এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে একের পর এক ফান্ড মিরিখের জন্য,খুশির হাওয়া পাহাড়ে

মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে একের পর এক ফান্ড মিরিখের জন্য,খুশির হাওয়া পাহাড়ে

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর হাত ধরে এবার দার্জিলিং এর মিরিখও নিতে চলেছে উন্নয়নের স্বাদ। মিরিখ উন্নয়নকল্পে বেশ কতগুলো ফান্ড পরপর রাজ্যসরকারের তরফ থেকে মঞ্জুরর করা হল মিরিক মহাকুমার জন্য। এর জেরে উওরবঙ্গে জুড়ে খুশির মেজাজে পাওয়া গেলো পাহাড়বাসীকে। দার্জিলিং এ হিল তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি তথা মিরিক পুরসভার চেয়ারম্যান এল বি রাই এর সূত্র থেকে জানা যায় যে, এদিন ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকার ফান্ড মঞ্জুর হয়েছে মিরিক লেকের সৌন্দর্যায়ন এবং গাড়ি পার্কিং এর নতুন স্ট্যান্ড তৈরির জন্য। এর ডিপিআর তৈরি ইতিমধ্যে সম্পূর্ণও হয়ে গেছে। এছাড়া রাস্তাঘাট নতুন করে তৈরি করার জন্য বরাদ্দ ধরা হয়েছিলো ২৯ কোটি টাকা।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

মিরিক পুরসভা রাস্তার পাশে লাইট লাগানোর কাজ শুরু করলেও তা বাকি আছে কিছুটা। এই কাজের জন্য ধরা হয়েছিলো ১০ কোটি টাকা। আর বাকি রয়েছে পরিশ্রুত পানীয় জলের প্রকল্প তৈরির কাজ। এই প্রকল্পের বাস্তবায়নের জন্য রাজ্য সরকারের তরফ থেকে মিলেছে ১২৭ কোটি টাকার সাহায্য। পুর এলাকাগুলোতে বাড়ি বাড়ি পাইপের মাধ্যমে পৌছে যাবে পরিশ্রুত পানীয় জল। এই পাইপ লাগানোর জন্য আলাদা করে পাওয়া যাবে ৫৬ কোটি টাকা। জানা গেছে, মিরিক লেকের সৌন্দর্যায়ন এবং পরিশ্রুত পানীয় জল প্রকল্পের কর্মসূচির জন্য অবিলম্বে টেন্ডারও ডাকার সিন্ধান্ত নিয়েছে মিরিক পুরসভা। এদিন তৃণমূল তরফের মিরিখ পুরসভার চেয়ারম্যান মিরিকবাসীকে কৃতজ্ঞতা জানাতে বলেন, “মিরিকবাসীর কাছে আমরা দায়বদ্ধ।” একথা বলে তিনি মিরিকের উন্নয়নের জন্য মিরিকবাসীর কাছ থেকে দু তিন বছরের সময়ও চেয়ে নিলেন। প্রসঙ্গত, মমতা ম্যাজিকের জেরে পাহাড়ে ঘাসফুলের গন্ধ ছড়িয়েছে বেশ কিছুদিন হল। শিলিগুড়ি পুরসভার দায়িত্বেও এসেছেন তৃণমূল তরফের এক নেতা। এবার গুটি গুটি পায়ে মিরিক উন্নয়নের উড়ান ভরবে বলেই আশা করছে পাহাড়ের তৃণমূল সমর্থিত কর্মী এবং সমর্থকরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!