এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা

দল থেকে সদ্য বহিষ্কৃত নেতাকে সঙ্গে নিয়ে ঘুরছেন বিজেপি সাংসদ! তীব্র বিতর্ক গেরুয়া শিবিরে

লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি সাফল্য পাওয়ার পর আগামী বিধানসভা নির্বাচনকে টার্গেট করেছে তারা। আর বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে বিজেপি এখন নিজেদের দলের মধ্যে যেমন স্বচ্ছতা আনতে চাইছে, ঠিক তেমনই সংগঠনকে শক্তিশালী করতে চাইছে। ইতিপূর্বেই নানা ঘটনায় বিজেপি নিজেদের শৃঙ্খলার প্রমান দিতে অনেককেই দল থেকে বরখাস্ত করেছে। কিন্তু বিজেপির জেলা নেতৃত্ব থেকে

বিজেপি ছাড়লেন প্রাক্তন বিধায়ক, উলটপুরান রাজ্যে, জোর জল্পনা

  রাজনীতিতে এক গতিতেই সবকিছু চলবে বলে মনে করে বিভিন্ন মহল। কিন্তু নদীর গতিপথের যেমন মাঝেমধ্যেই পরিবর্তন হয়, ঠিক তেমনই রাজনৈতিক গতিপথেরও বিভিন্ন সময় পরিবর্তন হয় বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের। 2019 এর লোকসভা নির্বাচনে সারা দেশজুড়ে গেরুয়া ঝড় বয়ে যাওয়ার পর বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর অস্তিত্ব কার্যত সংকটের মুখে পড়ে গিয়েছিল। রাজ্যে রাজ্যে

পার্শ্বশিক্ষকদের পাশে দাঁড়িয়ে সরকারের অস্বস্তি বাড়িয়ে দিলেন প্রাক্তন তৃণমূল নেতা, জানুন বিস্তারিত

  লোকসভা নির্বাচনের আগেই তৃণমূল ত্যাগ করেছিলেন তিনি। দিল্লিতে গিয়ে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে দেখা গিয়েছিল তৃণমূল নেতা অর্জুন সিংহকে। মূলত ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে অর্জুনবাবুর বদলে দীনেশ ত্রিবেদীকে প্রার্থী করার জন্যই তৃণমূল ত্যাগ করেন অর্জুন সিংহ বলে দাবি রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের। আর বিজেপিতে এসে সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের দীনেশ ত্রিবেদীর বিরুদ্ধে বিজেপির প্রার্থী

হেভিওয়েট তৃনমূল নেতাকে খুনের হুমকি, কাঠগড়ায় বিজেপি, জোর চাঞ্চল্য

  লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপির প্রবল উত্থান ঘটেছে। আর বিজেপি তাদের ভোটব্যাঙ্ক বাড়ানোর সাথে সাথেই বিভিন্ন জায়গায় শাসক বনাম বিরোধীর সংঘর্ষ লক্ষ্য করা গেছে। ক্ষমতা দখলের নেশায় মত্ত হয়ে প্রায় প্রতিদিনই বিভিন্ন এলাকায় ছড়াচ্ছে অশান্তি। কখনও পঞ্চায়েত, কখনও জেলা পরিষদ, আবার কখনও বা পৌরসভা, শাসক-বিরোধী টানাটানিতে এখন নীরব দর্শকের ভূমিকায় সকলে।

মূল্যবৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী, নিলেন ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত

  আলু থেকে পেঁয়াজ, বেগুন থেকে পটল, সকালবেলা আড় ভেঙে মধ্যবিত্ত বাঙালি বাজারে গেলেই যেন তাদের চক্ষু ছানাবড়া হয়ে যায়। গৃহিনীর মান ভাঙাতে টাটকা সবজি নেবেন! কিন্তু পকেটের যে করুণ দশা! নিত্য প্রয়োজনীয় যে জিনিসেই হাত দিন না কেন, সেখান থেকেই আগুনের গোলা বেরোতে শুরু করবে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও বর্তমানে এই নিয়ে

অমিত শাহের “মন্ত্রে” বিধানসভা দখলে মহাপরিকল্পনা বিজেপির! বড়সড় পরিবর্তন সাংগঠনিক স্তরে

লোকসভা নির্বাচনে তুমুল সাফল্য পাওয়ার পরে, বিজেপির টার্গেট, আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে বাংলার কুর্শি নিজেদের দখলে নিয়ে আসা। ইতিমধ্যেই লোকসভায় সাফল্য পাওয়ার পর বিজেপি বঙ্গ দখলে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। তবে বাংলায় বিজেপি জনসমর্থন পেলেও লড়তে গেলে যে সাংগঠনিক জোরও দরকার, তা বুঝতে পেরেছে বিজেপির রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। আর তাইতো

তৃণমূলকে তৃতীয় বার ক্ষমতায় আনতে পিকের মহাপরিকল্পনা! সীলমোহর মমতার – জানুন বিস্তারিত

লোকসভা ভোটে বিপর্যয়ের পরেই দলের রননীতিকার হিসেবে ভোটগুরু প্রশান্ত কিশোরকে দায়িত্ব দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর দায়িত্ব নিয়েই প্রশান্ত কিশোর অনুধাবন করেন যে, তৃণমূল মানুষের থেকে অনেকটাই বিচ্ছিন্ন। আর তাই রাজ্যের শাসক দলকে প্রথমে জনসংযোগে নিয়ে যেতে হবে। আর এই কথা অনুধাবন করেই দিদিকে বলোর মত কর্মসূচি চালু করে গোটা তৃণমূলকে

ফের প্রভাবশালী চিটফান্ড সংস্থার দুই কর্তাকে গ্রেফতার, সামনে আসতে পারে প্রভাবশালীর নাম

এবার চিটফান্ড কাণ্ডে চাঞ্চল্যকর মোড়। চিটফান্ড কান্ড নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে শোরগোল ছিল, ঠিক সেই মুহূর্তে সামনে এলো আবার একটি চিটফান্ড সংস্থা সেবা কেলেঙ্কারি শিলিগুড়ি থেকে এই সংস্থাটি তার কার্যকলাপ চালাতো। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার বহুদিন ধরে নজর ছিল সংস্থাটির ওপর। চিটফান্ড নিয়ে রাজ্য সরকারের ওপর এমনিতেই চাপ আছে। তাই নতুন করে

প্রাথমিক নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিলো রাজ্যের শিক্ষা দফতর, জনে নিন

এবার রাজ্যে প্রাথমিক শিক্ষার ভোলবদল হতে চলেছে। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এর নির্দেশে প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থায় পঞ্চম শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে। ইতিমধ্যে 2009 শিক্ষাবর্ষে রাজ্যে প্রাথমিকে পঞ্চম শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে। এতদিন পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চম শ্রেণীর স্থান ছিল উচ্চ প্রাথমিকে। কেন্দ্রীয় আইন অনুযায়ী প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণী শিক্ষার প্রাথমিক

বিজেপির পঞ্চায়েত প্রধান সহ “নিখোঁজ” সদস্যরা “ফিরে এসেই” তৃণমূলী হয়ে গেলেন!

  লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গে বিজেপির দাপট প্রত্যক্ষ করা গিয়েছিল। গোটা উত্তরবঙ্গ জুড়ে অনেক হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা, কর্মীরা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করতে শুরু করে। তবে সম্প্রতি এই পরিস্থিতির ফের পরিবর্তন হয়। যে সমস্ত নেতাকর্মী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন, তারা আবার তৃণমূলে ফিরে আসতে শুরু করেন। আর এবার বিজেপির দখলে থাকা

Top
error: Content is protected !!