এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ (Page 2)

দিনকে দিন কোণঠাসা হচ্ছেন হেভিওয়েট তৃণমূল মন্ত্রী, জোর শোরগোল রাজ্যে

তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অত্যন্ত দুর্দিনের সঙ্গী। একসময় কোচবিহার জেলায় দলের সংগঠনকে সাজিয়েছিলেন তিনিই। কিন্তু গত লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই তার সময়টা খারাপ হতে শুরু করেছে। দলের প্রার্থীকে জেতানোর দায়িত্ব ছিল তার কাঁধেই। কিন্তু তা সত্ত্বেও একদিকে কোচবিহার জেলায় তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, আর অন্যদিকে সাধারণ মানুষের থেকে জনবিচ্ছিন্ন হওয়ার জন্যই তৃণমূলকে এই

নাগরিকত্ব সংশোধনীর প্রচারে নেই বিজেপি সাংসদ, জোর জল্পনা!

  নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে বিরোধীতায় প্রথম থেকেই বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো তাদের প্রচার শুরু করেছিল। তবে সেভাবে বিজেপি দল এই আইনের স্বপক্ষে প্রচার করতে পারেনি। কিন্তু তৃণমূলের পক্ষ থেকে এই আইন বাতিল করার দাবিতে যেভাবে প্রচার করা হয়েছিল, তাতে কিছুটা হলেও কোণঠাসা হয়ে গিয়েছিল ভারতীয় জনতা পার্টি। তবে রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের

উত্তরবঙ্গ সফরের আগে দিলীপ ঘোষের কপালে বড়সড় চিন্তার ভাঁজ,দল ছাড়লেন একাধিক

  লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গে বিজেপি ব্যাপক জনসমর্থন পেয়েছিল। আর এই সমর্থন পাওয়ার পরেই তারা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল যে, এবার হয়ত উত্তরবঙ্গ তাদের দখলে চলে এসেছে। কিন্তু যত দিন গিয়েছে, ততই পরিস্থিতি ঘোরালো হয়ে উঠতে শুরু করেছে। কিছুদিন আগেই উত্তরবঙ্গের কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে পরাজিত হতে হয়েছে বিজেপি প্রার্থীকে। আর তারপরেই উত্তরবঙ্গে

গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে বিরক্ত, নির্বাচনে না লড়ার সিদ্ধান্ত মমতার সৈনিকের

  দীর্ঘদিন ধরেই তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুগত সৈনিক। মালদহ জেলায় দুর্দিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিনিধি হিসেবে এই তৃণমূলের পতাকা বহন করতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। আর সেই ব্যক্তি দুলাল সরকার এবার তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে বিরক্ত হয়ে নির্বাচনে না লড়ার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন। যাকে ঘিরে এখন গৌড়বঙ্গ তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। বস্তুত, প্রায় বিভিন্ন সময়েই

নাগরিকত্ব আইনের পক্ষে প্রচারে দেবশ্রী, ব্যাপক বাধার সম্মুখীন, শোরগোল

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন যেদিন থেকে দেশজুড়ে লাগু হয়েছে, সেদিন থেকেই এই আইনের বিরোধিতায় সরব হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে তৃণমূল তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই আইন বিরোধিতা নিয়ে তাকে প্রথম থেকেই কটাক্ষ করেছিল ভারতীয় জনতা পার্টি। কিন্তু এবার নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে প্রচার করতে গিয়ে তীব্র বাধার মুখে পড়তে হল রায়গঞ্জের বিজেপি

এবার উত্তরবঙ্গকে নিজেদের দলখলে রাখতে মাঠে নামলেন দিলীপ ঘোষ জোর জল্পনা

  2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি বাংলা থেকে ব্যাপক সাফল্য পেয়েছিল। তবে সারা বাংলা থেকে তারা 18 টা আসন পেলেও, শুধুমাত্র উত্তরবঙ্গ থেকেই তাদের দখলে এসেছিল 7 টি আসন। আর আটটি আসনের মধ্যে সাতটি আসন পেয়ে উত্তরবঙ্গকে নিজেদের খাসতালুক হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার জন্য উদগ্রীব হয়েছিল গেরুয়া শিবিরের নেতৃত্ব। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনে

বিধানসভার প্রস্তুতি শুরু করে দিল বিজেপি, তৈরি হচ্ছে টিম, জেনে নিন বিস্তারিত

  2019 এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি স্লোগান তুলেছিল, 19 এ হাফ, আর 21 এ সাফ। আর সেই মত 2019 এর লোকসভা নির্বাচনে তারা বাংলা থেকে তৃণমূলের অস্বস্তি বাড়িয়ে প্রায় 18 টি আসন নিজেদের দখলে নিয়েছিল। তবে লোকসভা নির্বাচনের পর যত দিন গিয়েছে, ততই বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব এবং কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে

তৃনমূল পরিচালিত জেলা পরিষদকে দিচ্ছে না টাকা, অভিযোগ রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে,জোর চাঞ্চল্য!

  এবারে রাজ্য সরকারের আর্থিক বরাদ্দের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলতে দেখা গেল রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদকে। এক্ষেত্রে জেলা পরিষদের সদস্যদের তরফ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, রাজ্যের অন্যান্য জেলার তুলনায় জলপাইগুড়ি জেলার ক্ষেত্রে আর্থিক বরাদ্দ কম পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই বিষয়ে জলপাইগুড়ি জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি কাছে ঊর্ধ্বতন নেতৃত্বের

ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ প্রকাশ্যে, রাজনৈতিক মহলে জোর সমালোচনা শাসক শিবিরের

আবারো একবার প্রকাশ্যে এসে পড়ল তৃণমূল দলের অন্দরের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। হাজারবার প্রকাশ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের প্রত্যেক সদস্যকে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়ে সাবধান করার পরেও বারংবার একই ঘটনা ঘটে চলেছে। এবারের ঘটনা ঘটল তৃণমূলের রাজ্য মহিলা সভানেত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের সামনে। ঘটনার সূত্রপাত জলপাইগুড়ির তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীসভায়। ঘটনাটি সামনে আসার সাথে সাথেই তুমুল সমালোচনা

ট্যাগড

স্বামীজীর জন্মদিন উদযাপনে নেই স্বামীজীর ছবি, পোস্টারে জ্বলজ্বল করছে অভিষেক

গতকাল ছিল স্বামী বিবেকানন্দের জন্মজয়ন্তী। আর এই উপলক্ষে বিভিন্ন জায়গায় বেরিয়েছিল তৃণমূলের শোভাযাত্রা। এই শোভাযাত্রায় স্বামী বিবেকানন্দকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন ট্যাবলোসমেত শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত স্বামী বিবেকানন্দের ছবি, পোস্টার ইত্যাদি থাকে। কিন্তু এদিন অন্য ছবি দেখা গেল শিলিগুড়ি শহরে। স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন উপলক্ষে বেরোনো ট্যাবলোতে স্বামী

Top
error: Content is protected !!