এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পুড়ল মুখ্যমন্ত্রীর ছবি দেওয়া ফ্লেক্স, অগ্নিগর্ভ অধিকারী-গড়

পুড়ল মুখ্যমন্ত্রীর ছবি দেওয়া ফ্লেক্স, অগ্নিগর্ভ অধিকারী-গড়


রাজ্যের শাসক দল বিরোধীদের ওপর লাগাতার সন্ত্রাস করছে – এই অভিযোগ তুলে গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগ থেকেই রাজ্যের ঘাসফুল শিবিরকে তীব্র অস্বস্তিতে ফেলেছিল বিরোধীরা। কিন্তু এবারে রাজ্যের শাসক দলের দলনেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া ফ্লেক্স পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিরোধী দল বিজেপির বিরুদ্ধে।

আর এই ঘটনায় বর্তমানে তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে কেশিয়াড়ির বাঘাস্তি পঞ্চায়েত এলাকার খরিপাড়া গ্রামে। অভিযোগ, গত রবিবার রাতে তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ের সামনে রাখা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফ্লেক্সে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত রবিবার কেশিয়াড়িতে তৃণমূলের শুভেন্দু অধিকারীর এক সভায় এই বাঘাস্তি সহ সমস্ত পঞ্চায়েত এলাকা থেকে বিপুল তৃণমূলের কর্মী সমর্থক সেখানে যোগ দেন।

আর এই সভা শেষে ফিরে সন্ধ্যায় খরিপাড়ায় অবস্থিত পার্টি অফিসের সামনে তৃনমূলের কর্মী-সমর্থকরা দেখেন বিজেপির পতাকা লাগানো রয়েছে। আর এই ঘটনা থেকেই শুরু হয় তুমুল উত্তেজনা। পরে চাপে পড়ে তৃণমূলের পার্টি অফিসের সামনে থেকে নিজেদের পতাকা খুলে নেয় বিজেপি।

 

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর সোমবার সকালে পার্টি অফিসের সামনে গিয়ে তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা দেখেন যে, তাঁদের দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবিতে কেউ বা কারা আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এলাকায় সৃষ্টি হয় তুমুল উত্তেজনা। বিজেপির বিরুদ্ধে এই সমস্ত অভিযোগের আঙুল তুলে তৃণমূলের পক্ষ থেকে এলাকায় প্রতিবাদ মিছিল করার পাশাপাশি একটি প্রতিবাদ সভারও আয়োজন করা হয়।

বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে স্থানীয় তৃণমূল ব্লক সভাপতি পবিত্র শীট বলেন, “রবিবার আমাদের চাপে ওরা পার্টি অফিসের সামনে থেকে পতাকা সরিয়ে নেয়। আর সেই রাগেই রাতে ওরা আমাদের অফিসের সামনে রাখা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি পুড়িয়ে দিয়েছে। আমরা গোটা বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছি।”

অন্যদিকে তাঁদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন স্থানীয় বিজেপির মন্ডল সভাপতি সনাতন দোলই। এদিন তিনি বলেন, “কেশিয়াড়িতে এক অদ্ভুত রাজনীতির আমদানি করছে তৃণমূল। পঞ্চায়েত সমিতি গঠন করতে ওরা নিজেরাই আগুন ধরিয়ে আমাদের নামে মিথ্যে অভিযোগ করছে। এভাবেই যদি ওরা আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ সাজাতে থাকে, তাহলে আমাদেরও এখন একই পথে এগোতে হবে।”

সব মিলিয়ে এবার তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রীর ফ্লেক্স পুড়িয়ে দেওয়াকে কেন্দ্র করে শাসক-বিরোধী তরজায় উত্তপ্ত অধিকারী গড়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!