এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ভোটের আগের সন্ধ্যাতেই “ম্যানেজ” করে “ভোটচুরির” নিদান অনুব্রত মণ্ডলের

কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ভোটের আগের সন্ধ্যাতেই “ম্যানেজ” করে “ভোটচুরির” নিদান অনুব্রত মণ্ডলের

কখনও চড়াম চড়াম ঢাক তো কখনও বা গুড় বাতাসা খাওয়ানো – বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মন্তব্য করে রাজ্য রাজনীতিতে তোলপাড় তুলে দিয়েছিলেন বীরভূম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। আর এবার সেই সমস্ত মন্তব্যকে ছাপিয়ে গিয়ে পরোক্ষে নাম না করে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে মিষ্টি খাওয়ানোর কথা বলে ভোট চুরি করার নির্দেশ দিলেন মমতা বন্দোপাধ্যায়ের প্রিয় “কেষ্ট” তথা বীরভূম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

সূত্রের খবর, বুধবার সিউড়ি 2 ব্লকের পুরন্দরপুর ব্লকের বুথ ভিত্তিক সম্মেলনে উপস্থিত হন অনুব্রতবাবু। যেখানে অনুব্রত মন্ডল ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাধিপতি বিকাশ রায় চৌধুরী, সহ-সভাপতি অভিজিৎ সিংহ, মলয় মুখোপাধ্যায়, ব্লক সভাপতি নুরুল ইসলাম সহ অন্যান্যরা।

আর এই সভাতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রসঙ্গ তুলে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “ভোট মানে তো উৎসব। বাড়িতে প্রথমে গেলে জল মিষ্টি দেবে। কোন বুথে বাতাসা, কোথায় দানাদার পাঠানো হবে তা ব্লক সভাপতিই ঠিক করবেন।” এদিকে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে অনুব্রত মণ্ডলের মন্তব্য, “মোদীবাবু, তুমি আমেরিকা থেকে যতই মিলিটারি নিয়ে আসো, ভয়ের কিছু নেই। বাড়িতে অতিথি এলে যেমন জল মিষ্টি দেওয়া হয়, ঠিক তেমনই ভোটের আগের দিন সন্ধ্যায় ওদের যা যা দরকার আপনারা সেই সমস্ত কিছু দেবেন। মিষ্টি পাঠানোর দায়িত্ব ব্লক সভাপতির রইল।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশের প্রশ্ন, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ভোটের আগের দিন সন্ধ্যায় জল, বাতাসা খাওয়ানোর কথা বলে আদতে কী বার্তা দিতে চাইলেন অনুব্রত মণ্ডল!

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এদিকে এদিনের কর্মীসভায় আসন্ন লোকসভায় লিড দিতে না পারলে কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হবে বলেও একাংশের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি দিয়ে রাখেন অনুব্রত মণ্ডল। আর এরই মাঝে হঠাৎ বিস্ফোরক মন্তব্য করে এক অঞ্চল সভাপতির উদ্দেশ্যে বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি বলেন, “ভোট চুরি করবেন?”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

আর তখনই পাল্টা সেই অঞ্চল সভাপতি জেলা সভাপতিকে সন্তুষ্ট করে বলেন, “চেষ্টা করব।” আর প্রায় প্রতিটি নির্বাচনের আগেই বীরভূম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের এহেন মন্তব্যকে ঘিরেই এবার লোকসভা নির্বাচনের আগে সরগরম হতে চলেছে রাজ্য রাজনীতি।

বিরোধীদের দাবি, বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের মন্তব্য থেকেই পরিষ্কার যে এবারের লোকসভা নির্বাচনে শাসকদল কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ম্যানেজ করে সন্ত্রাস করবার চেষ্টা করবে। কিন্তু শাসকের সেই চেষ্টা এবার সম্পূর্ণরূপে ব্যর্থ হবে বলে দাবি বিরোধীদের।

সব মিলিয়ে এবার লোকসভা নির্বাচনের আগে বুথভিত্তিক কর্মী সম্মেলনে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ভোটের আগের সন্ধ্যাতেই ম্যানেজ করে ভোট চুরির নিদান দেওয়ার কথা বলে প্রবল বিপাকে পড়লেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয় অনুব্রত মণ্ডল ওরফে কেষ্ট।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!