এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয়

বাজেটে ইনকাম ট্যাক্স ছাড়ের পর আবার চাকুরিজীবীদের জন্য বড়সড় ঘোষণা কেন্দ্রের – জানুন বিস্তারিত

দেশের প্রায় ছ'কোটি ইপিএফ গ্রাহকদের মুখে হাসি ফুটিয়ে লোকসভা ভোটের মুখে ফের নয়া ঘোষণা মোদী সরকারের। সম্প্রতি বাজেট অধিবেশনে ইনকাম ট্যাক্সে বড়সড় ছাড় দিয়েছে কেন্দ্র। তার অব্যবহিত পরেই সরকারি চাকরিজীবীদের প্রভিডেন্ট ফান্ডের (পিএফ) সুদের হার বাড়িয়ে মাষ্টারস্ট্রোক দিলেন মোদী। এর জেরে পিএফের সুদের হার বার্ষিক ৮.৫৫ শতাংশ থেকে বৃদ্ধি পেয়ে

নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে এবার প্রভিডেন্ট ফান্ডেও কি জনমোহিনী হতে চলেছে কেন্দ্র? জানা যাবে আজ

অবশেষে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে কর্মচারী প্রভিডেন্ট ফান্ডের (ইপিএফ) সুদের হার এবং ইপিএফ পেনশন নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠকে বসতে চলেছে কর্মচারী ভবিষ্যনিধি সংগঠনের (ইপিএফও) অছি পরিষদ। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত এই বৈঠকই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে সম্ভবত ইপিএফও’র শেষ অছি পরিষদের বৈঠক। অনেকে বলছেন, আসন্ন ভোটের কথা মাথায় রেখে ইপিএফ

কাশ্মীরকে আরও রক্তাক্ত করার হুমকি হিজবুলের, প্রমাণ দেওয়া দূরের কথা পাকিস্তানের মুখোশ খুলতে উদ্যোগী ভারত

গত 14 ই ফেব্রুয়ারি কাশ্মিরের পুলওয়ামায় পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জয়েশ-ই-মহম্মদের নৃশংস হামলার পর এতদিন আত্মঘাতী হামলা থেকে দূরে থাকা হিজবুল মুজাহিদিন ফের নিজেদের লড়াইয়ের কৌশলে বদল আনতে চলেছে। জানা গেছে, কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে গাড়ি ভর্তি বিস্ফোরক রেখে সেখানে জওয়ানদের নিকেশ করেছে জয়েশ-ই-মহম্মদ। আর এই পাক জঙ্গী সংগঠনের এহেন সাফল্য

লোকসভা ভোটে আপনার কেন্দ্রের সব প্রার্থীর সব তথ্য আপনার হাতের মুঠোয় আনতে এবার বিশেষ পদক্ষেপ নির্বাচন কমিশনের

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে সুষ্ঠুভাবে গোটা নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে ইতিমধ্যেই একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে দেশের নির্বাচন কমিশন। আর এবার তাদের এই পদক্ষেপের মধ্যেই অন্যতম হল অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে এবার ভোট প্রার্থীর যাবতীয় তথ্য হাতে পেয়ে যাবেন ভোটাররা। সূত্রের খবর, এবারই প্রথম কোনো প্রার্থীর দাখিল করার সমস্ত নির্বাচনী হলফনামা যদি কোনো

ভারতী ঘোষকে পাশে বসিয়ে তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ এনে দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক মুকুল রায়ের

আজ সকালেই বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের আপ্ত সহায়ক একটি মেসেজ করে জানান দিল্লিতে দুপুর ১২ টার সময় এক সাংবাদিক বৈঠক ডেকেছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। তবে মুকুলবাবুর এই সাংবাদিক বৈঠক কি নিয়ে তার কোনো হদিশ ছিল না কারোর কাছেই। ফলে এই সাংবাদিক বৈঠকের খবর ঘিরে তীব্র জল্পনা ছড়ায় রাজ্য রাজীনীতিতে।

দিল্লিতে দুপুর ১২ টায় সাংবাদিক বৈঠক ডাকলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় – নতুন ‘চমকের’ আশায় বঙ্গ-রাজনীতি

গতকাল সন্ধ্যে পর্যন্ত খবর ছিল বিশেষ কাজে ত্রিপুরা গেছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় - কিন্তু গতকাল গভীর রাতের দিকে জানা যায় ত্রিপুরা নয়, মুকুলবাবু গেছেন দিল্লি। আর আজ সাত সকালেই তাঁর আপ্ত সহায়কের মেসেজ - দুপুর ১২ টায় দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক ডেকেছেন মুকুল রায়। বর্তমানে মুকুলবাবুর দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক মানেই

সুজন চক্রবর্তীর চিঠির পরে কাশ্মীরে নিহত জওয়ানদের 5 লক্ষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের, চাইলে সরকারি চাকরিও

গত 14 ই ফেব্রুয়ারি কাশ্মিরের পুলওয়ামায় পাক মদতপুষ্ট জঙ্গী সংগঠনের হামলায় শহীদ হন দেশের প্রায় 40 জন জওয়ান। আর যেখানে প্রাণ গিয়েছে বাংলার দুই জবান বাবলু সাঁতরা এবং সুদীপ বিশ্বাসের। আর ভারতের এই নৃশংস জঙ্গি হামলায় সারা ভারতের অন্যান্য রাজ্যে জওয়ানদের পরিবারকে সেই রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে আর্থিক সাহায্য করা

পুরোনো শরিকদের মান ভাঙিয়ে জোটে ফেরাচ্ছে বিজেপি, কংগ্রেস বা ফেডারেল ফ্রন্টের অঙ্কটা কি কঠিন হচ্ছে?

আসন্ন 2019 এর লোকসভা নির্বাচনকে ঘিরে এখন জমজমাট হয়ে উঠেছে জাতীয় রাজনীতি। একদিকে কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপি আর অন্যদিকে সেই বিজেপিকে ঠেকাতে বেছে বেছে বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে নিজেদের দিকে টানতে মরিয়া বিরোধী মহাজোট। আর সেক্ষেত্রে কেন্দ্রের শাসক দল গেরুয়া শিবিরের অস্বস্তিকে বাড়াতে সেই বিরোধী মহাজোটের নেতা-নেত্রীদের একমাত্র পাখির চোখ একদা

চিটফান্ড দুর্নীতিতে দলীয় নেতাদের নাম জড়ানো কি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভোটব্যাঙ্কে ধাক্কা দেবে?

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে বাংলায় শাসক তৃনমূল বনাম বিরোধীদল বিজেপির তরজায় জমে উঠেছে রাজনীতি। ঘটনার সূত্রপাত, বিগত ইউপিএ টু আমলে এফডিআই ইস্যুতে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সমর্থন প্রত্যাহারের ঘোষণা করার পর থেকেই রাজ্যের বামফ্রন্ট এবং কংগ্রেস নেতাদের দাবি মোতাবেক নড়েচড়ে বসতে দেখা যায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইকে। তারপর

মিড ডে মিলের দীর্ঘদিনের অভিযোগ দূর করতে একাধিক পদক্ষেপ সহ বিপুল পরিমান অর্থ বরাদ্দ বাড়ানোর পথে কেন্দ্র সরকার

মিড ডে মিলের অর্থবরাদ্দ বাড়ানোর দাবী রাজ্যসরকারের বহুদিনের। এবার সেই দাবীতেই সীলমোহর দিল কেন্দ্রীয় সরকার। এই মুহূর্তে যেকোনো ইস্যুতে কেন্দ্রবিরোধী ঝড় পুঞ্জীভূত হোক এমনটা একদমই চান না মোদী। কারণ সামনেই লোকসভা ভোট। হাত আর মাত্র তিন-চার মাসের অপেক্ষা। সব ঠিকঠাক থাকলে মার্চের প্রথম সপ্তাহেই লোকসভার নির্ঘন্ট ঘোষণা হয়ে যেতে পারে। এই

Top
Close
error: Content is protected !!