এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > বিজেপির প্রার্থী নিয়ে কোচবিহারে ফের নয়া নাটক, প্রথমে বিক্ষোভ, পরে প্রার্থীকে নিয়ে মিছিল

বিজেপির প্রার্থী নিয়ে কোচবিহারে ফের নয়া নাটক, প্রথমে বিক্ষোভ, পরে প্রার্থীকে নিয়ে মিছিল

অবশেষে নানা জল্পনা কল্পনা শেষে সম্প্রতি রাজ্যের 28 টি লোকসভা কেন্দ্রে নিজেদের প্রার্থী ঘোষণা করেছে বিজেপি। যার মধ্যে প্রায় অনেক কেন্দ্রেই তৃণমূল থেকে আসা হেভিওয়েট নেতা নেত্রীদের টিকিট দিয়েছে গেরুয়া শিবির। যা নিয়ে গেরুয়া শিবিরের অন্দরে চাপা ক্ষোভও তৈরি হয়েছে। যেমন, কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্র। এখানে কিছুদিন আগেই জেলা তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা নিশীথ প্রামাণিক বিজেপিতে যোগদান করেছেন।

আর এদিন প্রার্থী ঘোষণার সময় সেই নিশীথ প্রামাণিকের নামে কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে ঘোষণার পরই জেলা বিজেপির অন্দরে প্রবল উত্তেজনা তৈরি হয়। কিছুদিন আগেই তৃণমূল থেকে আসা নিশীথ প্রামাণিককে কেন প্রার্থী করা হল তা নিয়ে জেলা বিজেপির একাংশ নেতাকর্মী জেলা বিজেপির পার্টি অফিসে বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি সেখানে ভাঙচুর করেন বলেও অভিযোগ ওঠে।

আর এরপরই শুক্রবার সকালে গোটা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কোচবিহারে আসেন রাজ্য বিজেপির পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন। সূত্রের খবর, সেখানেই দলীয় প্রার্থী হিসেবে নিশীথ প্রামাণিককে যাতে মেনে নেওয়া হয় তার জন্য দলের বিদ্রোহী নেতা কর্মীদের সঙ্গে দফায় দফায় আলোচনা করেন অরবিন্দ মেনন। শেষ পর্যন্ত বরফ গলতে শুরু করলে যে বিজেপির নেতা কর্মীরা সেই নিশীথ প্রামাণিককে প্রার্থী করায় প্রবল বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন, তারাই সেই নিশীথবাবু দিল্লি থেকে ফেরার পর তাকে নিয়ে মিছিল করে পার্টি অফিসে পৌঁছন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কেন নিজেদের অবস্থান বদল করলেন তারা! এদিন এই প্রসঙ্গে সেই বিজেপির বিদ্রোহী নেতা কর্মীরা বলেন, “এক পরিবারে থাকতে গেলে কিছুটা অশান্তি হয়। এখন সে সব মিটে গিয়েছে। আমরা কাঁধে কাঁধ দিয়ে লড়াই করব। এই আসনে আমাদের প্রার্থীই জয়যুক্ত হবে।” অন্যদিকে কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিক বলেন, “আমাদের মধ্যে কোনো ভেদাভেদ নেই। এই কোচবিহার থেকে বিজেপি দু’লক্ষ ভোটে জিতবে।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কোচবিহার লোকসভা আসনটি বিজেপির কাছে অত্যন্ত সেফ সিট হিসেবেই পরিচিত। তাই শাসক দলের সাথে লড়াই না করে দলের ভেতরেই যদি প্রার্থী নিয়ে দলের একাংশ নেতাকর্মী অসন্তোষ প্রকাশ করে, তাহলে তা তৃণমূলের কাছে অ্যাডভান্টেজ হিসেবে চলে যেতে পারে। আর তাইতো দলীয় নেতাকর্মীদের ক্ষোভকে প্রশমিত করে এখন কোচবিহার লোকসভা আসনটি যাতে নিজেদের দখলে ছিনিয়ে নিয়ে আসা যায়, তার জন্যই মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করছে গেরুয়া শিবির।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!