এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ক্ষমতায় এসেই ফের চমক কংগ্রেস সরকারের, ক্রমশ কোণঠাসা হচ্ছে মোদি

ক্ষমতায় এসেই ফের চমক কংগ্রেস সরকারের, ক্রমশ কোণঠাসা হচ্ছে মোদি

দেশের তিন রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে জিতেই শপথ গ্রহণের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই নিজেদের কৃষকপ্রেমী সরকার রূপে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করল কংগ্রেস। আর যে ঘটনায় ইতিমধ্যেই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে প্রবল চাপে পড়ার আশঙ্কায় রয়েছে গেরুয়া শিবির।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই কেন্দ্রের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে দেশের কৃষকদের সংকট নিয়ে আন্দোলনে নেমেছে কংগ্রেস। যেখানে বিজেপিকে প্রবল কটাক্ষ করতে দেখা গেছে কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধীকে। এমনকি সদ্য হয়ে যাওয়া দেশের পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের আগে সেই সমস্ত রাজ্যে জিতলে সেখানকার কৃষকদের কৃষি ঋণ মুকুব সহ ধানের সহায়ক মূল্য বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী

। সেইমতো দেশের পাঁচ রাজ্যের মধ্যে প্রায় তিন রাজ্যেই ক্ষমতায় এসেছে কংগ্রেস। গতকাল সেই মধ্যপ্রদেশ, ছত্রিশগড় এবং রাজস্থানে শপথ নিয়েছেন কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রীরা। আর শপথ নেওয়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই কৃষি ঋণ মুকুব এবং ধানের সহায়ক মূল্য বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল কংগ্রেস সরকার।

সূত্রের খবর, গত কাল শপথ নেওয়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই মধ্যপ্রদেশের সমস্ত কৃষকদের জন্য দুলক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ মুকুবের কথা ঘোষণা করেছিলেন সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথ। তবে শুধু কমলনাথই নয়, এবার কৃষিঋণ মুকুবের সিদ্ধান্ত ঘোষণার পাশাপাশি নিজেদের দেওয়া প্রতিশ্রুতিকে রক্ষার জন্য শপথের কিছু পরই ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল ধানের সহায়ক মূল্য কুইন্টাল প্রতি 800 টাকা বাড়ানোর কথা ঘোষণা করলেন।

বর্তমানে এই ছত্রিশগড়ের ধানের সহায়ক মূল্য 1750 টাকা। কিন্তু শপথ নিয়েই সেখানকার কংগ্রেসী মুখ্যমন্ত্রীর এহেন ঘোষণায় এখন সেই ধানের সহায়ক মূল্য হতে চলেছে 2550 টাকা। আর এই ঘোষনাকে ঘিরেই এখন সেই রাজ্যের কৃষকদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে খুশির হাওয়া।

কিন্তু সমালোচকদের একাংশ মনে করছেন, এই দান-খয়রাতি করে আদতে অর্থনীতিরই ক্ষতি করা হচ্ছে। তবে কংগ্রেস নেতৃত্বদের মতে, তাঁদের কাছে কৃষকদের সুরক্ষা আগে। তাইতো ক্ষমতায় বসার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই নিজেদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি পূরণ করলেন তাঁরা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

রাজনৈতিক মহলের মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে কংগ্রেস এই তিন রাজ্যে কৃষকদের জন্য এহেন উপহার দিয়ে নিজেদের ভোটব্যাঙ্ক শক্ত করার চেষ্টা করল। আর যার ফলে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের কপালে যে চিন্তার ভাঁজ পড়বে সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত প্রত্যেকেই।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!