এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয়

বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মুখ হওয়ার ‘শর্তেই’ বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ? ক্রমশ তীব্র হচ্ছে জল্পনা

পৃথিবীর সবথেকে ধনী ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআইয়ের সর্বোচ্চ পদে বসেছেন বাংলার গর্ব সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। জগমোহন ডালমিয়ার পর আরেক বাঙালি প্রশাসক হিসাবে ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ পদে। কিন্তু, এই দুর্দান্ত আনন্দের অবহেও প্রবলভাবে ভেসে উঠছে রাজনীতি। সৌরভ গাঙ্গুলি বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হতেই জল্পনা চলছে যে - বাংলার পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী মুখ হিসাবে বিজেপিকে সবুজ সঙ্কেত

বিজেপির গো-রক্ষকের ভূমিকা ‘কাড়তে’ এবার বড়সড় পদক্ষেপ এই মুখ্যমন্ত্রীর

বিজেপি এমনিতেই পরিচিত গো রক্ষক হিসেবে‌। ইতিমধ্যে গো রক্ষাকারী হিসেবে বহু বিতর্কের সম্মুখীন হয়েছে বিজেপি ও তাদের সঙ্গী গোষ্ঠী। গো রক্ষা করতে গিয়ে মানুষ পিটিয়ে মেরে ফেলার ঘটনাও ঘটেছে তাঁদের হাত দিয়ে। যা নিয়ে চূড়ান্ত আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে দেশজুড়ে। বিজেপি, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও আরএসএস দাবি করেন গরুকে পুরাণ অনুসারে

মহারাষ্ট্র দখলে রাখতে বিজেপির ভরসা সেই ‘অমিত শাহ মডেল’ – জানুন বিস্তারিত

এবার পরপর বিধানসভা নির্বাচন শুরু হতে চলেছে। সাথে উপ-নির্বাচনও আছে‌ যা নিয়ে বিজেপি শিবিরের ব্যস্ততা তুঙ্গে। গোটা দেশের 51 টি কেন্দ্রে উপনির্বাচন হবে 21 শে অক্টোবর। লোকসভা ভোটে জয়লাভের পরেই বিজেপি সারাদেশের বিধানসভাগুলি দখল করার উদ্দেশ্যে সংগঠন বাড়িয়ে চলেছে। ইতিমধ্যে মহারাষ্ট্র, হরিয়ানা, ঝাড়খন্ডে নির্বাচনের সময় স্থির হয়ে গেছে। মহারাষ্ট্র নিয়ে

হেভিওয়েট নেতার বাড়িতে আয়কর দপ্তরের তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার প্রায় সাড়ে ৪ কোটি টাকা!

দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা মোটেই ভালো নয়। অর্থনীতির আকাশে মন্দার কালোমেঘ। নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে চলে গেছে দামের কারণে। বাজার হয়ে উঠেছে অগ্নিমূল্য। এখনো পর্যন্ত জিডিপির হার পাঁচ শতাংশের আশেপাশে ঘোরাফেরা করছে। ঠিক এই সময়ে যদি জানা যায় বিপুল পরিমাণ অর্থ উদ্ধার হয়েছে কোন এক নেতার বাড়ি থেকে

উপনির্বাচনে সব আসনই নিজেদের দখলে নিয়ে আসতে বিজেপির ভরসা ‘মুখ্যমন্ত্রীর প্রচার’

লোকসভা ভোটে জয়ের পর থেকেই বিজেপি শিবিরে খুশির মেজাজ। সেই খুশির মেজাজেই এবার সারাদেশের বিভিন্ন বিধানসভা উপনির্বাচন উপলক্ষে বিজেপি শিবির ঝাঁপিয়ে পড়তে চলেছে। দিল্লির তখতে বসার পর থেকেই তাঁদের লক্ষ্য এবার বিভিন্ন রাজ্যের উপনির্বাচন হতে চলা সবকটি বিধানসভা দখল করার। আর এক্ষেত্রে তাঁদের শক্তি জোগাচ্ছে তাঁদের কাজ বলে দাবি গেরুয়া

ট্যাগড

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্য সংখ্যালঘু মহিলারা যা করলেন জানলে অবাক হয়ে যাবেন!

ইসলাম ধর্মের অভ্যুত্থানের শুরু থেকেই ধর্মীয় আইনের অর্থাৎ শরিয়তি মাধ্যমে সংখ্যালঘু মেয়েদের বিভিন্ন অধিকার থেকে বঞ্চিত রাখা হয়েছে। একাধিক বিয়ে, সম্পত্তির মালিকানা, সন্তানের অভিভাবকত্ব ইত্যাদির মাধ্যমে পুরুষকে দেওয়া হয়েছে স্বেচ্ছাচারিতার অধিকার বলে বারেবারেই অভিযোগ উঠেছে। পরিবর্তনশীল সমাজে সময়ের দাবি মেনে অনেক কিছুই বদলে ফেলতে হয়। আর সেভাবেই সংখ্যালঘু মহিলারা ধর্মীয় আইনের

বিজেপির সঙ্গে ছেড়ে অর্থনৈতিক-রাজনৈতিকভাবে হয়েছে ক্ষতি! মমতা-ঘনিষ্ঠের আক্ষেপে জল্পনা চরমে!

বছরখানেক আগে বিজেপির সঙ্গ ছেড়ে দেশজুড়ে বিজেপি-বিরোধী মহাজোট গড়ার ডাক দিয়ে মমতা ব্যানার্জীর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তেলুগু দেশম পার্টির সুপ্রিমো চন্দ্রবাবু নায়ডু। এদিকে এর পর বিগত হয়েছে বেশ কয়েক মাস। লোকসভা তথা অন্ধ্রপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে শোচনীয় ফল করেছে নায়ডুর তেলুগু দেশম পার্টি। আর এদিন সেই নিয়েই মুখ খুলে নিজের সিদ্ধান্তকে ভুল

তৃণমূলের ‘অত্যাচারের’ বর্ণনা নয়, রাজ্য বিজেপির কাছে এবার ‘কাজ’ চায় কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব!

অভাব অভিযোগ অনেক হল - এবার সময় এসেছে 'কাজে' করে দেখানোর! গেরুয়া শিবিরের কেন্দ্রীয় থিঙ্কট্যাঙ্ক কার্যত এই ভাষাতেই এবার নির্দেশিকা দিল বঙ্গ-বিজেপিকে! দুটি ঘটনা - আর তাতেই নিশ্চিত, বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব আর শাসকদলের 'অত্যাচারের' বর্ণনা শুনতে খুব একটা রাজি নয়! বদলে কিভাবে বাংলায় সংগঠন সাজানো হবে ও তার পরিপ্রেক্ষিতে বাংলায়

আরেক বঙ্গ-বিজেপি নেতা পেতে চলেছেন কেন্দ্রীয় প্রশাসনিক স্তরে বড়সড় পদ? তীব্র জল্পনা

দলের সর্বভারতীয় সভাপতি পদে বসে অমিত শাহ একের পর এক রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে এনে দিচ্ছিলেন জয়ের সাফল্য। খুশিতে ডগমগ ছিল গেরুয়া শিবিরের সমর্থকরা। কিন্তু, জয়ের মূল কারিগর অমিত শাহ ঘোষণা করেছিলেন, যতদিন না বাংলায় পদ্ম ফুটবে, ততদিন তিনি মানতে রাজি নন বিজেপির স্বর্নযুগ এসেছে বলে। দেশজোড়া সাফল্য এলেও -

মিলেছে অমিত শাহের সবুজ সঙ্কেত, ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ পদে আসীন হতে চলেছেন বাংলার মহারাজ?

জমজমাট ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের রাজনীতি। আগামী ২৪ শে অক্টোবর নির্বাচন হতে চলেছে পৃথিবীর ধনীতম ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআইয়ের। আর আগামীকাল সেই নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন। আর তার পরিপ্রেক্ষিতে আজ মুম্বইতে বসছে বোর্ডের গুরুত্বপূর্ণ সভা। আর সেই সভার পরেই কার্যত ঠিক হয়ে যেতে পারে, কে কোন পদে বসতে চলেছেন। সবথেকে

Top
error: Content is protected !!