এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মুখ্যমন্ত্রীর আশঙ্কা সত্যি করে আবার সিবিআই-ইডির তৎপরতা শুরু হল রাজ্যে?

মুখ্যমন্ত্রীর আশঙ্কা সত্যি করে আবার সিবিআই-ইডির তৎপরতা শুরু হল রাজ্যে?

গত ২১ শে জুলাই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বার্ষিক দলীয় সমাবেশ শহীদ দিবসের মঞ্চ থেকে আশঙ্কা করেন যেহেতু তিনি কেন্দ্রের বিরোধিতায় সোচ্চার হয়েছেন তাই তাঁর দলের নেতা-কর্মীদের পিছনে সিবিআই বা ইডি তদন্ত শুরু করে চাপ বাড়ানোর অপচেষ্টা হবে। কিন্তু তার সাথে সাথেই তিনি জানিয়ে দেন, এইভাবে চাপ সৃষ্টি করেও তাঁকে বা তাঁর দলকে ভাঙা যাবে না।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

মুখ্যমন্ত্রীর মুখে এহেন বক্তব্য শুনে তীব্র জল্পনা শুরু হয়ে যায় রাজনৈতিক মহলে। আর এবার তাঁর আশঙ্কা সত্যি করে সত্যিসত্যিই রাজ্যে সিবিআই ও ইডির তৎপরতা বাড়তে শুরু হল। যদিও এই ঘটনায় সরাসরি রাজ্যের শাসকদলের কাউকে অস্বস্তিতে পড়তে হয় নি। সূত্রের খবর, গতকাল কলকাতার ভিআইপি রোড, সন্তোষপুর, পার্শ্ববর্তী জেলা হাওড়া সহ মোট ৬ জায়গায় চিটফান্ড সংস্থা রোজভ্যালির গয়নার দোকানে ফের তল্লাশি অভিযান চালায় ইডি।

ইডি সূত্রে জানা গেছে গতবছরের শেষের দিকে রোজভ্যালির গয়নার দোকানে তল্লাশি চালিয়ে বেশ কিছু নথি উদ্ধার করে তদন্তকারী সংস্থাটি, কিন্তু সেই সময় বেশ কিছু স্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয় নি তাতে সরাসরি চিটফান্ড সংস্থাটির টাকা লগ্নি করা নেই এই ভেবে। পরে সেইসব নথি ভালো করে পরীক্ষা করে দেখা গেছে, চিটফান্ড সংস্থাটি বেআইনিভাবে বাজার থেকে তোলা অর্থ সরাতেই হীরে ও সোনার ব্যবসায় নেমেছিল, আর তাই আবারো তল্লাশি চালিয়ে নতুন করে হিরে ও সোনার গয়না বাজেয়াপ্ত করা হল বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে, জল্পনা বাড়িয়ে অপর তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই সারদা মামলায় রাজ‍্যের প্রথম তদন্তকারী অফিসার দেবব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়কে আবারো নোটিশ পাঠালো। প্রসঙ্গত, সারদা ও রোজভ্যালি – দুই চিটফান্ড কান্দেই নাম জড়িয়েছে শাসকদলের একাধিক হেভিওয়েট নেতার। আর তাই দুই মামলাতেই নতুন করে গতি লাগতেই তীব্র জল্পনা শুরু হয়েছে রাজ্যের রাজনৈতিক মহলে।

Top
error: Content is protected !!