এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর

ভারতী ঘোষকে পাশে বসিয়ে তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ এনে দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক মুকুল রায়ের

আজ সকালেই বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের আপ্ত সহায়ক একটি মেসেজ করে জানান দিল্লিতে দুপুর ১২ টার সময় এক সাংবাদিক বৈঠক ডেকেছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। তবে মুকুলবাবুর এই সাংবাদিক বৈঠক কি নিয়ে তার কোনো হদিশ ছিল না কারোর কাছেই। ফলে এই সাংবাদিক বৈঠকের খবর ঘিরে তীব্র জল্পনা ছড়ায় রাজ্য রাজীনীতিতে।

দিল্লিতে দুপুর ১২ টায় সাংবাদিক বৈঠক ডাকলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় – নতুন ‘চমকের’ আশায় বঙ্গ-রাজনীতি

গতকাল সন্ধ্যে পর্যন্ত খবর ছিল বিশেষ কাজে ত্রিপুরা গেছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় - কিন্তু গতকাল গভীর রাতের দিকে জানা যায় ত্রিপুরা নয়, মুকুলবাবু গেছেন দিল্লি। আর আজ সাত সকালেই তাঁর আপ্ত সহায়কের মেসেজ - দুপুর ১২ টায় দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক ডেকেছেন মুকুল রায়। বর্তমানে মুকুলবাবুর দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক মানেই

লোকসভা নির্বাচনে ঝাড়গ্রাম ও পুরুলিয়াতে সাম্ভাব্য বিজেপি প্রার্থী ও বর্তমান পরিস্থিতি

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় বিভিন্ন যুযুধান রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে সবথেকে বেশি আগ্রহ, উদ্দীপনা ও কৌতূহল তৈরী হয়েছে বিজেপির প্রার্থী তালিকা নিয়ে। এর অন্যতম প্রধান কারণ বোধহয়, এই প্রথম বাংলায় কোনো নির্বাচনে বিজেপি 'ভালো ফল' করার জন্য নয় - লড়তে নামছে 'জেতার জন্য'। বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ যে হুঙ্কার দিয়ে

পিআরটি স্কেল নিয়ে রাজ্য সরকারের ঘুম ওড়াতে এবার হাইকোর্টে মামলা দায়ের করল শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ

প্রিয় বন্ধু বাংলা এক্সক্লুসিভ - নিজেদের পূর্ব ঘোষণা মত রাজ্যের হাজার হাজার প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষিকাকে পিআরটি স্কেল না পাওয়ার যন্ত্রনা দিতে এবার কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করল রাজ্যের অন্যতম জনপ্রিয় শিক্ষক সংগঠন শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ। গত ১৪ ই ফেব্রুয়ারী প্রিয় বন্ধু বাংলাই প্রথম এক প্রতিবেদনে এই মামলা নিয়ে জানায় -

৬ নয় ১১ জনের কেন্দ্র ধরে রাজ্য বিজেপির প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত – জানুন বিস্তারিত

গতকালই এক প্রতিবেদনে আমরা জানিয়েছিলাম যে, গত মঙ্গলবার কলকাতার এক অভিজাত হোটেলে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বঙ্গ বিজেপির প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা তৈরী করতে এক বৈঠকে বসেন গেরুয়া শিবিরের নেতারা। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, রাজ্যের নির্বাচনী আহ্বায়ক মুকুল রায়, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক রাহুল সিনহা

কলকাতা উত্তর লোকসভা আসনে বিজেপি প্রার্থী নিয়ে থাকতে চলেছে ‘সুপার চমক’? তীব্র জল্পনা গেরুয়া শিবিরে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া এক্সক্লুসিভ - যবে থেকে লোকসভা ভোটের দামামা বাজতে শুরু করেছে, তবে থেকেই রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বাংলা থেকে ৪২ এ ৪২ এর দাবি উড়িয়ে গেরুয়া শিবির দাবি করেছে, এ রাজ্য থেকে অন্তত ২২-২৩ টি আসন দখল করতে চলেছে তারা। আর সেই দাবিকে সামনে রেখে বারবার উঠে এসেছে

জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ঘোষণা – ভাইপো নয়, সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিতে লোকসভা নির্বাচনে লড়বেন পার্টি সুপ্রিমোই!

দেখতে দেখতে এসে গেল আরেকটি লোকসভা নির্বাচন - দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী কে হবেন, পরের পাঁচ বছর দেশ শাসনের ভার যাবে কাদের হাতে তা নিয়ে জল্পনা কল্পনার শেষ নেই। একদিকে, যখন বর্তমান শাসকজোট এনডিএ দাবি করছে - পাঁচ বছরে তাদের করা উন্নয়নে গোটা দেশ গর্বিত, তাই দেশের জনতা আবার নরেন্দ্র মোদিকেই

রাজ্য বিজেপির প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা – ২২ জনের নামের তালিকা ঘিরে তীব্র জল্পনা গেরুয়া শিবিরের অন্দরমহলে

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলার শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস যতই ৪২ এ ৪২ আসন জেতার অঙ্গীকার করুক, প্রবল যুযুধান প্রতিপক্ষ বিজেপিও রেখেছে এবারের বাংলা থেকে গেরুয়া শিবিরের ঝুলিতে নাকি কম করে ২২-২৩ টি আসন যাবে। আর বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের এই হুঙ্কার শুধু যে কথার কথা নয় - তা এবার বিজেপির

আগামী এপ্রিলেই কি রাজ্যের হাজার হাজার প্রাথমিক শিক্ষকের পিআরটি ‘অভিশাপ’ থেকে মুক্তি মিলতে চলেছে? আদালতের পদক্ষেপে বাড়ল জল্পনা

রাজ্যের হাজার হাজার প্রাথমিক শিক্ষকের কাছে পিআরটি স্কেল না পাওয়ার যন্ত্রনা যেন অভিশাপের মত। ইতিমধ্যেই এই নিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন সংগঠন আন্দোলনের ঝড় তুলেছে। এমনকি, পিআরটি আন্দোলন করতে গিয়ে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে 'অযোগ্য' বিশেষণের পাশাপাশি সমাজ গোড়ার কারিগর শিক্ষকদের জেলে যেতে হয়েছে। এখানেই শেষ নয় - পিআরটি স্কেল না

বঙ্গ বিজেপির নবাগতরা কি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে টিকিট পাবেন? পেলেও কে কোন আসন থেকে পেতে পারেন?

একদা রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের অঘোষিত দুনম্বর নেতা মুকুল রায় দলত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদান করেন। আর গেরুয়া শিবিরে পদার্পন করেই তিনি হুঙ্কার ছেড়েছিলেন, তৃণমূল কংগ্রেসের সংগঠন আদতে নাকি উইয়ের বাসা! সময় এলেই দেখা যাবে তা ঝুরঝুর করে ভেঙে পড়ছে! যদিও মুকুল রায়ের সেই হুঙ্কারে কোনো রকম পাত্তা দেয় নি তৃণমূল

Top
Close
error: Content is protected !!