এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পর্যটন শিল্পকে অন্যমাত্রা দিতে মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরে শুভেন্দু-গড়ে শুরু হচ্ছে অভিনব পরিষেবা – জানুন বিস্তারিত

পর্যটন শিল্পকে অন্যমাত্রা দিতে মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরে শুভেন্দু-গড়ে শুরু হচ্ছে অভিনব পরিষেবা – জানুন বিস্তারিত



মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বপ্নকে সার্থক করতে এবার পর্যটন শিল্পের বিকাশে অগ্রগতি এবং মহিলাদের স্বনির্ভর করার জন্য এক অভিনব পদক্ষেপ নিতে চলেছে জেলা প্রশাসন। কিন্তু কি সেই পদক্ষেপ? সূত্রের খবর, পর্যটকদের সুবিধার জন্য “পিঙ্ক ক্যাব পূর্ব মেদিনীপুর” নামে একটি প্রকল্প চালু করছে জেলা প্রশাসন।

ইতিমধ্যেই এই ব্যাপারে কি অ্যাপস তৈরির কাজও সম্পন্ন হয়েছে। জানা গেছে, আগামী 5 ডিসেম্বর এই পূর্ব মেদিনীপুরের বাজকুলে একটি জনসভা করবেন মুখ্যমন্ত্রী। আর সেই জনসভা থেকেই পিঙ্ক ক্যাব বা গোলাপী ট্যাক্সি প্রকল্পে প্রশিক্ষিত মহিলাদের হাতে গাড়ির চাবি তুলে দেবেন তিনি।

কিন্তু এর মাধ্যমে ঠিক কিভাবে সুবিধা পাবেন উপভোক্তারা? সূত্রের খবর, ওলা এবং উবেরের মতই ইন্টারনেটের মাধ্যমে গাড়ি বুক করে ন্যায্য ভাড়ায় নিজের পর্যটন কেন্দ্রে পৌঁছে যেতে পারবেন পর্যটকেরা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই বছরেরই প্রথম দিকে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সার্কিট ট্যুরিজমের বিকাশ ও মহিলাদের কর্মসংস্থানের জন্য এই প্রকল্প চালু করার একটি পরিকল্পনা নেওয়া হয়। আর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই ব্যাপারে একটি বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হলে সেখানে অনেক মহিলারাই আবেদন করেন। জানা যায়, এর মধ্যে প্রথমে 50 জন মহিলাকে চিহ্নিত করে প্রশাসন।

তারপর তাদের কাঁথি ও তমলুক এলাকায় গাড়ি চালানোর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। আর সেই প্রশিক্ষণ শেষে তাদের হাতে এই গাড়ির ড্রাইভিং লাইসেন্সও তুলে দেওয়া হয়। অন্যদিকে এই প্রকল্পে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মহিলাদের জন্য গাড়ি কেনার প্রক্রিয়া শুরু হলে এখনও পর্যন্ত সেইখানে 20 জনের জন্য অনুমোদন পাওয়া দিয়েছে। আর এই অনুমোদন প্রাপ্ত 20 জনের মধ্যে আগামী 5 তারিখে মুখ্যমন্ত্রীর সভা থেকে মোট 7 জনের হাতে নতুন গাড়ির চাবি তুলে দেওয়া হবে বলে খবর। পাশাপাশি এই গাড়ির চালকদের জন্য বিনামূল্যে গোলাপি রঙের পোশাকেরও ব্যবস্থা করছে প্রশাসন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

তবে শুধু গাড়ির চাবিই নয়, ওইদিন মুখ্যমন্ত্রী সেই চালকদের হাতে একটি করে মোবাইল ফোনও তুলে দেবেন। এদিকে জেলার পর্যটনকেন্দ্রে পৌঁছতে রাজ্যের বিভিন্ন জেলা বা কলকাতা যাত্রীরা সেখানে আসার আগেই অ্যাপসের মাধ্যমে এই গাড়ি বুক করতে পারবেন। জেলা প্রশাসনের একাংশের বক্তব্য যে, এই প্রকল্প চালু হলে জেলার পর্যটনে একাধিক উন্নতি ঘটবে। সব মিলিয়ে পর্যটন শিল্পে গুরুত্ব দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় চালু হচ্ছে “পিঙ্ক ক্যাব”।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!