এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কেন কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন সাংসদ মৌসম নূর,জানালেন তাঁর মামা ডালু

কেন কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন সাংসদ মৌসম নূর,জানালেন তাঁর মামা ডালু

উত্তর মালদা কেন্দ্র থেকে দু’বার কংগ্রেসের সাংসদ মৌসম লোকসভা ভোটের মুখে দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন। একসময় বিজেপিকে রুখতে তৃণমূলের সঙ্গে জোট বাধার পক্ষে সওয়াল করেছিলেন যে নেত্রী,তিনি এবার সরাসরি তৃণমূলেই নাম লেখালেন। চলতি সপ্তাহের সোমবারই কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন সাংসদ মৌসম নূর।

দলবদলের পর মালদা জেলার তৃণমূল পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে নবান্নে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখাও করে এসেছেন তিনি। গতকাল নিজের জায়গা মালদায় ফিরলেন তিনি। তবে যাওয়া আগে সাংবাদিকদের বেশ কিছু প্রশ্নের উওর দিলেন। এবং মামা আবু হাসেম খান চৌধুরী (ডালু) এবং মামাতো ভাই ইশা খানকে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার জন্যে অনুরোধও করলেন তিনি। বললেন,মালদায় উন্নয়নের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরাটাই এখন যথার্থ হবে।

উত্তর মালদায় কংগ্রেসের সংগঠন পোক্ত ছিল। কিন্তু গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে ওই কেন্দ্রে কংগ্রেসের ভোটব্যাঙ্কে ধস নামে। জেলা পরিষদের ১৪ টি আসনের মধ্যে বিজেপি-তৃণমূল উভয়ই ৬ টি আসন পায় এবং কংগ্রেসের ঝুলিতে মাত্র ২ টি আসন আসে। কাজেই লোকসভা ভোটের আগে উত্তর মালদায় সংগঠন মজবুত করার চেষ্টা করছিল কংগ্রেস। কিন্তু তাঁদের মনোবলে আঘাত এনে ঠিক লোকসভা ভোটের মুখেই কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন দুবারের বিজয়ী সাংসদ মৌসম নূর।

স্বাভাবিকভাবেই তিনি কেন দলবদল করলেন তা নিয়ে প্রশ্নের ঝড় উঠে গিয়েছে রাজনৈতিকমহলে। উত্তরটা দিয়ে দিলেন মৌসমের মামা ডালু অর্থাৎ দক্ষিণ মালদা কংগ্রেস সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরী। বললেন,’‌প্রচণ্ড চাপের মুখে দল ছাড়তে বাধ্য হয়েছে মৌসম। পঞ্চায়েত ভোটে খারাপ ফলাফল হওয়ায় ও মনে করত, আর কিছুই হয়তো করা সম্ভব নয়। ওকে অনেক বোঝানো হয়েছিল। না জানিয়েই তৃণমূলে যোগ দিয়ে দিল।’‌

এরপর তৃণমূলের সঙ্গে জোট প্রসঙ্গে তিনি বললেন,বিজেপিকে হঠাতে সম্প্রতি ৪ কংগ্রেস সাংসদ সহ রাহুল গান্ধীর কাছে গিয়ে তৃণমূলের সঙ্গে জোটের প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি। তবে কোনো পরিস্থিতিতেই তিনি কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেবেন না বলেই সাফ জানিয়ে দিলেন।

অন্যদিকে,সদ্য দলবদল করা সাংসদ মৌসম জানালেন,কাউকে গোপন করে তিনি দল পাল্টাননি। সোমেন মামা অর্থাৎ প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র ভুল কথা বলছেন তাঁর ব্যাপারে। তিনি আগেও তৃণমূলের সঙ্গে জোটের পক্ষে আওয়াজ তুলেছিলেন। কিন্তু তাঁর কথা কান দেয়নি রাজ্য নেতৃত্ব।

উত্তর মালদার কংগ্রেসের অনেক কর্মী-সমর্থকরাই তৃণমূলে যোগ দিয়েছে। আর তিনিও যে বিজেপিকে রুখতে তৃণমূলে যোগ দিয়ে সঠিক সিদ্ধান্তই নিয়েছেন,এমনটাই জোর গলায় বললেন মৌসম। এরপর তাঁর মামা ডালু এবং দাদা ইশা খানকে উদ্দেশ্য করে বলেন,”ওঁরা দু’‌জন যদি তৃণমূলে না আসেন, তাহলে বিজেপি সুযোগ পেয়ে যাবে। আমি এই সুযোগ বিজেপি-‌কে দেব না। মমতাদির নেতৃত্বে কাজ করব বলেই তৃণমূলে যোগ দিয়েছি। কর্মীরাও এতে খুশি। আমি চাই, মমতাদি প্রধানমন্ত্রী হোন। বিজেপি ফের এলে দেশের সর্বনাশ হয়ে যাবে। মালদায় উন্নয়ন বন্ধ করে দেবে। যদিও মমতাদি মালদার জন্য অনেক কিছু করছেন।’‌’

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!