এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মোদীর দ্বিতীয় মন্ত্রীসভায় ঠাঁই পেয়ে দেবশ্রী চৌধুরীর প্রতিক্রিয়া জানলে চমকে যাবেন!

মোদীর দ্বিতীয় মন্ত্রীসভায় ঠাঁই পেয়ে দেবশ্রী চৌধুরীর প্রতিক্রিয়া জানলে চমকে যাবেন!

তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৪২ এ ৪২ করে দেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্নকে চুরমার করে বিজেপি এবার বাংলা থেকে দলীয় রেকর্ড সংখ্যক ১৮ টি আসন জিতে নিয়েছে। ফলে গেরুয়া সমর্থকদের আশা ছিল বাংলা থেকে অন্তত ৪-৫ জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীত্ব পেতে চলেছেন – কিন্তু বিভিন্ন অন্তর্বর্তী রাজনৈতিক কারণে বাংলা থেকে শেষপর্যন্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রীত্ব পেলেন দুজন। একজন গতবারের পরিচিত মুখ বাবুল সুপ্রিয় ও আরেকজন সঙ্ঘের ‘ঘরের মেয়ে’ বলে পরিচিত দেবশ্রী চৌধুরী।

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি দেবশ্রীদেবীকে বর্ধমান-দুর্গাপুর আসন থেকে টিকিট দেয়। দুর্দান্ত লড়াই করে হেরে যাওয়ার পর, এবারে তাঁকে আরও কঠিন আসন রায়গঞ্জে লড়তে পাঠায় বিজেপি। সেখানে তাঁর সমর্থনে প্রচারে এসে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ জানিয়েছিলেন, রায়গঞ্জবাসী যদি দেবশ্রী চৌধুরীকে জয়ী করে দিল্লি পাঠান এবং গেরুয়া শিবির যদি ক্ষমতায় আসে – তাহলে তাঁকে কেন্দ্রে মন্ত্রী করা হবে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

দেবশ্রী চৌধুরীও কানাইয়ালাল আগরওয়াল, মহম্মদ সেলিম বা দীপা দাশমুন্সির মত বাঘা বাঘা প্রতিপক্ষকে কুপোকাত করে পৌঁছে যান দিল্লি। আর অমিত শাহও নিজের দেওয়া কথা মত তাঁকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী করেন। তবে শুধু মন্ত্রী করাই নয়, দেবশ্রী চৌধুরীকে দেওয়া হয়েছে নারী ও শিশুকল্যান মন্ত্রকের মতো গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরের দায়িত্ব। স্বাভাবিকভাবেই এত বড় দায়িত্ব পেয়ে যারপরনাই খুশি রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদিকা দেবশ্রী চৌধুরী। আর মন্ত্রীত্ব পাওয়ার পর, নিজের প্রতিক্রিয়া নিয়ে তিনি ধরা দিলেন সংবাদমাধ্যমের সামনে।

আর সেখানে তাঁর প্রতিক্রিয়ায় চমকে গেল গোটা দেশ। দেবশ্রীদেবীকে প্রশ্ন করা হয়, দেশ-বিদেশের এত মান্যগণ্য ব্যক্তিদের সামনে শপথ নিতে গিয়ে তাঁর ভয় করেছিল কিনা? জবাবে তিনি জানান যে তেমন কিছু মনে হয় নি তাঁর। কেননা তিনি যখন শপথবাক্য পাঠ করতে হেঁটে যাচ্ছিলেন তখন করতালি দিয়ে তাঁকে উজ্জীবিত করেন খোদ নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহ। আর তখন তাঁর মনে হচ্ছিল, যেন তাঁর সামনে তাঁর বাবা বসে আছেন। ফলে, মাটির কাছাকাছি থাকা তাঁর এই দুই ‘পরিচিত’ মানুষ তাঁর সব ভয় দূর করে দিয়েছিলেন। নতুন মন্ত্রীত্ব পেয়েই, নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহ যে বিজেপি নেতা-কর্মীদের কাছে কতবড় ‘ফাদার ফিগার’ আরও একবার স্পষ্ট করে দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!