এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > তিন রাজ্যে বিজেপিকে আটকালেই পাল্টে যাবে সব সমীকরণ-অঙ্ক কষছে রাহুল শিবির

তিন রাজ্যে বিজেপিকে আটকালেই পাল্টে যাবে সব সমীকরণ-অঙ্ক কষছে রাহুল শিবির

উত্তরপ্রদেশ,বিহার,মহারাষ্ট্র এই তিনটি রাজ্যকেউ পাখির চোখ করেছে জাতীয় কংগ্রেস।এই তিনটি রাজ্যেই বিজেপির গতি রোধ করতে পারলেই লোকসভা ভোটে মোদীসরকারকে সরানো সম্ভব,এমনটাই ধারণা কংগ্রেস সুপ্রিমো রাহুল গান্ধীর। এই রাজ্যগুলোতে বিরোধী জোট মোটামুটি পাকা হয়ে গেছে। এখন প্রয়োজন কেবল সামঝোতায় আসা। এটুকু করতে পারলেই ভোটের প্রস্তুতির সিংহভাগই সম্পন্ন হয়ে যাবে বলেই মনে করছেন রাহুল ঘনিষ্ঠ এক নেতা। এর সঙ্গে তিনি এটাও জানিয়ে দিলেন, এবার সব রাজ্যেই কংগ্রেসের পোক্ত সংগঠনের প্রমান পাবে বিজেপি।

তবে কেন কেবল তিনটে রাজ্যকেই টার্গেট করল কংগ্রেস। এ নিয়ে তৈরি হয়েছ প্রশ্ন। জবাব মিলেছে কংগ্রেস সুপ্রিমোর কাছ থেকেই। তাঁর ধারণা রাজস্থান,গুজরাট,মধ্যপ্রদেশ,হরিয়ানা,ছত্তিশগড় ও পাঞ্জাবে কংগ্রেসের সংগঠন বেশ শক্তিশালী। ওখানে বিজেপিকে হারাতে বেশি বেগ পেতে হবে না। তবে উওরপ্রদেশ,বিহার,মহারাষ্ট্রে ভীত পাকা বিজেপির।  তাই এই তিনটে রাজ্যেই জোট সংগঠন পোক্ত করার ছক কষেছে কংগ্রেস। সপা,বসপা,এনসিপি এবং আরজেডির সঙ্গে আসন বাটোয়ারাও চূড়ান্ত করা হয়েছে। অন্যদিকে,দিল্লিতে আম আদমি পার্টির সঙ্গে কংগ্রেসের গাঁট বাধার প্রসঙ্গে দেশ জুড়ে জল্পনা শুরু হলে রাহুল ঘনিষ্ঠ নেতা সমস্ত জল্পনায় জল ঢেলে জানালেন,এমন কোনো সম্ভাবনা আপাতত নেই। কারণ দিল্লিতে কংগ্রেস-আপ জোট নিয়ে ঘোর আপত্তি জানিয়ে রেখেছে দিল্লি প্রদেশ কংগ্রেস।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

তবে বিরোধী জোটের সাড়াশী আক্রমনে মোদী সরকার যদি কেন্দ্র থেকে হটে যায়,সেক্ষেত্রে বিরোধী জোট ক্ষমতায় আসবে সেটাই স্বাভাবিক। সেক্ষেত্রে জোটের নেতৃত্বে কে আসবেন তা নিয়েই তৈরি হল প্রশ্ন।  ওই রাহুল ঘনিষ্ঠ নেতার জানান,এটা নিয়ে এখনো কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। নির্বাচনের ফলাফলের পরই এটা নিয়ে ভাবা হবে। এছাড়া বিজেপি বিরোধী জোটে তৃণমূল-সিপিএম এর জোট বাঁধার ব্যাপারে কংগ্রেস কতোটা আশাবাদী সেটা নিয়ে প্রশ্ন উঠলে জবাবে তিনি জানান, বাংলায় দুটি প্রতিপক্ষ দলকে একসাথে পাওয়া কার্যত অসম্ভবই মনে করছেন রাহুল গান্ধী।

এর পাশাপাশি তিনি আরো জানালেন,প্রিয়াঙ্কা গান্ধী রায়বেরেলি থেকে লড়বেন বলে খবর রটলেও আসলে এখনো চূড়ান্ত হয়নি কিছুই। নিজের আসন মেয়েকে ছাড়ার ব্যাপারে যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার সোনিয়া গান্ধীই নেবেন বলে জানালেন তিনি।  তবে এবারও আমেথি কেন্দ্র থেকে রাহুল গান্ধীর প্রার্থী হওয়ার পাকা। কথাপ্রসঙ্গে ওই নেতা আরো জানান, সংসদে মোদি সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবে তাঁর ভাষণ নিয়ে রাহুল ঘনিষ্ঠদের বলেছেন, যাঁরা এতদিন তাঁকে ‘‌পাপ্পু’‌ বলত তাঁদের যোগ্য জবাব দিয়েছেন তিনি। এদিকে, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির পরামর্শমতো ১৮টি বিরোধী দল ২০১৯-‌এ ইভিএমের পরিবর্তে ব্যালট পেপার ফিরিয়ে আনার দাবিতে জাতীয় নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হওয়ার কথা জানা গেল। ইভিএম নিয়ে অনেকের মনে বহু প্রশ্ন থাকলেও সমীক্ষায় দেখা গেছে কোথাও ইভিএম খারাপ হলেই সেখানে বিজেপি-‌র ভোটে জোয়ার আসে। ফলে, ইভিএম নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে তাঁদের। এমনটাই জানালেন রাহুল ঘনিষ্ঠ কংগ্রেসের ওই হেভিওয়েট নেতা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!