এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > দলনেত্রীর বৈঠকও বয়কট করলেন বিদ্রোহী কাউন্সিলররা, জোর জল্পনা

দলনেত্রীর বৈঠকও বয়কট করলেন বিদ্রোহী কাউন্সিলররা, জোর জল্পনা

লোকসভা ভোটে দলের খারাপ ফলাফলের পর দিকে দিকে শাসক দল ছেড়ে জনপ্রতিনিধিরা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখানো শুরু করেছেন। ইতিমধ্যেই একাধিক পৌরসভায় তৃণমূল কাউন্সিলররা বিজেপিতে যোগদান করায় রাজ্যের প্রায় অনেক পৌরসভাতেই গেরুয়া রঙের ছোঁয়া লেগেছে। আর এই পরিস্থিতিতে এবার গতকাল দলের কাউন্সিলরদের নিয়ে নজরুল মঞ্চে স্বয়ং দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বৈঠক ডাকলেও সেখানে অনুপস্থিত থাকতে দেখা গেল কৃষ্ণনগর পুরসভার বেশ কয়েকজন তৃণমূল কাউন্সিলরকে। যা নিয়ে এখন রাজনৈতিক মহলে ছড়িয়ে পড়েছে জোর চাঞ্চল্য।

কেন এই পৌরসভার কিছু কাউন্সিলর নেত্রীর ডাকা বৈঠকে উপস্থিত হলেন না! তার রহস্য উন্মোচনেও শুরু হয়েছে নানা চর্চা। একাংশ বলছেন, 24 আসন বিশিষ্ট এই কৃষ্ণনগর পৌরসভার 24 জনই তৃণমূলের কাউন্সিলর। গত ডিসেম্বর মাসে এই পৌরসভার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর এখন সেখানে প্রশাসক বসেছে। কিন্তু এখানকার প্রাক্তন পুরপ্রধান অসীম সাহার বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ তুলে কিছু কাউন্সিলার বিদ্রোহ ঘোষণা করেন।

এরপর থেকেই শুরু হয় দ্বন্দ্ব। পরবর্তীতে লোকসভা নির্বাচনে কৃষ্ণনগর পুর এলাকায় বিজেপি 19 হাজার ভোটে এগিয়ে থাকায় ফলাফল পর্যালোচনার বৈঠক ডাকে তৃণমূল। কিন্তু সেখানেও বেশকিছু কাউন্সিলার অনুপস্থিত থাকেন। পরবর্তীতে কৃষ্ণনগরের সাংসদ তথা জেলা তৃণমূলের সভাপতি মহুয়া মৈত্র বৈঠক ডাকলেও সেই বৈঠকেও অনুপস্থিত থাকেন প্রায় 10 জন কাউন্সিলার। আর এবার স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা বৈঠকে এই কৃষ্ণনগর পৌরসভার ছয় কাউন্সিলরের অনুপস্থিতি ঘিরে রাজনৈতিক মহলে ছড়িয়ে পড়ল তীব্র জল্পনা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

জানা গেছে, এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা বৈঠকে সকাল-সকাল কৃষ্ণনগর পৌরসভার 18 জন কাউন্সিলর পাঁচটি গাড়িতে করে রওনা দিলেও 6 জন কাউন্সিলর সেখানে যাননি। কিন্তু কেন তারা এই বৈঠকে উপস্থিত হলেন না! এদিন এই প্রসঙ্গে স্বপন সাহা, অনুপম বিশ্বাসের মতো বিদ্রোহী কাউন্সিলররা বলেন, “আমাদের লড়াই দুর্নীতির বিরুদ্ধে। দলনেত্রীকে সব জানিয়েছি। কিন্তু তা সত্ত্বেও এখনও কোনো সুরাহা হয়নি। যতদিন না বিষয়টির সমাধান হচ্ছে, ততদিন আমরা কোনো বৈঠকে যাব না।”

তবে এই সমস্ত কাউন্সিলররা বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন কিনা তা নিয়েও ধন্দ্ব রয়েছে দলের অন্দরে। তাহলে কি যে সমস্ত কাউন্সিলার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টাকা বৈঠকে গেলেন না তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে দল! এদিন এই প্রসঙ্গে কৃষ্ণনগর পৌরসভার পৌরপ্রধান অসীম সাহা বলেন, “কে কি বলছে, কেন ওরা গেল না, তা আমি জানি না। শুধু এটুকু বলব যে নেত্রীর ডাকে আমরা 18 জন কাউন্সিলার একসঙ্গে গিয়েছি।”

অন্যদিকে এই প্রসঙ্গে জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “এই বিষয়ে আমাকে আগে ভালোভাবে খোঁজখবর নিতে হবে। তারপরই মন্তব্য করব।” সব মিলিয়ে খোদ নেত্রীর ডাকা বৈঠকেও বিদ্রোহী কাউন্সিলরদের একাংশ না যাওয়ায় জোর জল্পনা শুরু হয়েছে এখন কৃষ্ণনগর পৌরসভায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!