এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক

তৃণমূলের প্রচারে একাধিক বাংলাদেশী অভিনেতা, কড়া পদক্ষেপের পথে কমিশন থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

এবার প্রচার পর্বে হেভিওয়েট অভিনেতাদের নিয়ে এসে বিপাকে জড়াল শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। সূত্রের খবর, বাংলাদেশের অত্যন্ত জনপ্রিয় অভিনেতা ফেরদৌসকে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালের সমর্থনে প্রচারে নিয়ে এসে প্রশ্নের মুখে পড়ল রাজ্যের শাসক দল। জানা গেছে, গত রবিবার বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদ এবং করণদিঘিতে রায়গঞ্জ লোকসভা

নির্বাচনের মধ্যেই সুপ্রিম কোর্টে বিস্ফোরক অভিযোগ ইডির, দেশ ছেড়ে পালিয়েছে 36 জন প্রভাবশালী!

ঋণখেলাপি করে দেশের অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তি বিদেশে পালিয়ে গেছে বলে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এই সমস্ত কথা তুলে ধরে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে যখন সরব হচ্ছে বিরোধীরা, ঠিক তখনই চপার কেলেঙ্কারির এক মামলার শুনানিতে বিজয় মালিয়া, নিরব মোদীই নয়, দেশ থেকে আরও 36 জন প্রভাবশালী পালিয়ে গিয়েছেন বলে মন্তব্য করে শোরগোল

ঝুলি থেকে বেরিয়েই পরল বিড়াল। চাইলেই ভারত ভাগ করতে পারবেন – দাবি ফারুক আব্দুল্লার

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে প্রচারে গিয়ে গত রবিবার জম্মু-কাশ্মীরের কাঠোয়াতে জনসভা করে ফারুক আব্দুল্লা এবং মেহেবুবা মুফতির পরিবারকে দেশ ভাঙ্গার কারিগর হিসেবে উল্লেখ করে শোরগোল তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর প্রধানমন্ত্রী এহেন দাবিকে ঘিরেই শোরগোল পড়ে যায় জাতীয় রাজনীতিতে। তবে এবার প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের পাল্টা সোমবার শ্রীনগরের নির্বাচনী জনসভা থেকে

নির্বাচন শুরু হতেই তৃণমূল নেত্রীর মুকুটে পালক – জেনে নিন বিস্তারিত

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজার সাথে সাথেই যখন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে অনুন্নয়নকে হাতিয়ার করে ভোট ময়দানে নামছে বিরোধীরা, ঠিক তখনই এবার সেই রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সাফল্যের মুকুটে ফের যুক্ত হল নয়া পালক। সূত্রের খবর, রাষ্ট্রসঙ্ঘের ওয়ার্ল্ড সামিট' অন দি ইনফরমেশন সোসাইটি আয়োজিত বিশ্বব্যাপী প্রতিযোগিতার চার

ভোটের প্রচারে নতুনত্ব এনে প্রচার তৃণমূলের, কতটা সফল হবে?

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ইতিমধ্যেই শাসক বনাম বিরোধীর রাজনৈতিক তরজা জমে উঠতে শুরু করেছে বঙ্গ রাজনীতিতে। কে কে টেক্কা দিতে পারে, তা নিয়ে প্রবল প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিরোধী দল বিজেপির মধ্যে। আর এরই মাঝে কিছুটা আধুনিক পর্যায়ের দেওয়াল লিখন দেখা গেল রাজ্যে। বস্তুত এতদিন দেওয়াল লিখন

ভারত পাকিস্তানের লড়াই হবে বাংলায় লোকসভা ভোটে, জানালেন বিজেপি প্রার্থী

কিছুদিন আগেই হওয়া ভারত বনাম পাকিস্তানের যুদ্ধের রেশ এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি গোটা ভারতবাসী। আর সেই নির্মম যুদ্ধে দেশের 42 জন জওয়ান প্রাণ হারালেও টিভির পর্দাতে বসেই এই নৃশংস ঘটনাটির সাক্ষী হতে হয়েছে আমাদের। কিন্তু এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় ভারত বনাম পাকিস্তানের যুদ্ধেরই কি একটি ঝলক দেখতে চলেছে বঙ্গবাসী!

কাশ্মীরে জঙ্গি হানার জেরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট যা করলেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে – জানলে অবাক হয়ে যাবেন

সন্ত্রাসবাদি কার্যকলাপের জন্য দীর্ঘদিন ধরেই পাকিস্তানের উপর অসন্তুষ্ট ছিল আমেরিকা। গত 14 ই ফেব্রুয়ারি পবিত্র ভালোবাসার দিনে পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠনের তরফে ভারতের জম্মু কাশ্মীরের পুলওয়ামায় নৃশংস হামলা চালানোর পরই পাকিস্তানের প্রতি আমেরিকার বিদ্বেষের আগুনে আরও ঘি পড়ে যায়। আর এরপরেই অনেকের মনেই সন্দেহ সৃষ্টি হয়েছিল যে, তাহলে কি এবার

পাকিস্তান সরকার স্বীকার না করলেও বালাকোটে জইশের ক্যাম্প বিমানহানার প্রমান মিলছে উপগ্রহ চিত্র থেকে

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামা হামলার প্রত্যাঘাতস্বরূপ ভারতীয় বায়ুসেনারা পাকিস্তানের সন্দেহভাজন জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের জঙ্গিঘাঁটি ভেঙে গুড়িয়ে দিয়ে আসে। এ খবর চাউর হতেই উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন দেশবাসী। তবে ভারতীয় বায়ুসেনার এই বীরত্বের কথা এখনো স্বীকার করছে না পাক সরকার। তাঁদের বক্তব্য,ভারতীয় বায়ুসেনারা বালাকোটে জইশের ক্যাম্পে কোনো হামলা চালায়নি সেদিন। তবে পাকিস্তানের

পাকিস্তানী সংবাদ মাধ্যমের শিরোনামে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ‘লজ্জাজনক’ ব্যাখ্যা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

লোকসভা ভোট ঘাড়ের কাছে নিঃশ্বাস ফেলছে। দেশের ভাবী প্রধানমন্ত্রী কে হবেন তা নিয়ে যেমন চর্চার অন্ত নেই এই মুহূর্তে, সেরকমই বিরোধী জোট যদি এবারে ভোটে জেতে তাহলে তাঁদের তরফ থেকে প্রতিনিধিত্ব করবে কে? এই প্রশ্ন নিয়েও জল্পনা শুরু হয়েছে। এসবের মাঝেই পুলওয়ামা হামলার প্রেক্ষিতে পাকিস্তানী সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে উঠে এসে নজর কাড়লেন

বায়ুসেনার এয়ার স্ট্রাইক নিয়ে শুরু হওয়া বিতর্কে জল ঢাললেন খোদ জৈইশ কর্তা

গত 14 ই ফেব্রুয়ারি পবিত্র ভালোবাসার দিনে জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়মায় পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জয়েশ-ই-মহম্মদের হামলায় প্রাণ হারান দেশের 42 জন বীর জওয়ান। আর স্বাধীন ভারতবর্ষে প্রথম এত বড় নৃশংস হামলার পর থেকেই ভারতের পক্ষ থেকে পাকিস্তানের প্রতি বদলা নেওয়ার জন্য তীব্র দাবি জানানো হয়। এমনকি প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদিও প্রকাশ্যেই জানিয়ে দেন

Top
error: Content is protected !!