এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য (Page 2)

নতুন পরিষেবা নিয়ে এল জিও, জেনে নিন

  ওয়াইফাই কলিং অনেকদিন আগেই ভারতবর্ষে চালু হয়েছিল। কিন্তু এবার সেই পরিষেবাই নিয়ে আসতে দেখা গেল রিলায়েন্স জিওকে। বস্তুত, গত মাসেই ওয়াইফাই কলিং পরিষেবাটি কথা ঘোষণা করা হয়েছিল। প্রথমে এয়ারটেল এই প্রকল্পের ঘোষণা করে। আর এবার রিলায়েন্স জিও ভিডিও এবং ভয়েস কলের জন্য ওয়াইফাই পরিষেবা ঘোষণা করায় গ্রাহকদের মধ্যে বড় সুখবর

রাই-কেশব (লাভ স্টোরি ) কলমে – অপরাজিতা = পর্ব ৭

মিসেস মুখার্জী বলতে শুরু করলেন ওর বাড়ি নাদিয়ায়। শ্রী হবার আগে ওর মায়ের একটা ছেলে ছিল। প্রায় ৩ - ৪ বছরের মাথায় খেলতে খেলতে পুকুরে পরে যায়, বাচ্চাটা মারা যায়। ওর মা সেটা সামলাতে পারেনি। সেই থেকেই ওর মায়ের একটা প্রব্লেম শুরু হয়। আস্তে আস্তে যদিও ঠিক হয়ে যান কিন্তু

রাই-কেশব (লাভ স্টোরি ) কলমে – অপরাজিতা = পর্ব ৬

দোকানের বাইরে রাখা বেঞ্চে বসেই রইলো রনো। অদিতি আর রাহুল আসছিলো বাইকে করে। ওকে দেখে দাঁড়িয়ে গেলো। ওকে উদ্ভ্রান্তের মতো লাগছিলো। রনো কি হয়েছে ? এখানে বসে আছিস কেন? বললো রাহুল। রনো - ভালো লাগছে না কিছু ? অদিতি তোর সঙ্গে নাতাশার কোনো যোগাযোগ আছে? জানিস কেমন আছে ও ? রাহুল - এই তুই

রাই-কেশব (লাভ স্টোরি ) কলমে – অপরাজিতা = পর্ব ৫

দু চারদিন পর একটা ইমার্জেন্সি আসায় দেরি হয়েছে রনোর বাড়ি ফিরতে। অনেকদিন দাড়ি গোফ কিছু স্ট্রিম করা হয়নি। আজ সেলুনে গিয়েছিলো। চোখ বন্ধ করে শ্রীর কথা ভাবছিলো সেলুনের ছেলেটা খুব ছোট করে স্ট্রিম করে দিয়েছে। জঘন্য শেপ করেছে এর থেকে দাড়ি গোফ না থাকা ভালো। রনো বলেছে সব কেটে ফেলতে।

রাই-কেশব (লাভ স্টোরি ) কলমে – অপরাজিতা = পর্ব ৪

রনোর এখন হাসপাতাল মাথায় উঠেছে। ধ্যান জ্ঞান হয়ে উঠেছে শ্রী, ওকে যে করেই হোক স্বাভাবিক করবে। এতদিন যে ৮ টার আগে ঘুম থেকে উঠতো না। সে আজকাল ৫ টার সময় উঠছে। রেডি হয়ে বাইক নিয়ে বেরিয়ে যাচ্ছে। হাসপাতাল যাচ্ছে তাড়াতাড়ি, বেরিয়ে যাচ্ছে তাড়াতাড়ি। কোনো এমার্জেন্সি এলে অন্য ডাক্তারকে রেফার করছে।

রাই-কেশব (লাভ স্টোরি ) কলমে – অপরাজিতা = পর্ব ৩

সমীরকে কল করেছিল রনো।সমীর অনেক কথা জিজ্ঞাসা করেছে তার একটারও উত্তর রনো দিতে পারেনি। কেন সে শ্রী র ব্যাপারে কিছুই জানে না। সমীর বলেছে আগে জানা দরকার ওর পাস্ট সম্পর্কে। সে রণকে সাজেস্ট করেছে ওর সাথে যেন বন্ধুত্ব করে ওর থেকে সব জানে। সেই চেষ্টাই করে যাচ্ছে রনো। না অনেকবার

রাই-কেশব (লাভ স্টোরি ) কলমে – অপরাজিতা = পর্ব ২

রনো বারান্দায় উঠে দেখলো দরজা বন্ধ ভেতর থেকে। অনেক বার ডাকলো অদিতিকে , না কেউ খুললো না। রগে চোয়াল শক্ত করে বেরিয়ে গেলো বাইক নিয়ে। এদিকে বাইকের স্টার্ট শুনেই ঘুম ভেঙেছিল রাহুলের। অদিতি ওকে থ্রেট দিয়ে রেখেছিলো-যদি রনো কি করছে তার খবর ওর কাছে না যায় তাহলে ব্রেক আপ করে দেবে।

রাই-কেশব (লাভ স্টোরি ) কলমে – অপরাজিতা = পর্ব ১

পরশু হোলি না? জিজ্ঞাসা করলো রনো। হুম, তাতে কি? উত্তর এলো অদিতির তরফ থেকে। রনো - তাতে কি মানে? রং খেলবো আবার কি ? অদিতি - বেস্ট অফ লাক রনো - বেস্ট অফ লাক মানে? এই তুই খেলবি না? অদিতি - না, আর আমি সেদিন হসপিটালেও আসছি না। রনো - আরে কেন? অদিতি - না স্পেসিফিক কোনো

একটি মাটির প্রদীপই পারে আপনার ভাগ্য ফেরাতে, জেনে নিন পদ্ধতি

  বাস্তুশাস্ত্র মাটির প্রদীপকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়। এই শাস্ত্র মতে, বিভিন্ন দেবতার উদ্দেশ্যে প্রজ্জ্বলিত মৃৎপ্রদীপ বিভিন্ন সুফল বহন করে।সনাতন ভারতীয় সংস্কৃতিতে মৃৎপ্রদীপ অতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় যুগে যুগে অবতীর্ণ। সিন্ধু সভ্যতার ধ্বংসাবশেষেও অসংখ্য মাটির প্রদীপের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। সেদিন থেকে আজ পর্যন্ত যে কোনও উপাসনায় সনাতন ধর্ম মৃৎপ্রদীপকে বিপুল গুরত্ব দিয়ে থাকে।দেবমৃর্তির পূজাই

অকালে প্রেমের বোধন – কলমে – অপরাজিতা , অন্তিম পর্ব

এবার অভি আর গুঞ্জাকে চোখে চোখে রাখছে টুম্পা আর রিম্পা। একসঙ্গে দুজনকে দেখলেই এই একসঙ্গে থাকতে নেই সরো । গুঞ্জাকে ধমকেছে কেন গিয়েছিলে ভাইয়ের কাছে ? ভাইয়ের ক্ষতি করতে চাও? জুঁই বলেছে অভিকে। রিম্পা পুজোর উপাচারে কিছু অসুবিধা হলেই কথা শোনাচ্ছে গুঞ্জাকে। নিজে পটের বিবি সেজে বসে আছে। এত শাড়ী, নুপুর এত

Top
error: Content is protected !!