এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > চিটফান্ডের টাকা ফেরতের তহবিল নিয়েও এবার “প্রতারণার” অভিযোগে আইনি ব্যবস্থা ও নবান্ন অভিযানের প্রস্তুতি

চিটফান্ডের টাকা ফেরতের তহবিল নিয়েও এবার “প্রতারণার” অভিযোগে আইনি ব্যবস্থা ও নবান্ন অভিযানের প্রস্তুতি

রাজ্যের সারদা কাণ্ডের নিঃস্ব মানুষগুলির পাশে দাঁড়াতে রাজ্যে পক্ষ থেকে 500 কোটি টাকার একটি বিশেষ তহবিল গঠন করা হয়েছিল। প্রায় পাঁচ বছর আগে চিটফান্ড কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে আসার পর এই তহবিল গঠনে শ্যামল সেন কমিশন নামে একটি কমিশনও তৈরি করেছিল সরকার। জানা গেছে, সেই কমিশন এখনও পর্যন্ত সেই সাধারণ নিঃস্ব মানুষগুলোর মধ্যে প্রায় 139 কোটি টাকা বিলি করতে সক্ষম হয়েছে।

তবে বিগত পাঁচ বছর ধরে যে কমিশন রয়েছে, বর্তমানে সুদে আসলে তার তহবিলে এখন প্রায় 900 কোটি টাকা থাকার কথা বলে দাবি এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার। আর তাই এবার শ্যামল সেন কমিশনের তহবিলে থাকা সেই অর্থ চিটফান্ডের গ্রাসে পড়া ভুক্তভোগী মানুষদের মধ্যে বিলিয়ে দেওয়ার দাবি জানাল অল বেঙ্গল চিটফান্ড সাফারার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন। বিশেষ সূত্রের খবর, গতকাল সাংবাদিক বৈঠক করে এই ব্যাপারে রাজ্য সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে এই সংগঠন।

এদিন সাংবাদিক বৈঠকে সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক রুপম চৌধুরী বলেন, “এই বিশাল কেলেঙ্কারির ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর মহাকরণে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 500 কোটি টাকার একটি তহবিলের কথা ঘোষণা করেছিলেন। সেই অর্থে তহবিলে 361 কোটি টাকা সরকারের কোষাগারেই থেকে যায়। আমানতকারী ও এজেন্টদের পাশাপাশি রাজ্যের অনেক সাধারন মানুষের সঙ্গেও একপ্রকার প্রতারণা করছে সরকার।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই তহবিল গড়ার জন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকেও সিগারেটের ওপর বাড়তি 10% কর বসানো হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সেই সিগারেটের উপর ধার্য করা বাড়তি কর নেওয়া বন্ধ করেনি সরকার। এদিন সেই প্রসঙ্গেও এই সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন এই সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক। আর তাই এহেন একটা পরিস্থিতিতে এই চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে প্রতারিত মানুষগুলোর অর্থ ফিরিয়ে দিতে এবার রাজ্যের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিল তারা।

সূত্রের খবর, আগামী 13 ডিসেম্বর রাজ্যের সমস্ত কেন্দ্রীয় সরকারি দপ্তরের সামনে বিক্ষোভ দেখাবে এই প্রতারিত আমানতকারী ও এজেন্টরা। পাশাপাশি আগামী 21 ডিসেম্বর বেলা 12 টা থেকে 1 টা পর্যন্ত সারা রাজ্যে রেল ও সড়ক অবরোধ এবং আগামী 21 শে জানুয়ারি নবান্ন ঘেরাও অভিযানেরও হুঁশিয়ারি দিয়েছে তারা। সব মিলিয়ে এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে চিটফান্ডের টাকা ফেরতের তহবিল নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে এবার রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে পথে নামতে চলেছে অল বেঙ্গল চিটফান্ড সাফারার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!