এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কংগ্রেসকে অক্সিজেন দিতে সক্রিয় রাজনীতিতে আসার জল্পনা বাড়িয়ে দিলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

কংগ্রেসকে অক্সিজেন দিতে সক্রিয় রাজনীতিতে আসার জল্পনা বাড়িয়ে দিলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

এতদিন অবধি পারিবারিক রাজনৈতিক দলে কোনো সক্রিয় ভূমিকা ছিলো না । ১০ জনপথ অথবা ১২ তুঘলক রোডে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে বৈঠকগুলিতে তাঁর নিয়মিত উপস্থিতি লক্ষ্য করা যেত। আসন্ন ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে ও যে পারিবারিক গড় রায়বেরিলি থেকে যে তিনি প্রার্থী হবেন না একথা আগেই জানিয়েছেন। কিন্তু এসব সত্বেও ইন্দিরা গান্ধী ইনডোর স্টেডিয়ামে দলের প্লেনারির ঠিক আগের রাতে প্লেনারির ব্যবস্থাপনা শেষ মূহুর্তে যথাযথ হয়েছে কি না দেখার জন্যে সেখানে উপস্থিত হলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। সেই সময় কনস্টিটিউশন ক্লাবে অন্য শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে দলের প্লেনারির কর্মসূচি চূড়ান্ত করতে ব্যস্ত ছিলেন প্রিয়াঙ্কার মা প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি , ও ভাই নব নির্বাচিত কংগ্রেস সভাপতি। প্রিয়াঙ্কার ইন্দিরা গান্ধী ইনডোর স্টেডিয়ামে আসার খবরে সাংবাদিকদের ভিড় বাড়তে শুরু হলে , তিনি যেভাবে কিছু না জানিয়ে সেখানে গেছিলেন সেভাবেই নিঃশব্দে চলে যান। কিন্তু এরপর কার্যতই অন্য ভূমিকায় দেখা গেল প্রিয়াঙ্কা কে। সোস্যাল মিডিয়া তে ২০১৪ সালে গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির ফলাফলের পরিসিংখ্যান ট্যুইট করলেন। প্রিয়াঙ্কা ট্যুইটে লিখলেন , “২০১৪ সালে জেতা ২৮২টির মধ্যে ২৩০টি আসন যে ১০ রাজ্য থেকে এসেছিল, সেই সমস্ত রাজ্যে বিজেপি কি ২০১৪ সালের সাফল্যের পুনরাবৃত্তি করতে পারবে? মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, গুজরাট, ছত্তিশগড়, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, ঝাড়খণ্ড, হরিয়ানা এবং দিল্লির বিজেপি কর্মীদের মধ্যে সেই আত্মবিশ্বাস রয়েছে কি? ” এই ট্যুইট লেখার পর আবার ও আড়ালে চলে গেলেন প্রিয়াঙ্কা । হঠাৎ করে প্রিয়াঙ্কার প্লেনারির ব্যবস্থাপণা পর্যালোচনা করতে যাওয়া ও তার পরে ট্যুইট করে বিজেপি গত লোকসভা নির্বাচনের সাফল্যের ধারা আগামী নির্বাচনে বজায় রাখতে পারবেন কি না তা খতিয়ে দেখার ঘটনা বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে কংগ্রেসএর প্রবীণ নেতা থেকে শুরু করে দলের মুখপাত্র সকলেই নির্বাক থাকেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!