এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয়

ইন্দ্রপতন – প্রয়াত অরুন জেটলি! একনজরে তাঁর ঘটনাবহুল রাজনৈতিক জীবন

শরীরের সঙ্গে অনেকদিন ধরেই যুদ্ধ করতে হচ্ছিল তাঁকে, তবে শেষপর্যন্ত হেরে যেতে হল তাঁকে। প্রয়াত হলেন দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। বিগত বেশ কিছুদিন ধরে দিল্লির এইমস হাসপাতালে চিকিত্‍সাধীন ছিলেন তিনি। আর দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর এই প্রয়াণে শোক প্রকাশ করতে শুরু করেছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্বরা। প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি সহ সকলেই তার

দুর্নীতি-কাণ্ডে মুকুল রায়ের অস্বস্তি বাড়িয়ে এবার শাসকদলের সুরের সুর মেলাল কংগ্রেস

"পচা পদ্মের এমনই জাদু যে, যোগ দিলে চোরও সাধু" - কিছুটা দুর্নীতির সঙ্গে যোগসাজশ থাকা মুকুল রায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরই তাঁকে সেইভাবে আর তদন্তকারী সংস্থারা ডাকছে না বলে অভিযোগ তুলতে দেখা যেত তৃণমূলকে। যার জেরে এই স্লোগান তুলে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে ছড়িয়ে দিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ করত রাজ্যের

বিজেপি সাংসদের সঙ্গে মন্দিরে গিয়ে একসাথে পুজো দিয়ে জল্পনা বাড়ালেন হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা

লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই রাজ্যের তৃণমূলের অনেক হেভিওয়েট নেতা, বিধায়ক গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেছেন। যার ফলে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের মুকুট থেকে একের পর এক পালক খসে পড়েছে। আর এবার ফের এক হেভিওয়েট তৃণমূল নেতার বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা ছড়িয়ে পড়ল। সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার লোকসভা নির্বাচনের আগে মন্তেশ্বরে চামুণ্ডা মন্দিরে করা মানতের

চিদাম্বরমের গ্রেফতারির পর এবার সিবিআইয়ের পরবর্তী টার্গেট নিয়ে জোর জল্পনা

দীর্ঘ নাটকের পর অবশেষে সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে দেশের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা প্রবীণ কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরমকে। আর এই পি চিদাম্বরমের গ্রেফতারের পরই বিভিন্ন মহলে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। তবে সব থেকে বেশি গুঞ্জন শুরু হয়েছে কংগ্রেসের অন্দরে। কেননা বর্তমান কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বদের অনেকেই আইনি বেড়াজালে জড়িয়ে রয়েছেন। যেমন, তালিকার

চিদাম্বরমের গ্রেফতারিতে কে কি বললেন জেনে নিন

চিদম্বরমকে আই এন এক্স মামলায় গ্রেফতারের পর তাকে আদালতে পেশ করল সিবিআই। গতকাল গ্রেফতার করা হয় চিদম্বরমকে রাত ১০ টা ১৬ নাগাদ। চিদম্বরমের হয়ে বিচারক অজয় কুমারের এজলাশে নামছেন তিনজন আইনজীবী কপিল সিব্বল, অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি ও বিবেক তনখা।চিদাম্বরমের গ্রেফতারিতে কে কি বললেন জেনে নিন-- যদিও কংগ্রেস থেকে শুরু করে তৃণমূল

হু হু করে বাড়ছে বিজেপির সদস্য সংখ্যা, চিন্তার ভাঁজ বিরোধী শিবিরে

সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ফের দ্বিতীয়বারের জন্য কেন্দ্রের ক্ষমতা দখল করেছে মোদি সরকার। আর ক্ষমতায় আসার পরই সারাদেশে তাদের সদস্যসংখ্যা বাড়াতে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নিতে দেখা গেছে ভারতীয় জনতা পার্টিকে। জানা যায়, গোটা দেশজুড়ে বিজেপির তরফে এবার কুড়ি শতাংশ সদস্য বাড়ানোর টার্গেট নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সাম্প্রতিককালে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী জানা

ট্যাগড

একাধিক হেভিওয়েটের মুখে নাম উঠে আসতেই অস্বস্তি বাড়িয়ে আবার সারদায় মুকুল রায়কে সিবিআইয়ের সমন

রাজ্য-রাজনীতিতে অন্যতম চর্চিত বিষয় সারদা কান্ড - আর সেই সারদা কাণ্ডে আবার অস্বস্তি বাড়ল বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের। একসময় জল্পনা ছড়িয়েছিল সারদা মামলায় গ্রেপ্তার হতে পারেন তিনি, এমনকি কলকাতার বুকে দাঁড়িয়েই তৎকালীন বঙ্গ-বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক সিদ্ধার্থনাথ সিংহ ডাক ছেড়েছিলেন - ভাগ মুকুল ভাগ! কিন্তু, তারপরে সিবিআইয়ের দীর্ঘ জেরার মুখোমুখি হলেও,

বিদেশী এজেন্সি দিয়ে প্রাণে মারার ছক দিলীপ ঘোষকে? তড়িঘড়ি কড়া ব্যবস্থা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের

লোকসভা নির্বাচনের সময়েই গেরুয়া শিবির হুঙ্কার ছুঁড়েছিল - উনিশে হাফ আর একুশে সাফ! অর্থাৎ ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে অন্তত ২১ টি আসন জিতে নিয়ে, ২০২১ এর বিধানসভা নির্বচনে বাংলার মসনদ থেকে তৃণমূল কংগ্রেসকে হঠানোর লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছিল বিজেপি। তৃণমূল কংগ্রেস সেই দাবিকে প্রাথমিক ভাবে উড়িয়ে দিলেও, বিজেপির সেই

তৃনমূলকে চাপে রাখতে অভিনব কৌশল অর্জুন সিংয়ের, জেনে নিন বিস্তারিত

ভাটপাড়ার প্রাক্তন বিধায়ক, একসময় তৃণমূলের দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা অর্জুন সিংহ তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে সাংসদ পদপ্রার্থী নিয়ে মতানৈক্যের কারণে 2019 সালের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের আগেই তৃণমূল ছেড়ে ভারতীয় জনতা পার্টির উত্তরীয় গলায় পড়ে নেন। এরপরে গেরুয়া শিবিরের হয়ে বিজেপি প্রার্থী হিসাবে ব্যারাকপুর থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন তিনি। নির্বাচনে জয়যুক্তও হন এই তৃণমূলত্যাগী বিধায়ক। শুধু

কাশ্মীরে নিজেদের সংগঠন শক্তির কাজ শুরু বিজেপির

দীর্ঘ 70 বছর পর কাশ্মীরের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কেন্দ্রীয় শাসন ক্ষমতায় বসা কোনো রাজনৈতিক দল‌। সিদ্ধান্ত আগেও হয়েছিল, কিন্তু তা ছিল বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি বা স্পেশাল প্যাকেজের মাধ্যমে উপত্যাকাবাসীর মন জয় করা। কিন্তু দীর্ঘদিনের সন্ত্রাস সন্ত্রাস দমনে সৈন্য, মৃত্যু, বোম বিস্ফোরণ ভয়ে ভয়ে জীবন যাপন ছাড়া ভূস্বর্গবাসীর কপালে

Top
error: Content is protected !!