এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > রাজীব কুমারকে সিবিআই জেরার দ্বিতীয় দিনেও ম্যারাথন ইনিংস, কুণাল ঘোষকে মুখোমুখি বসিয়ে শুরু জেরা

রাজীব কুমারকে সিবিআই জেরার দ্বিতীয় দিনেও ম্যারাথন ইনিংস, কুণাল ঘোষকে মুখোমুখি বসিয়ে শুরু জেরা

রাজ্যের চিটফান্ড কেলেঙ্কারির তদন্ত নিয়ে এবার কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছে কেন্দ্রের তদন্তকারী সংস্থা। ইতিমধ্যেই শিলংয়ে কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে নিয়ে জেরা পর্ব শুরু করে দিয়েছে সিবিআই। সূত্রের খবর, দ্বিতীয় দিন অর্থাৎ রবিবার দীর্ঘক্ষন ধরে দু’দফায় জেরা করে সেই রাজীব কুমারের সমস্ত বয়ান রেকর্ড করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

তবে রাজীব কুমারকে একা জেরা করলেও পরবর্তীতে সেই রাজীব কুমার এবং তৃণমূলের রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ কুণাল ঘোষকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা পর্ব চলে। জানা গেছে, সিবিআইয়ের তরফে এই দুজনের কাছেই সারদার সুদীপ্ত সেন এবং দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের বয়ান তুলে ধরা হয়।

পাশাপাশি সিবিআইয়ের কাছে তৃণমূলের প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ কুণাল ঘোষ যে 91 পাতার চিঠি দিয়েছিলেন এবং যে চিঠিকে ঘিরে তদন্তকে প্রভাবিত করার অভিযোগ উঠেছিল সেই প্রসঙ্গটিও এদিনের জেরা পর্বে উঠে আসে। তবে তদন্তকে প্রভাবিত করার কোনো প্রশ্নই আসে না বলে জেরায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার কর্তাদের স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার।

হোয়াটস্যাপের কিছু টেকনিক্যাল অসুবিধার জন্য আমরা ধীরে ধীরে হোয়াটস্যাপ সাপোর্ট বন্ধ করে দিয়ে, পরবর্তীকালে শুধুমাত্র Telegram অ্যাপেই নিউজের লিঙ্ক শেয়ার করব

তাই আপনাদের কাছে একান্ত অনুরোধ – প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর নিয়মিত ভাবে পেতে হলে Telegram অ্যাপটি ইনস্টল করুনআমাদের Telegram গ্রূপে যোগ দিন। যাঁরা Telegram-এ নতুন, ভয় পাবেন না – এটি হোয়াটস্যাপের মতোই সমস্ত ফিচার যুক্ত এবং আরো আরো সহজে ব্যবহার করা যায়।

যোগ দিন আমাদের Telegram Group – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
আর এখনও যাঁরা আমাদের WhatsApp Group-এ যোগ দিতে চান, তাঁরা ক্লিক করুন এই লিঙ্কে (কিন্তু, মনে রাখবেন এই হোয়াটস্যাপ সাপোর্ট আমরা হয়ত খুব বেশিদিন আর চালু রাখব না)

একাংশের দাবি, সিবিআই কর্তাদের জেরার মুখে পরে নিজেকে স্পষ্টবাদী হিসেবে তুলে ধরতে চাইলেও রাজীব কুমারের বক্তব্য সন্তুষ্ট নয় কেন্দ্রের তদন্তকারী সংস্থার কর্তারা। সিবিআইয়ের বক্তব্য, একজন দক্ষ অফিসারের কাছ থেকে যেভাবে বেশ কিছু প্রশ্নের সদুত্তর আশা করা যায় তা রাজীব কুমারের ক্ষেত্রে পাওয়া যায়নি। তাই কোথাও একটা খামতি রয়েই গিয়েছে। আর যা ভরাট করা অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু ঠিক কি কি ব্যাপারে কথাবার্তা হয়েছে সিবিআই আধিকারিক এবং কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের মধ্যে?

সূত্রের খবর, এদিনের জেরা পর্বে রাজীব কুমারকে উদ্দেশ্য করে সিবিআই আধিকারিকরা প্রশ্ন করেন। সারদা নিয়ে প্রচুর এফআইআর হলেও কেন রাজীব কুমারের মত একজন দক্ষ ও অভিজ্ঞ অফিসার সেখানে থাকা সত্ত্বেও সঠিক তদন্ত হল না? এরপরই এই প্রত্যুত্তরে কোলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বক্তব্য, সারদা কেলেঙ্কারির সময় আমি আইজি পদমর্যাদার অফিসার ছিলাম।

তাই এই পর্যায়ের একজন অফিসারের পক্ষে খুঁটিয়ে দেখা আদৌ সম্ভব নয়। তবে তদন্তের সময় যে দু তিনটে ত্রুটি তার নজরে এসেছে সঙ্গে সঙ্গে তা সংশোধন করার জন্য তদন্তকারী অফিসারদের পরামর্শ দিয়েছেন বলেও এদিন সিবিআই আধিকারিকদের জানিয়ে দেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। সব মিলিয়ে এবার কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে জেরা করার পাশাপাশি মুখোমুখি সেই রাজীব-কুণালকে বসিয়ে জেরাপর্ব শুরু করে দিল সিবিআই।

Top
Close
error: Content is protected !!