এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > শিশু ছৌ একাডেমির প্রদর্শনী দেখে মুগ্ধ বিশিষ্ট লোক-সংস্কৃতি গবেষকরা

শিশু ছৌ একাডেমির প্রদর্শনী দেখে মুগ্ধ বিশিষ্ট লোক-সংস্কৃতি গবেষকরা

নিজস্ব সংবাদদাতা, পুরুলিয়া: পুরুলিয়াতে সর্বপ্রথম এক বেসরকারি সংস্থার উদ্যোগে শুরু হয়েছে প্রাথমিকের শিশুদের নিয়ে ছৌ প্রশিক্ষণ কেন্দ্র – নাম ‘মানভূম চিলড্রেনস ছৌ-একাডেমি’। এখানে সাড়ে চার বছর থেকে দশ বছর বয়সের শিশুরা আদি ঘরানার ছৌ নাচের তালিম নিচ্ছে। বর্তমানে ২৯ জন শিশু এখানে ছৌ নাচ শিখছে, কিন্তু ছৌ নাচের প্রশিক্ষণেরv সাথে সাথে তাদের পড়াশোনা যাতে কোনোরকমে ক্ষতিগ্রস্থ না হয়, সেদিকেও তীক্ষ্ন লক্ষ্য রাখা হয়েছে একাডেমির তরফে। আর তাই শিক্ষার্থীদের সবাইকে স্থানীয় প্রাইভেট স্কুলে একদম নিঃশুল্কে পড়াশোনা করার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। বিগত ২০১৫ সালে চিলড্রেন সোসাইটির তত্ত্বাবধানে মানভূম চিলড্রেনস ছৌ-একাডেমির পথ চলা শুরু হলেও পরিকাঠামোগত সমস্যায় ঐবছরই ছৌ নাচ শুরু করা যায় নি। ২০১৭ সালের ১৫ ই এপ্রিল থেকে শুরু হয় ক্লাস, তবে ইতিমধ্যেই এই একাডেমির শিশুরা বেশ সুনাম অর্জন করে ফেলেছে।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সম্প্রতি গত ৮ ই জুলাই এই ছৌ একাডেমির শিশু শিল্পীদের ছৌ নাচ প্রদর্শনী দেখতে হাজির হয়েছিলেন সিধু কানু বিরশা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছৌ বিভাগের প্রফেসর তথা বিশিষ্ট লোকসংস্কৃতি গবেষক মলয় চৌধুরী, বিশিষ্ট ভ্রমণ সাহিত্যিক ভাস্কর বাগচি, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ও ডুঁড়কু উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শুভাশীষ গুহ নিয়োগী সহ বহু বিশিষ্ট গুণীজন। শিশু শিল্পীদের ছৌ নাচ দেখে তাঁরা প্রত্যেকেই মুগ্ধ হয়েছেন বলে নিজেদের প্রতিক্রিয়ায় জানান। বাংলার প্রাণের গন্ধমাখা এই শিল্প যাতে বিশ্বের দরবারে নিজের সুনাম ধরে রাখতে পারে এবং সাধারণ মানুষ যাতে আরো বেশি করে এই বিখ্যাত নৃত্যশিল্পের সঙ্গে একাত্ম হয়ে যেতে পারে সেই লক্ষ্যেই এগিয়ে চলছে একাডেমিটি। বিশিষ্টজনদের অকুন্ঠ প্রশংসাই প্রমান করে ছোট ছোট পায়ের জাদুতে আগামীর আগমনী নিহিত রয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!