাঝে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় এবং চতুর্থ শ্রেণির কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেখে আশায় বুক বেঁধে আবেদন করেছিলেন অনেকেই। এদিন সেই আশাতেও জল পড়লো।
নিয়ম বহির্ভূত ভাবে নিয়োগের অভিযোগ জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করলেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ জন কর্মী। পুরনো শূন্যপদ পূরণ

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

না করা, এসসি, এসটি-সহ বাকি কর্মীদের পদোন্নতির সুযোগ থেকে বঞ্চিত-সহ একগুচ্ছ দাবিতে মামলা করা হয়েছে বলে জানা গেছে। বিচারপতি অরিন্দম সিংহ হলফনামা তলব করে জানতে চেয়েছেন, কিভাবে নিয়মবহির্ভূত নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অনুমতি দেওয়া হল। এই আপত্তিতেই আদালত নিয়োগ প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ করে। পরবর্তী শুনানির দিন পর্যন্ত সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া বন্ধ থাকবে।
হাইকোর্টের এই রায়ের ফলে টাকা দিয়ে আবেদনকারী ১০ লক্ষ চাকরিপ্রার্থীর ভবিষ্যৎ এসএসসি চাকরিপ্রার্থীদের মতই হতে চলেছে বলে মনে করছেন অনেকে। এখন প্রশ্ন, পরীক্ষা না হলে ভর্তির জন্য দেওয়া টাকা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ফেরত দেবে কি? প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা নেওয়ার দায়িত্ব দিয়েছিল এসএসসি-কে যা এখন বিশ বাঁও জলে।

আপনার মতামত জানান -
Top