এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর

প্ররোচনামূলক মন্তব্য : দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে মামলা পুলিশের

পশ্চিম মেদিনীপুরে কেশিয়াড়ির সভা থেকে পুলিশকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা করলো পুলিশ। উল্লেখ্য, এর আগেও দিলীপবাবুর বিভিন্ন মন্তব্য রাজ্য রাজনীতিতে বিতর্কের সৃষ্টি করেছে। ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে এবার থেকে প্রিয়

বেআইনি বালিপাচার রুখতে অতিশয় তৎপর প্রশাসন – ভেঙেই দেওয়া হল ১১ টি মেশিন, নেতৃত্ত্বে খোদ ডিএম

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পাওয়ার পর বেআইনিভাবে বালি তোলা বন্ধ করতে আরও তৎপর হল প্রশাসন। এবার মেদিনীপুর সদর ব্লকের বেআইনিভাবে মেশিন বসিয়ে বালি তোলা বন্ধ করতে অভিযানে নামলেন স্বয়ং জেলাশাসক। কিছুদিন আগে খালি পায়ে নদী পার ঘুরে ঘুরে জেলাশাসক নিজে এই বেআইনী কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেন।জেলাশাসকের নেতৃত্বে সেদিন বিকেল পর্যন্ত মোট ১১

অনিয়মিত বেতন নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী, আশার আলো দেখছেন এই কর্মীরা

এতদিন বেতন বৈষম্য কিংবা বেতন সময়ে মিলছে না বা বেতন বৃদ্ধিজনিত একাধিক কারণে প্রশাসনকে কাঠগড়ায় তোলার একাধিক নজির মিলেছে। যেহেতু সামনেই লোকসভা নির্বাচন তাই বিভিন্ন দাবীদাওয়া সংক্রান্ত ইস্যুতে সুরাহা পাওয়ার আশায় ভুক্তভোগীদের প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ আন্দোলন করতেও দেখা গিয়েছে। তবে এদিন খোদ প্রশাসনকেই ভুক্তভোগীদের পক্ষে সওয়াল তুলতে দেখা গেল। সম্প্রতি দীঘায়

পুলিশ প্রশাসনের উপর নির্ভরশীল হয়ে নয় – পার্টির কাজ পার্টিকেই করতে হবে: কর্মীসভায় বিস্ফোরক শুভেন্দু অধিকারী

লোকসভা ভোটকে টার্গেট করেই জেলায় জেলায় ব্লকে ব্লকে দলীয় সংগঠনকে মজবুত করার কাজে নেমে পড়েছে শাসকদল। বিরোধীদের রোখার পথ বাতলে দেওয়ার পাশাপাশি প্রয়োজনে তুলে ধরা হচ্ছে সংগঠনের আভ্যন্তরীন দোষত্রুটিগুলোকে। দলীয় সাংগঠনিক গলদ উপসমে রাজ্য নেতৃত্বরা কড়া হাতে লাগাম ধরে রেখেছেন। কীভাবে, কোন কোন কাজ করলে তৃনমূল সরকারের ভাবমূর্তি আরো স্বচ্ছভাবে রাজ্যবাসীর

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার সমীক্ষা অনুযায়ী, একনজরে এই মুহূর্তে ভোট হলে কি হতে পারে রাজ্যের ৪২ টি লোকসভা আসনের চিত্র

গত ১৪ দিন ধরে রাজ্যের ৪২ টি লোকসভা ও ২৯৪ টি বিধানসভা আসনে আমরা যে সমীক্ষা চালিয়েছিলাম তার বিস্তারিত ফলাফল আপনাদের সামনে নিয়ে এসেছি। লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসবে, আমরা তত এই ধরনের সমীক্ষা বেশি করে করব। এর আগে গত মার্চ মাসে ও গত জুলাই মাসে আমরা দুটি সমীক্ষা করি

দীঘাকে গোয়ার উপরে নিয়ে যেতে তৎপর মুখ্যমন্ত্রী, “জোড়া উপহারের” ঘোষণা বিশ্বস্ত সেনাপতি শুভেন্দু অধিকারীর

রাজ্যের পর্যটনের উন্নয়নে ফের একাধিক পদক্ষেপ নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার সমুদ্র সৈকত দীঘাকে সাজিয়ে তুলতে এক নতুন ঘোষণা করলেন তিনি। সূত্রের খবর, গতকাল দীঘা থেকে কলকাতা থেকে ফেরার পথে হেলিপ্যাড ময়দানে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দীঘায় থ্রি-স্টার হোটেল ও পরিবহণ দপ্তরের মাধ্যমে আন্ডারগ্রাউন্ড পার্কিং সহ আধুনিক মানের পার্কিং প্লাজা তৈরি

দীঘা কে গোয়া করার স্বপ্ন আরও উস্কে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী, ‘বাঙালি প্রধানমন্ত্রীর’ জল্পনা তীব্রতর করলেন হেভিওয়েট সাংসদ

পূর্ব মেদিনীপুরে প্রশাসনিক বৈঠকে এদিন দীঘাকে গোয়া করার রাজ্য সরকারের পরিকল্পনাটির গোড়ায় ফের জল দিলেন তৃণমূল নেত্রী। তিনি বলেন, সৌন্দর্যে দীঘা একদিন গোয়াকেও টেক্কা দেবে। সাত কিলোমিটার দীর্ঘ মেরিন ড্রাইভ তৈরি হচ্ছে দীঘায় - ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টার, বিশ্ববাংলা পার্ক, নতুন রাস্তা, ব্রীজ তৈরি হচ্ছে। আরো দুটো ব্রিজ নির্মান হয়ে গেলে

বেশি পাকামো  মেরো না, নিজেরা এলাকায় গিয়ে সার্ভিস দাও – তীব্র ক্ষোভ উগরে কাকে বললেন মুখ্যমন্ত্রী?

কার্তিক গুহ, পশ্চিম মেদিনীপুর:- বিভিন্ন এলাকায় বিধায়ক থেকে শুরু করে ব্লক নেতাদের যে জনসংযোগ কমছে তা ভালই জানেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর আগে এ নিয়ে একাধিকবার সতর্কও করেছেন তিনি দলীয়স্তরে। মঙ্গলবার, পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রশাসনিক বৈঠকে প্রশাসনের কর্তা থেকে বিধায়ক, সবাইকে ধমক খেতে হলো মুখ্যমন্ত্রীর। শালবনির বিধায়ক শ্রীকান্ত মাহাতোকে তো সরাসরি

সুশাসনের লক্ষ্যে অবিচল মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসন স্থানীয় মাফিয়াদের সঙ্গে মিলে দুর্নীতিতে যুক্ত থাকলে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিলেন

সম্প্রতি যে কয়েকটি জেলার প্রশাসনিক বৈঠক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী, সেখানে প্রায় সব জায়গাতেই অবৈধ বালি খাদান রুখতে প্রশাসনকে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। আর গতকাল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার প্রশাসনিক বৈঠকেও এই ব্যাপারে প্রশাসনকে আরও কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সম্প্রতি ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া পূর্ব এবং পশ্চিম বর্ধমান মিলিয়ে যে পাঁচটি

সরকারি চিকিত্‍সার নামে জনপ্রতিনিধিদের টাকা দেবেন না – ‘বিস্ফোরক’ নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

১৯'এর বিগ্রেড সমাবেশকে টার্গেট করেই দলীয় প্রচার কর্মসূচির জন্যে দুদিনের সফরে পশ্চিম মেদিনীপুরে পাড়ি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন ছিল কেশিয়াড়িতে নেত্রীর প্রশাসনিক বৈঠক। বৈঠকে বসেই পুলিশ থেকে শুরু করে চিকিৎসক, জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে সরকারি উচ্চপদস্থ কর্তা প্রত্যেকেই জনপরিষেবা সংক্রান্ত একাধিক নির্দেশ দিলেন নেত্রী। সরকারি চিকিৎসার নামে জনপ্রতিনিধিদের টাকা না

Top
Close
error: Content is protected !!