এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা (Page 2)

জনসংযোগ প্রচারে গিয়ে প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়লেন তৃণমূলের অভিনেতা-বিধায়ক

সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় তৃণমূলের খারাপ ফলাফল হওয়ার পেছনে জনসংযোগেই যে ব্যাপক ত্রুটি রয়েছে, তা আঁচ করতে পেরেছিলেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তারপরই দলের নেতা, মন্ত্রী, বিধায়কদের সাধারণ মানুষেরা কাছে আরও বেশি বেশি করে পৌঁছনোর নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি। সম্প্রতি "দিদিকে বলো" কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে দলের সমস্ত জনপ্রতিনিধিদের

বিধানসভার ওপিনিয়ন – এই মুহূর্তে ভোট হলে কি হতে পারে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার চিত্র – ১ম পর্ব?

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া এক্সক্লুসিভ - সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনের পর - আরও জমজমাট বঙ্গভূমির রাজনৈতিক লড়াই। একদিকে, লোকসভায় ১৮ টি আসন ছিনিয়ে নিয়ে গেরুয়া শিবির তাল ঠুকছে, এবার তাদের লক্ষ্য নবান্নের অধিকার ছিনিয়ে নেওয়া। অন্যদিকে, স্বয়ং দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ধরেছেন দলের সাংগঠনিক হাল, সঙ্গে যুক্ত হয়েছে প্রশান্ত কিশোরের মস্তিস্ক। এই পরিস্থিতিতে নিঃসন্দেহে

সদস্য সংগ্রহ অভিযানে গিয়ে বেধড়ক মার খেলেন বিজেপি নেতা, জোর শোরগোল

গত 6 জুলাই থেকে সারা দেশের পাশাপাশি বাংলাতেও বিজেপির সদস্য সংগ্রহ অভিযান প্রক্রিয়া চলছে। বিভিন্ন জায়গায় এই সদস্য সংগ্রহ অভিযানে অংশ নিয়ে বাংলায় যাতে দলের সদস্য আরও বাড়ানো যায়, তার প্রবল চেষ্টা চালাচ্ছেন বিজেপির নেতা কর্মীরা। আর এই পরিস্থিতিতে এবার সেই সদস্য সংগ্রহ অভিযান করতে গিয়েই দুষ্কৃতীদের হাতে মার খেতে

তৃণমূলের জনসংযোগ কর্মসূচি নিয়ে প্রবল গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, অস্বস্তিতে শাসকদল

এ যেন ঠগ বাজাতে গাঁ উজাড় হয়ে যাওয়ার সামিল। লোকসভা নির্বাচনে দলের ভরাডুবির পেছনে জনসংযোগের যে যথেষ্ট অভাব রয়েছে, তা অনুধাবন করে দলের নেতাকর্মী, জনপ্রতিনিধিদের জনসংযোগে যাওয়ার জন্য সম্প্রতি "দিদিকে বলো" একটি কর্মসূচি চালু করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে মোবাইল নম্বর চালু করে সমস্ত সাধারণ মানুষ তাদের অভাব-অভিযোগ সেখানে জানাতে পারবেন বলে

দিদির ফোনে ফোন করে বোমা, গুলির কথা জানাতে, আক্রান্তদের পরামর্শ হেভিওয়েট বিজেপি নেতার

লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপি ভালো ফলাফল করার পরেই দিকে দিকে রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে শুরু করে। যা নিয়ে শাসক-বিরোধী তরজা চরম আকার ধারণ করতে দেখা যায়। বস্তুত, গত 21 জুলাই অশোকনগরের শ্রীকৃষ্ণপুর পঞ্চায়েতের গিলাপোল এলাকায় বিজেপির কর্মী সমর্থকদের বাড়ি লক্ষ্য করে ব্যাপক বোমাবাজি এবং তাদের প্রবল মারধর করা হয় বলে

কাটমানি নিয়ে উত্তাল তৃণমূলের পাশাপাশি বিজেপিও, মুকুল -শুভ্রাংশুর নামে পোস্টার, জোর শোরগোল রাজ্যে

লোকসভা ভোটের পর তৃণমূল নেত্রী প্রকাশ্য সভায় নেতা কর্মীদরে উদ্দেশ্যে জানিয়েছিলেন যে কাটমানি নিয়ে থাকলে ফেরত দিয়ে দাও। আর তার পরেই একের পর এক তৃণমূলের নেতা নেত্রীর বাড়িতে চড়াও হয়ে সাধারণ মানুষ কাটমানি ফেরত নিচ্ছে আবার ফেরতের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে। আর তাদের মন পেতে সঙ্গ দিচ্ছে বিজেপির নেতা কর্মীরা। তারাও ক্ষোভে

ফের শক্তি বাড়ালো বিজেপি, কাউন্সিলর তথা সভাপতির যোগ গেরুয়া শিবিরে

লোকসভা ভোটের পর থেকেই রাজ্যে শক্তি বাড়াচ্ছে বিজেপি। ঘাসফুল শিবিরের একের পর এক নেতা, কর্মী, বিধায়ক ,কাউন্সিলররা যোগ দিচ্ছেন গেরুয়া শিবিরে। আর এদিন ফের মহেশতলা পৌরসভার 18 নম্বর ওয়ার্ডের কংগ্রেসের টিকিটে পাঁচবার জয়ী কাউন্সিলর তথা মহেশতলা ব্লকের কংগ্রেস সভাপতি রমণী নস্কর কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন। জানা যাচ্ছে যে, গতকাল রাজ্য

বড়সড় ধাক্কা, বিজেপিতে যোগ করিমপুরের প্রাক্তন বিধায়কের

অনেক ধরেই জল্পনা চলছিল এই এবার সেই জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন নদিয়ার করিমপুরের প্রাক্তন বাম বিধায়ক সমরেন্দ্র ঘোষ। লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই বাংলায় বিজেপি তাদের শক্তি বৃদ্ধি করতে শুরু করে। শুধু রাজনৈতিক ক্ষেত্রতেই নয়, টলি পাড়াতেও ধীরে ধীরে আধিপত্য বিস্তার করতে শুরু করে গেরুয়া শিবির। যা নিয়ে বর্তমানে প্রবল

মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া বিশেষ উপহার ফেরত দিচ্ছেন এককালের মেয়ে ভারতী ঘোষ, জেনে নিন

পশ্চিম মেদিনীপুর, কার্তিক গুহা :- রাজ্য সরকারের দেওয়া পুলিশ সেবা মেডেল, মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া বিশেষ পদক সব ফেরত দিয়েছেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার প্রাক্তন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ।ঝাড়গ্রাম , পশ্চিম মেদিনীপুর মিলিয়ে তিনি টানা ৪ বছর জঙ্গলমহলে কাজ করেছেন। তাঁর সময়েই মাওবাদী নেতা কিষেনজী পুলিশের গুলিতে মরতে হয়েছে। বুধবার তাঁর দাসপুরের বাড়িতে একান্ত

দিদিকে খুশি করতেই কি ফেসবুক লাইভে বিজেপি সম্পর্কে অশালীন মন্তব্য মদন মিত্রর, জোর জল্পনা

বাংলার রাজনীতিবিদদের মধ্যে ফেসবুক লাইভে বরাবরই হিরো নাম্বার ওয়ানে রয়েছেন তিনি। লাইভে আসার সাথে সাথেই তার ওয়ালে একের পর এক লাইক, কমেন্টের বন্যা বয়ে যেতে শুরু করে। বিভিন্ন বিষয়ে বিভিন্ন সময় লাইভ করতে দেখা যায় রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা মদন মিত্রকে। কিছুদিন আগেই ভাটপাড়া বিধানসভা উপনির্বাচনে দাঁড়িয়েও জয়লাভ করতে

Top
error: Content is protected !!