এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মুখ্যমন্ত্রীর পরিবার শুভেন্দু অধিকারীর “100% অ্যাচিভমেন্টের” এর দাবি

মুখ্যমন্ত্রীর পরিবার শুভেন্দু অধিকারীর “100% অ্যাচিভমেন্টের” এর দাবি

2011 সালে রাজ্যে পরিবর্তনের পর নিজেদের সরকারের উন্নয়ন নিয়ে মাঝেমধ্যেই প্রভূত দাবি করতে দেখা যায় মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে সরকারের অন্যান্য মন্ত্রীদের। শিক্ষা থেকে স্বাস্থ্য, আইনশৃঙ্খলা থেকে অন্যান্য পরিষেবা, সমস্ত দিক থেকেই রাজ্য সেরা সেরা হয়ে উঠেছে বলে দাবি করতে দেখা যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

আর এবার সেই মুখ্যমন্ত্রীর মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ সদস্য পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী শিক্ষাক্ষেত্রে পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় তাদের 100 শতাংশ কাজ হয়ে গিয়েছে বলে দাবি করে বসলেন। সূত্রের খবর, সোমবার কোলাঘাটের বলাকা মঞ্চে নির্মল বিদ্যালয়, বেস্ট পারফরম্যান্স এবং বসে আঁকো প্রতিযোগিতায় সফল পড়ুয়াদের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন শুভেন্দু অধিকারী।

যেখানে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সভাধিপতি দেবব্রত দাস, সহকারি সভাধিপতি শেখ সুফিয়ান, জেলাশাসক পার্থ ঘোষ, অতিরিক্ত জেলাশাসক শেখর সেন, সমগ্র শিক্ষা অভিযান প্রকল্প আধিকারিক বিশ্বজিৎ সরকার সহ অন্যান্যরা। আর সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েই শিক্ষাক্ষেত্রে পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় তাদের সরকার ঠিক কি কি উন্নয়ন করেছে, তার তথ্য এবং খতিয়ান তুলে ধরেন শুভেন্দু অধিকারী।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন তিনি বলেন, “পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় শিক্ষা ব্যবস্থায় ব্যাপক উন্নতি হয়েছে। আর তাই পরিচালনার সঙ্গে যুক্ত সংশ্লিষ্ট সকলকে এবং অফিসারদের আমি ধন্যবাদ জানাই। বিগত সাত বছর ধরে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকে পূর্ব মেদিনীপুরে পাশের হার এক নম্বরে রয়েছে। শিক্ষাক্ষেত্রে পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় আমাদের 100% অ্যাচিভমেন্ট হয়ে গিয়েছে।

জেলায় 29 টি স্কুলটি উচ্চ মাধ্যমিকে উত্তীর্ণ, তিনটি নতুন কলেজ, একাধিক কলেজে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স চালু, সরকারি উদ্যোগে বিএড পঠন-পাঠনের সুযোগ বৃদ্ধি সহ অনেক কাজ করা হয়েছে। জাতীয় শিক্ষক নির্মল মাইতির বদান্যতায় মাইসোরায় সিদ্ধিনাথ মহাবিদ্যালয়, নিমতৌড়িতে সরকারি মহিলা মহাবিদ্যালয়, নন্দীগ্রামের আমেদাবাদে বেসরকারি কলেজ করা হয়েছে।”

জানা গেছে, এদিন এই অনুষ্ঠানে 43 টি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং 38 টি উচ্চ বিদ্যালয়কে নির্মল বিদ্যালয় পুরস্কার প্রদান করা হয়। এছাড়াও শিশু শিক্ষার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকার জন্য দশটি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং দশটি উচ্চ বিদ্যালয়কে পুরস্কৃত করা হয়েছে। অন্যদিকে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পাঁচ জন শিক্ষককে এদিনের অনুষ্ঠান থেকে শিক্ষারত্ন সম্মানও প্রদান করা হয়। সব মিলিয়ে শিক্ষাক্ষেত্রে পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় রাজ্যের বর্তমান সরকার সমস্ত কাজ করে দিয়েছে বলে শিক্ষক সমাজ এবং ছাত্র-ছাত্রীদের মন জয়ের চেষ্টা করলেন পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!