এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > মমতার অবর্তমানে দলের হাল ধরবেন কে, খোলাখুলি জানালেন স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী

মমতার অবর্তমানে দলের হাল ধরবেন কে, খোলাখুলি জানালেন স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী

তৃণমূল কংগ্রেস দলের প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তাঁর হাতেই এই দলের জন্ম ও লালন। এতদিন ধরে দলকে তিনি নিজের হাতে পরিচালনা করেছেন, কিন্তু এখন সময় এসেছে দলের উত্তরাধিকারী তথা দলের ভবিষ্যত নিয়ে ভাবনা-চিন্তা করার। গতকাল কলকাতার বেসরকারি বৈদ্যুতিন চ্যানেলে একটি একান্ত সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সাধারণ মানুষের অজানা বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর দিলেন। তিনি বলেন, জেলা রাজ্য সর্বত্র দলীয় কর্মীরা নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। সাধারণ মানুষের সাথে দলীয় কর্মীদের সদা সর্বদা যোগাযোগ বজায় রয়েছে। এটাই তৃণমূল কংগ্রেসের কাজের ধরণ ও দলের সংস্কৃতি। দলের ভবিষ্যত উত্তরাধীকারী বিষয়ে কথা উঠতেই তিনি তাঁর ছাত্র রাজনীতির প্রসঙ্গ তুলে আনেন।

তিনি বলেন, ছাত্রনেতা হিসাবে জেলার সবাইকে নিয়ে একটা টিম তৈরি করেছিলাম, যখন যুব রাজনীতিতে আসি, তখন সেই টিমটাই সঙ্গে ছিল এবং পরবর্তী পর্যায়ে রাজ্য রাজনীতিতেও সেই টীমই সংঘবদ্ধ ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তাঁর মতে সুব্রত বক্সী, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, অমিত মিত্র প্রমুখদের নিয়ে গঠিত এই টিমে প্রত্যেকেরই আলাদা আলাদা ভূমিকা রয়েছে। এঁরা প্রত্যেকেই নিজের দায়িত্ব কর্তব্য পালনে অত্যন্ত সচেতন। দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন নিশ্চিত করলেন যে বর্তমানে দলের অন্দরে যে টিম কাজ করছে তা আরোও ১৫-২০ বছর একই ভাবে কাজ করতে পারবে। এদিন বার বারই তিনি ‘কালেক্টিভ লিডারশিপ’ বা ‘সমষ্টিগত নেতৃত্ব’-এর উপরে জোর দেন। কিন্তু এত কিছুর পরেও যে একজন দল নেতা বা নেত্রীর প্রয়োজন হবে একথাও তিনি স্বীকার করে নিয়েছেন। সেই নেতা বা নেত্রীকে সাধারণ মানুষই বেছে নেবেন তাও স্পষ্ট করে দেন তিনি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নেতা তৈরী হয় কাজের মধ্যে দিয়ে, আধুনিক প্রজন্মকেও কাজের মধ্যে দিয়েই এগোতে হবে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!