এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কংগ্রেসকে ‘অপ্রাসঙ্গিক’ করতে এবার একসুরে আসরে তৃণমূল-বামফ্রন্ট

কংগ্রেসকে ‘অপ্রাসঙ্গিক’ করতে এবার একসুরে আসরে তৃণমূল-বামফ্রন্ট

অ- বিজেপি জোট গঠনে কংগ্রেসকে সাথে চাইছেন না তৃণমূল ও বামফ্রন্ট। এদিন সিপিএমের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক কারাট যুক্তি সহকারে বলেন, “কংগ্রেস ইউপিএ-র মতো জোট তৈরি করতে চাইলেও তা সফল হবে না। কারণ সেই জোটকে নেতৃত্ব দেওয়ার মতো বিশ্বাসযোগ্যতা কংগ্রেসের নেই।” জানা গেছে কারাটে অ- বিজেপি ও অ- কংগ্রেসি জোটে মমতার সাথেও কথা বলতে নারাজ। উত্তরপ্রদেশ উপনির্বাচনে বিজেপির হারের পর কারাটের যুক্তি, ‘রাজ্য স্তরে অ-বিজেপি ভোটকে এক জায়গায় এনে ফেলাটাই লোকসভা ভোটে বিজেপিকে হারানোর সব থেকে কার্যকরী কৌশল হতে পারে। অর্থাৎ যে রাজ্যে বা যে আসনে বিজেপির বিরুদ্ধে যে সব থেকে শক্তিশালী, সিপিএম তাকেই সমর্থন করবে।’ এদিকে সীতারাম ইয়েচুরির দোল চাইছে জাতীয় স্তরে অ- বিজেপি জোট বাঁধতে।

আরো নতুন খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এই প্রসঙ্গে কারাটে জানান, “উত্তরপ্রদেশের উপনির্বাচন দেখিয়ে দিয়েছে, জাতীয় স্তরে অ-বিজেপি পার্টিগুলির জোট বা ফ্রন্ট তৈরিটা কোনও কৌশল নয়। তার বদলে রাজ্য স্তরে বড় দলগুলির জোট হলে, সেখানে ছোট দলগুলি সমর্থন করতে পারে।” কারাটে তাঁর যুক্তির প্রমান হিসাবে প্রয়াত জ্যোতি বসুর বিজেপি বিরোধী ভোটে কংগ্রেসের লাভবান হওয়ার কথা টেনে আনেন। তবে বর্তমানে বিরোধী দলের জোটকে নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতা কংগ্রেসের নাই এমনটাই দাবি কারাটের। এই প্রসঙ্গেও তিনি যুক্তি দিয়ে বলেন, “বিজু জনতা দল, তেলঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতি, তেলুগু দেশমের মতো আঞ্চলিক দলগুলি কংগ্রেসের সঙ্গে জোট মেনে নেবে না। আবার কংগ্রেসকে জোটের নেতৃত্ব ছাড়তেও রাজি হবে না বেশ কিছু দল। সিপিএমও কংগ্রেসের সঙ্গে জাতীয় স্তরের জোটে যাচ্ছে না।” তবে পশ্চিমবঙ্গে সিপিএম তৃণমূলের জোট হচ্ছে কিনা এ বিষয় নিয়ে রাজনৈতিক মহলের অন্দরে এখন গুঞ্জন ছড়িয়েছে বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!