এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের কন্যাশ্রী কিভাবে আটকে দিচ্ছে নারীপাচার জানালেন শশী পাঁজা

মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের কন্যাশ্রী কিভাবে আটকে দিচ্ছে নারীপাচার জানালেন শশী পাঁজা

কলকাতায় সম্প্রতি মানুষ পাচারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন রাজ্যের সরকারি প্রতিনিধি, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে নিয়ে আমেরিকান সেন্টারে ‘কনক্লেভ’-এর আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের নারী, শিশু ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা। এদিনের অনুষ্ঠানে রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কন্যাশ্রী প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের মেয়েরা অনেক উপকৃত হচ্ছে এবং একই সাথে বাল্যবিবাহ এবং বাল্যবিবাহের নামে পাচারের ঘটনা অনেক কমে গিয়েছে জানালেন মন্ত্রী শশী পাঁজা। সেই সঙ্গে পরিসংখ্যান অনুয়ারী মানুষ পাচার বৃদ্ধি সংক্রান্ত তথ্যের ব্যাখ্যা করে তিনি বললেন, “আগে পাচারের খবর তেমন জানা যেত না। কেননা বাবা-মা অভিযোগ নথিভুক্ত করাতেন না।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

ধীরে ধীরে সচেতনতা বাড়ছে। তাই নিখোঁজ মেয়ের বাবা-মায়েরা অভিযোগ দায়ের করছেন। সেই নথিভুক্তির জন্যই তথ্য-পরিসংখ্যান দেখাচ্ছে যে, মানুষ পাচার বাড়ছে।” রাজ্যের দাবি অনুসারে ‘স্টেট অ্যাকশন প্ল্যান’ তৈরী হয়েছে পাচার রোধে কেন্দ্রীয় বিল আসার অনেক আগেই। এদিন শশী দেবী জানালেন  সার্বিক পরিকল্পনা ছাড়াও দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং জলপাইগুড়ি জেলায় পৃথক অ্যাকশন প্ল্যান করা হয়েছে। ঐসব জেলায় প্রাথমিক পর্যায়ে নজরদারি ও সচেতনতা বৃদ্ধি করতে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা, পুলিশ, নারী-শিশু ও সমাজকল্যাণ দফতরের বিভিন্ন বিভাগ, স্বাস্থ্য বিভাগ, অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী, ব্লক এবং গ্রাম স্তরের শিশু সুরক্ষা সমিতিগুলিকে একজোট করে একটি পৃথক কমিটি গড়ে তোলা হচ্ছে। এদিনের অনুষ্ঠাণে কলকাতায় নিযুক্ত মার্কিন কনসাল জেনারেল ক্রেগ হল জানালেন সচেতনতামূলক সেমিনার, কর্মশালার মাধ্যমে এ ধরনের অপরাধ প্রতিরোধ করতে আমেরিকান কনস্যুলেট কাজ করে চলেছে। এবং তারা আগামী দিনেও একই ভাবে কাজ করে যাবে।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!