এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > প্রয়াত বাবার অসম্পূর্ন স্বপ্ন সফল করতে এখন থেকেই আসরে বিধায়ক-কন্যা

প্রয়াত বাবার অসম্পূর্ন স্বপ্ন সফল করতে এখন থেকেই আসরে বিধায়ক-কন্যা

একসময় অতীতে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী প্রমথনাথ রায় উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জে মহিলা কলেজ গড়তে উদ্যোগী হয়েছিলেন। আর এখন সময়ের সাথে সাথে অবস্থান অনেকটাই পরিবর্তন হয়েছে। তাই বাবার স্বপ্ন পূরণ করাই এখন প্রয়াত প্রাক্তন মন্ত্রী প্রমথনাথ রায়ের মেয়ে ধীতশ্রী রায়ের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। বস্তুত, কালিয়াগঞ্জের কংগ্রেস বিধায়ক প্রমথনাথ রায় প্রয়াত হওয়ায়, সেখানে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

অনেক আগেই কংগ্রেস সহানুভূতির খাতিরে নিজেদের বাক্সে ভোট আনতে প্রয়াত প্রমথনাথ রায়ের মেয়ের নাম প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা করেছে। তবে এখনও ভোটের দিন ঘোষণা না হলেও কংগ্রেসের প্রার্থীর নাম ঘোষণা হতেই ধীতশ্রী রায় তাঁর বাবার নির্বাচনী এলাকা চষে বেড়াতে শুরু করেছেন। অনেকেই বলছেন, কংগ্রেস ধীতশ্রী রায়কে প্রার্থী করায় চার বারের বিধায়ক প্রমথনাথ রায়ের স্বচ্ছ ভাবমূর্তি তাঁর মেয়েকে সহানুভূতির জায়গা করে দিয়েছে।

বলা বাহুল্য, একসময় প্রমথনাথ রায়ের উদ্যোগেই বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী রাধিকাপুরে যাতায়ার ক্ষেত্রে রেলসেতু ভরসা হলেও সেখানে সড়ক সেতু হয়েছে। এদিন এই প্রসঙ্গে প্রার্থী হয়ে ধীতশ্রী রায় বলেন, “বাবাকে তাঁর নির্বাচনী এলাকার মানুষ কতটা ভালোবাসতেন, যেখানেই যাচ্ছি তার প্রমাণ পাচ্ছি। সাধারণ মানুষ তাঁর প্রশংসা করছেন। তাঁর স্বপ্নের কথা শোনাচ্ছেন। বাবার অসমাপ্ত কাজ মেয়ে হিসাবে আমিও করতে চাই।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এখনও পর্যন্ত সরাসরিভাবে ভোটের প্রচারে না নামলেও কংগ্রেসের প্রার্থী ঘোষণা হতেই ধীতশ্রীদেবী কালিয়াগঞ্জ বিধানসভায় জনসংযোগ বাড়াতে বিভিন্ন এলাকা ঘুরতে শুরু করেছেন। জানা গেছে, এর আগে তার বাবা প্রয়াত প্রমথনাথ রায় যতবার নির্বাচনে লড়েছেন, সেই সময় বাবার ছায়াসঙ্গী হিসাবেই ধীতশ্রী রায় সবকিছু সামলেছেন। আর তাই বাবার ভোট ম্যানেজারদের সঙ্গে ধীতশ্রীদেবীর পরিচয় ও আন্তরিক সম্পর্কেও বিন্দুমাত্র চিড় ধরেনি। তবে সেই সময়কার অনেকেই এখন বিরোধী তৃণমূল, বিজেপি দলে নাম লিখিয়েছেন।

প্রমথনাথবাবুর সঙ্গে একসময় রাজনীতি করা সেইসব ব্যক্তিরা বিরোধী দলে নাম লেখালেও তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন ধীতশ্রী রায়। কিন্তু সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে যেভাবে কংগ্রেসের এই কালিয়াগঞ্জে দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে তাতে, উপনির্বাচনে তিনি কি কংগ্রেসের বৈতরণী পার করাতে পারবেন! এদিন এই প্রসঙ্গে ধীতশ্রী রায় বলেন, “২০১১ সালে বাবা রাজ্যের পরিকল্পনা ও উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী থাকার সময় রাধিকাপুরকে কালিয়াগঞ্জের সঙ্গে যুক্ত করতে টাঙন নদীতে সড়ক সেতু করতে উদ্যোগ নিয়েছিলেন।”

তিনি আরও বলেন, “কালিয়াগঞ্জ স্টেট জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসা পরিষেবার মান উন্নয়ন, কালিয়াগঞ্জে মহিলা কলেজের জন্য জমি চিহ্নিত করেছিলেন। কিছু কাজ করতে পেরেছেন, কিছু করে উঠতে পারেননি। সুযোগ পেলে বাবার অসমাপ্ত কাজ মেয়ে হিসাবে করব। লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস, বামেদের ভোট তৃণমূলকে ঠেকাতে মানুষ বিজেপিকে দিয়েছিল। বিধানসভা উপনির্বাচনের আগে কালিয়াগঞ্জে দলের বিভিন্ন কর্মসূচিতে গিয়ে বুঝতে পারছি, প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি ও প্রমথনাথ রায়ের এলাকার মানুষ এখানে কংগ্রেসের উপরেই বিধানসভা উপনির্বাচনে আস্থা রাখবেন।”

অন্যদিকে এই প্রসঙ্গে উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল বলেন, “কালিয়াগঞ্জে দল উপনির্বাচনের জন্য তৈরি আছে। এখানে আমাদের সংগঠনকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে।” অন্যদিকে এই ব্যাপারে বিজেপির জেলা সভাপতি নির্মল দাম বলেন, “গত লোকসভা নির্বাচনে কালিয়াগঞ্জের মানুষ যেভাবে সাড়া দিয়েছেন তাতে বিধানসভা উপনির্বাচনে আমাদের দলের প্রার্থী এখানে রেকর্ড ভোটে জয়ী হবেন। কংগ্রেসের পক্ষে সহানুভুতির ভোট হওয়ার কোনও সম্ভবনা নেই।” সব মিলিয়ে এবার প্রয়াত বাবার অসম্পূর্ণ স্বপ্ন পূরণ করতে নির্বাচনী ময়দানে নেমে প্রমথনাথ রায়ের কন্যা ধীতশ্রী রায় আদৌ শেষ হাসি হাসতে পারেন কিনা এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!