এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > অপরাজিতা

গুরুদেব সহায় – ( লাভ স্টোরি ) – কলমে-অপরাজিতা – অন্তিম পর্ব

এদিকে রবিবার আসন্ন। কি হলো কুষ্টি মিললো না কি মিললো না তা জানা দরকার। শ্রীপর্ণার বাবা মা শুক্রবার সকালে গুরুদেবের আশ্রমে গুরুদেবের সাথে দেখা করতে গেলেন। গুরুদেব জানালেন এখানে বিয়ে হলে খুব খারাপ হবে। কেননা শ্রীপর্ণার কুষ্টিতে অনেক দোষ এসে পড়েছে ,যে সে ছেলের সাথে বিয়ে দিলে হবে না অমন

গুরুদেব সহায় – ( লাভ স্টোরি ) – কলমে-অপরাজিতা -পর্ব – ১০

অনুপমদাকে বলেছে রাজর্ষি। অনুপমদা সেই মতো মাকে বোঝানোর চেষ্টাও করেছে। কিন্তু লাভ হয়নি মা কিছুতে রাজি হয়নি। উল্টে বলেছেন রাজু যদি ওই মেয়েকে বিয়ে করে তবে তিনি আত্মহত্যা করবেন।সঙ্গ দিয়েছে মঞ্জু আর প্রিয়াঙ্কাও। অনুপম বলেছে - রাজর্ষি কষ্ট পাবে। তাতে উত্তর এসেছে -সুন্দরী মেয়ে দেখলে সব ভুলে যাবে। নিজেরাই নিজেদের ভোগ্য

গুরুদেব সহায় – ( লাভ স্টোরি ) – কলমে-অপরাজিতা -পর্ব -৯

ঘরে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দিলো রাজর্ষি। এটা কি শুনলো ও ? শ্রীপর্ণার বাবা জেনে গেছে ? কি করে? তাছাড়া ওদের তো পছন্দ ছিলো রাজর্ষিকে। তাহলে ,কি হলো ?বিয়ের দিন তো এখনো ঠিক হয়নি। ইচ্ছা করলেই ভেঙে দেওয়া যায়। তবে ? আচ্ছা সেই জন্যই শ্রীপর্ণার ফোন পাচ্ছে না রাজর্ষি। এবার

হ্যাপি ভ্যালেন্টাইন্স ডে – (লাভ স্টোরি ) ছোট গল্প – কলমে – জয়তী

আহা কতদিন পর বিয়েবাড়ি এটেন্ড করছে নীল। সেই ৩ বছর আগে জেঠুর ছেলের বিয়েতে এসেছিলো। বাড়ির বিয়ে বলেই আসতে পেরেছিলো। নাহলে ম্যানেজারগুলো ছুটি দেয় না, নাহলে টিকিটের প্রব্লেম, নাহলে কাজের প্রব্লেম। ব্যাঙ্গালোরে বসেই শুনতে হয় এই হচ্ছে সেই হচ্ছে আর হাত কামড়াতে হয় নীলকে। না এটা শুধুমাত্রই নীলের একার প্রব্লেম

গুরুদেব সহায় – ( লাভ স্টোরি ) – কলমে-অপরাজিতা -পর্ব – ৮

সকালের শুরুটা তেঁতো হলেও শ্রীপর্ণার সাথে সারাদিন খুব ভালো কেটেছে রাজর্ষির। এত কথা বলেছে শুনেছে। আগে দেখতো কেমন প্রেমিক প্রেমিকারা হাত ধরে ঘুরছে, কেনাকাটা করছে , সিনেমা দেখতে এসেছে। ও নিজে কোনোদিন এমন কিছু করবে ভাবেনি। আজ শ্রীপর্ণার সাথে সিনেমা দেখেছে, হাত ধরে ঘুরছে, শ্রীপর্ণাকে গিফট কিনে দিয়েছে, খেয়েছে বাইরে।

গুরুদেব সহায় – ( লাভ স্টোরি ) – কলমে-অপরাজিতা -পর্ব- ৭

না যাদের নিয়ে এত কান্ড তারা এই ব্যাপারে বিন্দু বিসর্গও জানে না। তারা তাদের মতো করে আছে। সকালে বাড়ি থেকে রাগ নিয়ে বের হলেও বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে গিয়ে রাজর্ষি কল করেছে শ্রীপর্ণাকে। শ্রীপর্ণাও সঙ্গে সঙ্গেই ফোন ধরেছে। জানিয়েছে সেও বের হচ্ছে। রাজর্ষি শুনতে পেয়েছে ওর মায়ের গলা, শ্রীপর্ণা তার মাকে

গুরুদেব সহায় – ( লাভ স্টোরি ) – কলমে-অপরাজিতা -পর্ব- ৬

অনিমা - দাড়াও মেয়েটার বাড়িতে ফোন করে আচ্ছা করে ঝাড়বো। নচ্ছার বেহায়া মানুষ সব। মঞ্জু- হ্যাঁ, ঠিক বলেছো।কিন্তু ফোন নম্বর নেই বললে যে। অনিমা - তোমার দাদা একটা খাতায় কাকে দেখতে গেছি ,না গেছি, তাদের ডিটেলস লিখে রাখে সেখান থেকে খুঁজে বের করতে হবে। যদিও সে অনেক হ্যাপা। সব খুঁজতে হবে। মঞ্জু -

গুরুদেব সহায় – ( লাভ স্টোরি ) – কলমে-অপরাজিতা -পর্ব- ৫

মায়ের রাগও কম নয়, তিনি ছেলেকে ডাকলেনও না। কমলবাবু দুজনকে অনেক সাধ্যসাধনা করলেন। কাজ হলো না তিনিও শুয়ে পড়লেন। না রাখির কোনো বিকার নেই সে সাউন্ড কমিয়ে সিরিয়াল দেখেছে। খেয়েছে শুয়েছে। সকালেও ছেলে উঠে না খেয়ে বেরিয়ে গেলো। মা যদিও অনেকবার বলেছে খায়নি।কেননা ফের সকালে মা শুরু করেছিল।ছেলে হাতছাড়া হয়ে

গুরুদেব সহায় – ( লাভ স্টোরি ) – কলমে-অপরাজিতা -পর্ব- ৪

আর ভালো লাগছে না রাজর্ষির জানে ও মাকে , এগুলো যে করবে সেটা স্বাভাবিক মায়ের জন্য। মা নিজের চাওয়াকে প্রাধান্য দিতে এগুলো করে.ইচ্ছা করে নাকি এমনটাই স্বভাবে জানে না রাজর্ষি। মায়ের এই সব কান্ড কারখানাকে ভয় খেত রাজর্ষি। কিন্তু আজ শ্রীপর্ণার ওই ম্যাসেজ টা " ওর বিয়ে ঠিক হয়ে গেছে"

গুরুদেব সহায় – ( লাভ স্টোরি ) – কলমে-অপরাজিতা -পর্ব- ৩

রাজর্ষি - আরে শুনবে তো একবার, এইভাবে হট করে কি বিয়ে করা যায়। শ্রীপর্ণা - আচ্ছা উঠলাম, বাই ভালো থেকো।আর আমার বিয়ের কার্ড পাঠিয়ে দেবো এসো কিন্তু, রাজর্ষি - আচ্ছা আমার প্রবলেমটা ত একটু বুঝবে শ্রীপর্ণা - বুঝেছি বলেই তো বললাম। তোমার মা আমাকে মানবে না তুমি খুব ভালো করে জানো, তোমার মা

Top