এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা (Page 2)

এবার তৃণমূলের যুবনেতারাও পাবেন রাজ্যের Y+ ক্যাটাগরির নিরাপত্তা! বড় সিদ্ধান্ত নবান্নের!

নয় নয় করে এ রাজ্যে ভিআইপি সংখ্যা নেহাত কম নয়। নতুন করে এবার ভিআইপি লিস্টে নাম উঠল ডায়মণ্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত চারটে ব্লকের তৃণমূল যুব সভাপতিদের। নিরাপত্তার ব্যাপারে প্রশ্ন উঠতে এবার নবান্ন থেকে সিদ্ধান্ত হলো ডায়মণ্ড হারবার এলাকার যুব তৃণমূল নেতারা ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পাবেন বলে নবান্ন সূত্রে

ট্যাগড

১৩ তারিখ পর্যন্ত ব্যস্ত থাকবেন অর্জুন সিং! তারপরেই…মমতা প্রশাসনকে কড়া চ্যালেঞ্জ!

রাজ্যের যুযুধান দুই রাজনৈতিক শিবির হলো তৃণমূল এবং বিজেপি। লোকসভা নির্বাচনের পর এই দুই রাজনৈতিক দল ক্রমাগত যুদ্ধে জড়াতে থাকেন। এবং তার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ে দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে রাজনৈতিক সংঘর্ষ। লোকসভা ভোটের আগেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন অর্জুন সিং। যথারীতি ভাটপাড়াও অর্জুন সিং এর সাথেই সবুজ রং

ঘুরে দাঁড়াতে হবে মুকুল- অর্জুনের গড়ে! উদ্ধার করতে হবে মতুয়া ভোট! বড়সড় পদক্ষেপ শাসকদলের

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিরোধী নেত্রী থাকার সময় মতুয়া ভোটব্যাঙ্ক নিজেদের দিকে আনার চেষ্টা করেছিলেন। তাতে অনেকটা সাফল্যও পেয়েছিলেন তিনি। প্রথমদিকে মতুয়া পরিবার শুধুমাত্র তৃণমূল কংগ্রেসের রং থাকলেও, যত দিন যায় ততই সেখানে দাপট বারে গেরুয়া শিবিরের। প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ মমতা বালা ঠাকুরের ভাইপো শান্তনু ঠাকুরের নেতৃত্বে সেখানে উত্থান হয় ভারতীয় জনতা

একের পর এক সভায় বেফাঁস মন্তব্য! তৃণমূল বিধায়ককে কড়া হুঁশিয়ারি দাপুটে নেতার! সরগরম নদীয়া

রাজ্যে আবার তৃণমূলের অন্দর মহলে বিতর্কের সূত্রপাত। দলীয় নেতাদের বিরুদ্ধে বেফাঁস মন্তব্য করে এবার হেভিওয়েট তৃণমূল নেতার রোষ নজরে পড়লেন তৃণমূল বিধায়ক। রাজ্যে এমনিতেই শাসক দলের সাথে রাজ্যপালের আদায়-কাঁচকলায় সম্পর্ক। বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেখা গেছে রাজ্যপালের সাথে তৃণমূল দলের নানান বিরোধ। যা সরগরম করেছে রাজনৈতিক মহলকে। এবার আবারো একবার রাজ্যপালকে জড়িয়ে

ট্যাগড

NRC প্রচারের অভিমুখ নিয়ে দলেই নেই স্পষ্ট দিশা! তীব্র দ্বন্দ্বে জড়াচ্ছে বঙ্গ বিজেপি

রাজ্যের তিনটি বিধানসভা কেন্দ্রের উপ নির্বাচনে বিজেপির ভরাডুবির পর রাজ্যে্য সবথেকে চর্চিত বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে এনআরসি। শাসক-বিরোধী সবাই এক বাক্যে স্বীকার করে নিয়েছেন, ভোটে ভালো রকম প্রভাব ফেলেছে এনআরসি। অসমের মতো বাংলাতেও এনআরসি চালুর আতংকে আতঙ্ক ছড়িয়ে ছিল সম্প্রতি। কেন্দ্রীয় নেতারা মনে করেছিলেন, অনুপ্রবেশ সমস্যায় জর্জরিত বাংলায় বিজেপির শক্তি বৃদ্ধিতে

তৃণমূলের নতুন ভরসার মুখ মহুয়া মৈত্র! উপনির্বাচনে বাজিমাত করেই পরের লক্ষ্যে ঝাঁপালো তাঁর টিম

নিজস্ব স্টাইলে ভোট করা তার অভ্যাসের মধ্যেই পড়ে। লোকসভা নির্বাচনের পর গোটা তৃণমূল দল প্রশান্ত কিশোরের কর্পোরেট স্টাইলে রাজনীতি করার চেষ্টা করলেও, বহুদিন আগে থেকেই মহুয়া মৈত্র সেই স্টাইল অবলম্বন করে এসেছেন। 2016 সালে করিমপুর বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের জয় নিশ্চিত করেছিলেন মহুয়া মৈত্র। সেই সময় কর্পোরেট স্টাইলে নিজের নির্বাচনে ঝাঁপিয়ে

একুশে বিজেপি ৫ টি আসনও পাবে না! জল্পনা বাড়িয়ে দিলেন রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী

বাংলার জনতা উপনির্বাচনে বেছে নিয়েছে তৃণমূল দলকে। লোকসভা ভোটে বিজেপির অত্যাশ্চর্য উত্থানের ঠিক ছমাসের মধ্যে তাঁদের আত্মবিশ্বাসে প্রবল ধাক্কা দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল জিতে নিল তিনটি আসনই। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, এনআরসি নিয়ে রাজ্যবাসীর বড় অংশের আশঙ্কা ঠিক ভাবে পড়তে পেরেছেন মমতা এবং সেইমতো আশ্বাস দিয়ে গিয়েছেন ক্রমাগত। জয়ের নেপথ্যে

অশোকনগরে গ্যাস ও তেলের সন্ধানে কেন্দ্রীয় প্রকল্প আসন্ন? হবে বড়সড় কর্মসংস্থান? বাড়ছে জল্পনা‌

বহু আগেই উত্তর 24 পরগনার অশোকনগরে গ্যাস এবং তেলের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। তবে তা নিয়ে অনেকের মনেই ধন্দ সৃষ্টি হয়েছিল। বাণিজ্যিকভাবে আদৌ এই গ্যাস এবং তেল উত্তোলন সম্ভব হবে কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন একাংশ। তবে এবার হয়ত বা এক্ষেত্রে বড়সড় সুখবর আসতে চলেছে। সূত্রের খবর, অশোকনগরে বাণিজ্যিকভাবে গ্যাস এবং

তৃণমূল বিধায়ক খুনের মামলায় চাপ কি বাড়ছে? মুকুল রায়ের নতুন পদক্ষেপে বাড়ল জল্পনা

গত 9 ফেব্রুয়ারি ভর সন্ধ্যেবেলা দুষ্কৃতীদের গুলিতে নিহত হন নদীয়ার হাঁসখালির তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস। সেই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। এর পরেই তৃণমূলের পক্ষ থেকে এই খুনের ঘটনায় মুকুল রায়ের দিকে বারংবার অভিযোগের আঙ্গুল তোলা হয়। মুকুল রায়ের নামে এফআইআর দায়ের করা হয়। এফআইআর-এ নাম থাকায় আগাম জামিনের

বিজেপির হিন্দুভোটেও কি ভাঁটা পড়ছে বাংলায়? উপনির্বাচন তুলে দিল বড়সড় প্রশ্ন!

রাজ্যের তিনটি বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে বিজেপির ভরাডুবি হয়েছে। আর এই ভরাডুবির পেছনে কারণ হিসেবে উঠে এসেছে এনআরসি ভীতি। শাসক থেকে বিরোধী প্রত্যেকেই এক বাক্যে স্বীকার করে নিয়েছে এনআরসির জোরদার প্রচার করার ফলেই বিজেপির এই ভরাডুবি। এবারের বিধানসভা উপনির্বাচনে করিমপুরকে রাজ্য বিজেপি বিশেষ নজরে রেখেছিল। সেখানে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে নেমেছিলেন বিজেপির

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!