এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি পদ থেকে অপসারিত হলেন অধীর,তৃণমূলের সাথে জোট ঘিরে জল্পনা

প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি পদ থেকে অপসারিত হলেন অধীর,তৃণমূলের সাথে জোট ঘিরে জল্পনা

প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি পদ থেকে অপসারিত হলেন অধীররঞ্জন চৌধুরি, নয়া সভাপতি হলেন সোমেন মিত্র। সামনেই ২০১৯ এর ভোট আর তার আগেই কংগ্রেসের সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করতেই এহান সিধান্ত নিয়েছেন কংগ্রেস হাই কমান্ড বলে জানা গেছে।
জানা গেছে শুধু সভাপতি পদেই নয় রদবদল হয়েছে শংকর মালাকার, নেপাল মোহাতো, আবু হাসেম খান চৌধুরি (ডালু) ও দীপা দাসমুন্সিকে কার্যকরী সভাপতি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন হাইকম্যান্ড। পাশাপাশি প্রাক্তন প্রদেশ সভাপতি প্রদীপ ভট্টাচার্যকে কো-অর্ডিনেশন কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর এই নিয়েই শুরু হয়েছে চরম জল্পনা। রাজনৈতিকমহলের জল্পনা যে আগামী লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের সঙ্গে জোটের রাস্তায় হাটতেই এই পদক্ষেপ নিলেন সোনিয়া-রাহুল। কেননা অধীর চৌধুরী সপ্ন মতেই তৃণমূলের সাথে জোটের পথে হাঁটতেন না, ফলে মনোমালিন্য ছাড়া আর কিছুই মিলতো না।

জানা যাচ্ছে এই নতুন টিম অধীরবাবুর মতো তৃণমূলের সাথে জোট বাঁধতে অনিচ্ছুক নন। বামেদের সাথে জোটে তাদের অনীহা দেখে গিয়েছিলো। অন্যদিকে বামেদের সাথে জোট বাঁধতে বেশি ইচ্ছুক ছিলেন অধীরবাবু। তাছাড়া এক এক করে অধীরবাবুর আমলে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে আর বিজেপিতে নেতা কর্মী বিধায়কদের যাবার ধুম পড়েছে। দলের সাফল্য ধরে রাখতে নিজের দক্ষতা দেখাতে ব্যর্থ ছিলেন অধীরবাবু ,এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিকমহল। নতুন দায়িত্ব দিয়ে ফের বাংলায় নিজেদের দানা কিভাবে মেলে ধরে কংগ্রেস তা দেখার জন্য অধীর আগ্রহে রাজনৈতিকমহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!