এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > অবশেষে বেরোল কি সমাধানসূত্র! অনশনকারী চাকরিপ্রার্থীদের নিজের বাড়িতে ডাকলেন মুখ্যমন্ত্রী, জেনে নিন

অবশেষে বেরোল কি সমাধানসূত্র! অনশনকারী চাকরিপ্রার্থীদের নিজের বাড়িতে ডাকলেন মুখ্যমন্ত্রী, জেনে নিন

কিছুদিন আগেই প্রাথমিক শিক্ষকরা তাদের অনশন চালিয়ে সাফল্য পেয়েছেন।যেখানে রাজ্যের শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে তাদের বেতন বৃদ্ধির বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। আর এবার সেই প্রাথমিক শিক্ষকদের পথে হেঁটেই নিজেদের দাবি আদায়ে একধাপ এগিয়ে গেলেন অনশনকারী চাকরিপ্রার্থীরা।

বস্তুত, গত 23 জুলাই থেকে নদীয়া জেলায় গ্রাম পঞ্চায়েত কর্মী পদের জন্য চূড়ান্ত তালিকা নাম ওঠা চাকরিপ্রার্থীরা যাতে অবিলম্বে তাদের নিয়োগপত্র পান, তার জন্য জেলা পরিষদের সামনে ধর্না শুরু করেছিলেন। এদিকে এর পরও কর্তৃপক্ষের তরফে তেমন কোনো সবুজ সংকেত না মেলায় গত সোমবার থেকে সেই সমস্ত ধর্নাকারিরা রিলে অনশন শুরু করেন।

যার জেরে অসুস্থ হয়ে পড়েন এক আন্দোলনকারী। এদিকে পরিস্থিতি যাতে হাতের বাইরে না চলে যায় এবং আলোচনার টেবিলে ডেকেই যাতে এই গোটা সমস্যার সমাধান করা যায়, তার জন্য এবার এই ব্যাপারে উদ্যোগী হলেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, বুধবার সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই আন্দোলনকারী 4 জন প্রতিনিধির সঙ্গে কালীঘাটের বাড়িতে আলোচনা করবেন বলে জানা গেছে। আর এই গোটা খবরটি আন্দোলনকারীদের মঙ্গলবার জেলা পরিষদে ডেকে জানিয়ে দিয়েছেন নদিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি রিক্তা কুন্ডু এবং কর্মাধক্ষ চঞ্চল দেবনাথ। এদিকে মুখ্যমন্ত্রী তাদের আলোচনায় ডেকেছেন, এই খবর পেয়ে রীতিমতো উজ্জীবিত সেই অনশনকারী চাকরিপ্রার্থীরা।

সূত্রের খবর, এদিন এই প্রসঙ্গে আন্দোলনকারীদের পক্ষে সুবীর হাটুই বলেন, “আমরা দীর্ঘদিন ধরেই চাইছিলাম আমাদের দাবির কথা মমতা বন্দোপাধ্যায়ের কান অবধি পৌঁছে দিতে। শেষ পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী আমাদের কথা শোনার জন্য চারজনকে ডেকেছেন। আমরা ভীষণ খুশি। আমরা তার কাছে আমাদের দাবির কথা তুলে ধরব। আশা রাখছি, মুখ্যমন্ত্রী নিশ্চয়ই আমাদের বিষয়টি বিবেচনা করবেন।”

কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী তাদের আলোচনার টেবিলে ডাকলেও তারা কি অনশন ভুলবেন না! আন্দোলনকারীদের বক্তব্য, বুধবার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করার পরই তারা এই অনশন তুলে নেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন। ফলে প্রাথমিক শিক্ষকদের মতোই এই আন্দোলনকারীদের সমস্যা সমাধানে এখন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনায় কোনো রফাসূত্র বেরিয়ে আসে কিনা, সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!