এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > আবার কি বঙ্গ কংগ্রেসে ভাঙন? হেভিওয়েট নেতার আলাদা সংগঠন করে আন্দোলনে বাড়ছে জল্পনা!

আবার কি বঙ্গ কংগ্রেসে ভাঙন? হেভিওয়েট নেতার আলাদা সংগঠন করে আন্দোলনে বাড়ছে জল্পনা!

রাফাল কেলেঙ্কারি নিয়ে যখন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়াতে রাজ্যগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে কংগ্রেস হাইকমান্ড ঠিক তখনই সেই কেন্দ্র বিরোধী আন্দোলনে দ্বিধাবিভক্তের ছাপ স্পষ্ট হয়ে উঠল বঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেসের অন্দরে এমনটাই জানা গেছে কলকাতার এক জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম থেকে।

জানা যাচ্ছে , ফরাসি যুদ্ধ বিমান রাফাল কিনতে 41 হাজার 205 কোটি টাকার কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে আসায় ইতিমধ্যেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী ঘনিষ্ট ব্যাবসায়ীদের সুবিধে পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ তুলে সংসদে বিক্ষোভও দেখিয়েছে কংগ্রেস। আর কেন্দ্রবিরোধী এই ইস্যুকে বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে দিতে সক্রিয় ভূমিকা নিচ্ছে হাত শিবির। কিন্তু এই আন্দোলনে বঙ্গ কংগ্রেসের দুই নেতৃর পৃথক পৃথক বিক্ষোভ কংগ্রেসের অভ্যন্তরীন অনৈক্যকে সামনে এনে দিল বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

ওই সংবাদমাধ্যম দাবি করেছে যে , এদিন কোলকাতর প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক বৈঠকে “কংগ্রেস লিটারারি সার্কেল” নামে একটি নতুন সংগঠনের নাম ঘোষনা করেন বাংলার প্রবীন কংগ্রেস নেতা সোমেন মিত্র। যার চেয়ারম্যান করা হয় প্রাক্তন কংগ্রেস সাংসদ আমজাদ আলিকে। কিন্তু এরজন্য আলাদা সংগঠন গড়ার কি ছিল! কংগ্রেসের ভেতরে থেকে কি আন্দোলন করা যেত না? যদিও বা সেই প্রশ্নের সোমেন মিত্র বলেন, “প্রদেশের পক্ষ থেকে এইব্যাপারে প্রচৃরের পাশাপাশি কংগ্রেস সমমনোভাবাপন্ন মানুষকে নিয়েও এই বিক্ষোভ সংগঠিত হচ্ছে।”

জানা গেছে, জেলায় এই রাফাল কেলেঙ্কারি নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে প্রচারে নামবে কংগ্রেস লিটারারি সার্কেল। পাশাপাশি এই বিষয় নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব না হওয়ায় রাজ্যের শাসকদল তৃনমূলকেও কটাক্ষ করেন সোমনে মিত্র। তবে শুধু সোমেনবাবুই নন, প্রদেশ কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি প্রদীপ ভট্টাচার্যও গত সপ্তাহে এই রাফাল দুর্নীতি নিয়ে দক্ষিন কোলকাতায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর একটি কুশপুতুল দাহ করেছেন। রাজনৈতিক মহলের মতে, এই সোমেন মিত্র এবং প্রদীপ ভট্টাচার্য দুজনেই অধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধ গোষ্টী। তাই কেন্দ্র বিরোধী আন্দোলনেও নিজেদের মত করে পথে নেমে সেই গোষ্টীদ্বন্দ্বকেই আরও প্রকট করলেন বিধান ভবনের প্রবীন নেতারা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

যদিও এই খবরের সত্যতা বা সূত্র সম্পর্কে ওই ওয়েব পোর্টালে কিছু লেখা নেই, প্রিয়বন্ধু বাংলার তরফেও এই খবরের সত্যতা যাচাই করে দেখা সম্ভব হয় নি। এই প্রবন্ধ সম্পূর্ণরূপে ওই পোর্টালে প্রকাশিত খবরের পরিপ্রেক্ষিতে করা, কোনোভাবেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয় বা কোনো ব্যক্তি বা দলের সম্মানহানির উদ্দেশ্যে রচিত নয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!