এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য

বিগ ব্রেকিং – ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত, রাজ্যসভাতেও পাস্ হয়ে গেলো সিএবি

ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত, রাজ্যসভাতেও পাস্ হয়ে গেলো সিএবি। রাজ্যসভায় পাস্ হলো সি এ বি। জানা যাচ্ছে ধ্বনি ভোটে উপরাষ্ট্রপতি জানিয়ে দেন যে বিল পাস হয়ে গেছে। কিন্তু বিরোধীরা জানায় ধ্বনি ভোটে নয় ভোট নিয়ে জানাতে হবে। বিলের পক্ষে ১২৫আর বিলের বিপক্ষে  ১০৫ ভোট পড়ে বিল পাস হয়ে গেলো রাজ্য সভায়।

এনআরসি আতঙ্কে বড়সড় ধাক্কা গেরুয়া শিবিরে, ঘর গোছাচ্ছে তৃণমূল

ফের বিজেপির সঙ্গে ত্যাগ করে তৃণমূলে যোগ দিলেন পাঁচ শতাধিক কর্মী। পূর্ব বর্ধমানের জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহমুদ খানের হাত ধরে তাঁরা তৃণমূলে যোগদান করেন বলে জানা গেছে। তৃণমূলের দাবি এনআরসি লাগু করলে দেশ ছাড়া হতে হবে- এই আতঙ্কে বিজেপির সঙ্গ ত্যাগ করে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছেন তাঁরা। সারা দেশেই

মৃৎশিল্পীদের তৈরি ভবন এখন বিয়েবাড়িতে ভাড়া খাটছে! প্রশ্ন সরকারের উন্নয়ন নিয়ে!

কৃষ্ণনগরের ঘূর্ণি বরাবরই মৃৎশিল্পের জন্য বিখ্যাত। রাজ্য এবং জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তো বটেই, বিশ্বের অনেক জায়গা থেকেও শিল্প অনুরাগী মানুষ মৃৎশিল্পের টানে ভিড় জমায় এই ঘূর্ণিতে। তাই মৃৎশিল্পীদের কাজের সংগ্রহশালা নির্মাণের উদ্দেশ্যে এবং কৃষ্ণনগরের পর্যটনকে বিখ্যাত করার লক্ষ্যে 2013 সালের 17 ডিসেম্বর কৃষ্ণনগরে মৃত্তিকা ভবন নির্মাণের শিলান্যাস করেন মুখ্যমন্ত্রী

প্রাক্তন সাংসদের বক্তব্যেই বিজেপি-মিম “গেমপ্ল্যান” ফাঁস? বিস্ফোরক অভিযোগ তৃণমূলের

গত লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় সংখ্যালঘু ভোট তৃনমূল কংগ্রেসের দিকেই গিয়েছে। আর তার ফলেই 22 টি আসন পেয়ে মুখ রক্ষা হয়েছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের। একথা রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক থেকে শুরু করে বিশেষজ্ঞ, প্রায় কারোরই অজানা নয়। সংখ্যালঘু ভোটের জন্যই যে তৃণমূল কংগ্রেস বাংলায় টিকে আছে, তা বুঝতে বাকি নেই কারোরই। তবে

তৃণমূল নেতা খুনে নয়া মোড়! অভিযুক্তের তালিকা বিজেপির পাশাপাশি হেভিওয়েট তৃণমূল নেতার নাম

তৃণমূল নেতা খুনে এবার অভিযুক্ত হলেন আরেক তৃনমূল নেতা। যে ঘটনায় এখন প্রবল চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে বর্ধমানের কালনায়। বস্তুত, গত শুক্রবার রাতে দলের কাজ সেরে সাড়ে আটটা নাগাদ বাড়ি ফেরার পথে দুষ্কৃতীদের ছোড়া গুলিতে খুন হতে হয় কালনা 1 পঞ্চায়েত সমিতির কৃষি কর্মাধ্যক্ষ ইনসান মল্লিককে। পরবর্তীতে তাকে প্রথমে কালনা সুপার

তৃণমূলের ঘুম উড়িয়ে একের পর এক নেতার বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগের লিফলেট “দুঃখী জনসাধারণের”!

ইতিমধ্যেই ভারতীয় জনতা পার্টির মন্ডল সভাপতি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দলের সাংগঠনিক জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে লিফলেট পড়ার মতো ঘটনা নজর কেড়েছিল রাজ্যের রাজনৈতিক মহলের। বারাসাতের ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কটাক্ষ করতেও দেখা যায় রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে। কিন্তু এই ঘটনার কয়েকদিন কাটতে না কাটতেই সেই পোস্টারে আতঙ্ক এখন রাতের ঘুম

উপনির্বাচনের ভরাডুবিতে চূড়ান্ত অবিশ্বাসের পরিবেশ! বিজেপিতে বাড়ছে অন্তর্দ্বন্দ্ব থেকে ডামাডোল

গত লোকসভা নির্বাচনে কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্র থেকে 57 হাজার ভোটে এগিয়ে ছিল রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরী। কিন্তু তার কয়েক মাস কাটতে না কাটতেই কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে কার্যত ভরাডুবির মুখ দেখতে হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টিকে। এই নিয়ে বিজেপির মধ্যে জল্পনার শেষ নেই। নির্বাচনে পরাজয়ের ছবি সামনে আসতেই উত্তর

এবার তৃণমূলী পঞ্চায়েত সদস্যদের নিজের এলাকায় ঢুকতে বাধা ও বোমাবাজির অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

বাংলায় গণতন্ত্র নেই বলে দীর্ঘদিন ধরেই সোচ্চার হতে দেখা যাচ্ছে বাংলার প্রধান বিরোধী দল ভারতীয় জনতা পার্টিকে। যেক্ষেত্রে শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধেই মূল অভিযোগ তুলছেন তারা। তবে রাজনীতিতে পরাজিত হলেই কি প্রতিহিংসা জন্ম নেয় সেই রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে! বিগত লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কিছুটা খারাপ ফলাফল করার পর বিজেপির উত্থান হলে

উদ্বোধনের আগেই চাঙর খসে পড়ছে উড়ালপুলের! “উন্নয়নের জোয়ার” কটাক্ষ বিরোধীদের!

"রাজ্যে মা-মাটি-মানুষের সরকারের আমলে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে" বলে দাবি করেন তৃণমূল কংগ্রেসের ছোট, বড়, মেজো সমস্ত স্তরের নেতারাই। এক্ষেত্রে নিজেদের সরকারের উন্নয়নের বড় করে দেখিয়ে বিগত বাম সরকারের উন্নয়ন এবং বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকারের উন্নয়নকে ছোট করে দেখাতে ব্যস্ত থাকেন তৃণমূলের নেতারা‌। তবে ঘাসফুল শিবির মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর সরকারের উন্নয়নকে

লোকসভায় বিজেপিতে যাওয়া বাম-কং ভোট তৃণমূলমুখী হতেই কি উপনির্বাচনে ম্যাজিক? বাড়ছে জল্পনা

গত লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের 18 টি আসনে বিজেপির জয়লাভের পরেই কার্যত হতবাক হয়ে গিয়েছিল রাজনৈতিক মহল। তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল, বিজেপির এই জয়ের পেছনে বামফ্রন্ট এবং কংগ্রেস দায়ী। কেননা ফলাফল পর্যালোচনায় দেখা যায়, বিভিন্ন লোকসভা কেন্দ্রের ভোটে বামেদের ঝুলি কার্যত শূন্য। আর তাতেই ঘাসফুল শিবির দাবি করে,

Top
error: Content is protected !!