এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে মালদহের জন্য ‘মানবিক’ হয়ে উঠলেন স্বয়ং তৃণমূল জেলা সভাপতি

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে মালদহের জন্য ‘মানবিক’ হয়ে উঠলেন স্বয়ং তৃণমূল জেলা সভাপতি

বর্তমানে তিনি মালদহ জেলা তৃণমূলের সভাপতি। কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে তিনি একজন নামি চিকিৎসকও। আর তাই তো খোদ দলনেত্রীর কথা এবং নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসক হিসেবে সাধারণ মানুষকে পরিষেবা দিতে উদ্যোগী হলেন মালদহ জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি ড. মোয়াজ্জেম হোসেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, রেল হাসপাতালের স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে পরিচিত মোয়াজ্জেম হোসেন গত 2014 সালের মালদহ জেলায় তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে লোকসভা ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। কিন্তু সেখানে তিনি হেরে গেলে খোদ মমতা বন্দোপাধ্যায় তাকে মালদহ জেলা তৃনমূলের সভাপতি পদে দায়িত্ব দেন।

কিন্তু কিছুদিন আগেই দলীয় কর্মসূচিতে সেই তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মালদহ জেলা তৃণমূলের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেনকে চিকিৎসা সম্পর্কে তার জ্ঞান সাধারণ মানুষকে পরিষেবা দেওয়ার মাধ্যমে কাজে লাগাতে নির্দেশ দিলে বিষয়টি নিয়ে তৎপর হয়ে ওঠেন মোয়াজ্জেম বাবুও। আর তাই অবশেষে গত মঙ্গলবার ফের চিকিৎসক হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে মেডিক্যাল কলেজে যোগ দিলেন সেই মালদহ জেলা তৃনমূলের সভাপতি।

জানা গেছে, দুদিন আগেই স্বাস্থ্য ভবন থেকে এই মোয়াজ্জেম বাবুর প্রয়োজনীয় নথিপত্র মেডিক্যালে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আর এরপরই তিনি কাজে যোগ দিয়েছেন। কিন্তু সাংগঠনিক দ্বায়িত্ব সামলে ঠিক কতক্ষণ আর কোন কোন দিনই বা তিনি রোগী দেখবেন?

সূত্রের খবর, সপ্তাহিক তিন দিন বেলা দশটা থেকে বিকেল পর্যন্ত মেডিকেলে রোগী দেখবেন তিনি। তবে এর জন্য আপাতত এক টাকা সাম্মানিকের বিনিময়ে তিনি গোটা পরিষেবা দেবেন। এদিকে এই মোয়াজ্জেম হোসেনকে চিকিৎসক হিসেবে পেয়ে প্রবল আনন্দিত মালদহ মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষ। এদিন এই প্রসঙ্গে মালদহ মেডিক্যাল কলেজের সুপার অমিতাভ দাশ বলেন, “আমরা ওনাকে স্বাগত জানিয়েছি। ওনার অভিজ্ঞতা ফসল এই মেডিকেল কলেজ অবশ্যই পাবে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে যাকে নিয়ে এত কিছু সেই মালদহ জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা চিকিৎসক মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, “দলনেত্রীর নির্দেশে মানুষের সেবা করার কাজেই নিয়োজিত হয়েছিলাম। আর তাই তো নেত্রীর নির্দেশে চিকিৎসাবিদ্যায় নিজেকে মানুষের কাজে লাগানোর জন্য পরামর্শে মালদহ মেডিক্যালের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্ত হলাম।” সব মিলিয়ে একজন মানব সম্পদকে ব্যবহার করায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই উদ্যোগে বর্তমানে চরম চর্চার বিষয় সৃষ্টি হয়েছে রাজনৈতিক মহলের অন্দরে।

Top
error: Content is protected !!