এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন তৃণমূল মহাসচিব, জেনে নিন বিস্তারিত

কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন তৃণমূল মহাসচিব, জেনে নিন বিস্তারিত

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের অনেক আগে থেকেই রাজ্যে যাতে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয় তার জন্য রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে আরও কড়া করার আর্জি নির্বাচন কমিশনের কাছে জানিয়েছিল রাজ্যের সমস্ত বিরোধী দলগুলো। আর সেই মতো বিরোধীদের অভিযোগকে মান্যতা দিয়ে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের বেশ কিছুদিন আগেই রাজ্যে চলে আসল কেন্দ্রীয় বাহিনী।

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই বীরভূমের ঝাড়খন্ড সীমানায় এই কেন্দ্রীয় বাহিনী রুটমার্চ করেছে। পাশাপাশি রবিবার রিজেন্টপার্ক এলাকা থেকে বাশদ্রোনী, পাটুলি নেতাজীনগরের বেশ কিছু এলাকায় টহলদারিও দিতে দেখা গেছে কেন্দ্রীয়বাহিনীকে। এমনকি বিভিন্ন জেলাতে এরিয়া ডমিনেশনেরও কাজ শুরু করেছে তারা। আর এমতাবস্থায় এবার সেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধেই বিস্ফোরক অভিযোগ করতে দেখা গেল রাজ্যের শাসক দলকে।

জানা গেছে, এদিন নজরুল মঞ্চে দলের এক কর্মীসভায় তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “এই কেন্দ্রীয় বাহিনী এলাকায় এলাকায় ঘুরে আতঙ্ক তৈরির চেষ্টা করছে। এটা করার অধিকার তাদের কে দিয়েছে?” তবে শুধু পার্থবাবুই নয়, কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে একই অভিযোগ তুলে সরব হতে দেখা গেছে শ্রীরামপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কেও।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন তিনি বলেন, “বাড়ি বাড়ি গিয়ে আধাসেনা হুমকি দিচ্ছে। যা হচ্ছে তা পুরোটাই অসাংবিধানিক। সিআইএসএফ ও সিআরপিএফ যা হুমকি দিচ্ছে তার বিরুদ্ধে অবিলম্বে নির্বাচন কমিশনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত।” কিন্তু হঠাৎ কেন এমন কথা বললেন রাজ্যের শাসকদলের হেভিওয়েট নেতারা?

সত্যিই কি তাদের কাছে কেন্দ্রীয় বাহিনী হুমকি দিচ্ছে এইরূপ কোনো প্রমাণ আছে? বিরোধীদের মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে রাজ্যে যাতে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয় তারজন্য কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে শাসক দল সন্ত্রাস করে অনেক পঞ্চায়েত দখল করেছে বলে অভিযোগ করেছে বিরোধীরা। আর তাই বিরোধীদের সেই অভিযোগকে মান্যতা দিয়ে যখন নির্বাচন কমিশন আসন্ন লোকসভা নির্বাচনকে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে চাইছে ঠিক তখনই কিছুটা ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলছে শাসক দল বলে মনে করছে সমালোচক মহলের একাংশ। অনেকে বলছেন, কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে শাসকদলের হেভিওয়েট নেতাদের এহেন মন্তব্য আসলে, “ঠাকুর ঘরে কেরে আমি তো কলা খাইনি!”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!