এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > গুরুত্বপূর্ণ ‘গড়ে’ কংগ্রেসের ঘুম ওড়াতে চলেছেন এবার অরবিন্দ কেজরিওয়াল

গুরুত্বপূর্ণ ‘গড়ে’ কংগ্রেসের ঘুম ওড়াতে চলেছেন এবার অরবিন্দ কেজরিওয়াল

দেশের আসন্ন লোকসভা ভোটে কেন্দ্রের বিজেপিকে সরাতে একজোট সমস্ত বিরোধী দলগুলো। কিন্তু যত দিন এগোচ্ছে ততই যেন সেই বিরোধী জোটে ধাক্কা লাগতে শুরু করেছে। বিজেপিকে সরাতে বিরোধী মহাজোটে অংশগ্রহণকারী দল গুলি যেখানে যে শক্তিশালী সেখানে তারাই বেশি আসন দেবে বলে প্রথমে ঠিক হলেও এবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়ালের কথায় শোনা গেল অন্য ইঙ্গিত।

সূত্রের খবর গত বৃহস্পতিবার দলীয় এক বিধায়কের বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ভাত ইন্দায় গিয়েছিলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল আর সেই খানেই তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন; আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে পাঞ্জাবের 13 টি আসনেই প্রার্থী দেবে আম আদমি পার্টি। এমনকি এখানে যে কারো সঙ্গেই তারা জোট করবে না এই ব্যাপারটিও স্পষ্ট করেছেন তিনি। আর এই খানেই তীব্র জল্পনা সৃষ্টি হয়েছে যে তাহলে কি বিরোধী মহাজোটের যে ভাবনা তা কেজরিওয়ালের এই কথা থেকেই ভেস্তে গেল! কেননা প্রথমে “দশে মিলি করি কাজ; হারি জিতি নাহি লাজ” নীতি স্থির হলেও এখন যে যার মত করে সব জায়গাতেই আসন দিতে চাইলে আদতে তো মহাজোটের নীতিতেই বড়সড় ধাক্কা খাবে। কিন্তু হঠাৎ এ ধরনের কথা কেন বললেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী?

সূত্রের খবর; ধর্মীয় স্থান এর পবিত্রতা নষ্ট নিয়ে বিচারপতি রঞ্জিত সিং কমিশনের তদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে কংগ্রেস সরকার কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। তাই কংগ্রেসের এই অনিয়ম আপ মানতে পারবে না। আর যার ফলে তারা পাঞ্জাবে একা লড়ার সিদ্ধান্ত নিল বলে জানিয়েছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তবে কংগ্রেস এবং আপের টি পৃথক লড়াইয়ে বেশ ভালোই ফসল নিজেদের ঘরে তুলতে পারে বিজেপি। কিন্তু আদতে ঠিক কি হবে? কোথায় দাঁড়াবে এই সমীকরণ?

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো  করুন এই লিঙ্কেখবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক

তার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আগামী লোকসভা নির্বাচন পর্যন্ত। এদিকে শুধু আসন বণ্টনের ব্যাপারই নয় পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের দেওয়া প্রতিশ্রুতিরও এদিন তীব্র সমালোচনা করেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি বলেন; “কৃষকদের ঋণ মুকুব; সামাজিক নিরাপত্তার কারণে পেনশনের হার বাড়ানো এবং বেকার ভাতার প্রতিশ্রুতি দিলেও এর কোনটাই পালন করেনি পাঞ্জাবের সরকার। আর তাই মুখ্যমন্ত্রীর মিথ্যে মানুষ ধরে ফেলেছেন।” সব মিলিয়ে এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে পাঞ্জাবে কংগ্রেসকে চাপে ফেলতে পথে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!