এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > বর্ধমান জেলা জুড়ে পঞ্চায়েত সমিতির সমস্যা মেটাতে ‘দায়িত্ব’ নিলেন হেভিওয়েট মন্ত্রী

বর্ধমান জেলা জুড়ে পঞ্চায়েত সমিতির সমস্যা মেটাতে ‘দায়িত্ব’ নিলেন হেভিওয়েট মন্ত্রী

পঞ্চায়েত সমিতির সমস্যা মেটাতে এবং বিভিন্ন স্থায়ী সমিতির কর্মাধ্যক্ষ নির্বাচন প্রক্রিয়াকে নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে বর্ধমানে দলীয় কার্যালয়ে বৈঠকে বসলেন তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি তথা মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সভাধিপতি,সহকারী সভাধিপতি এবং বিধায়কদের নির্দেশ দিলেন বিভিন্ন স্থায়ী সমিতির কর্মাধ্যক্ষ নির্বাচন প্রক্রিয়াকে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার।

উল্লেখ্য,জেলায় ২৩টি পঞ্চায়েত সমিতিতে সভাপতি ও সহকারী সভাপতি নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। ইতিমধ্যে,বেশকিছু জায়গায় স্থায়ী সমিতি গঠন প্রক্রিয়াও সম্পন্ন হয়ে গিয়েছে। যদিও সেইসব স্থায়ী সমিতিতে এখনও কর্মাধ্যক্ষ নিযুক্ত হয়নি। আবার এমন অনেক জায়গাও রয়েছে যেখানে এখনও স্থায়ী সমিতি গঠন প্রক্রিয়া স্থগিত রয়েছে।

জেলা সূত্রের খবর থেকে জানা গিয়েছে,পূর্ব বর্ধমান জেলায় বিভিন্ন পঞ্চায়েত সমিতিতে সভাপতি এবং সহ সভাপতি নির্বাচনকে ঘিরে ভোটদান প্রক্রিয়া হয়েছে। ভোটাভুটি হয়েছে জেলার বেশকিছু গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান এবং উপপ্রধান নির্বাচনেও। পঞ্চায়েত বোর্ড গঠনকে কেন্দ্র করে দলীয় অন্দরে হিংসাত্মক ঘটনাপ ঘটেছে জামালপুর, মেমারি-২, রায়না-২ সহ বেশকিছু জায়গায়। জামালপুরে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ও সহকারী সভাপতি নির্বাচন ঘিরে ব্যাপক গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের আবহেই ভোটাভুটি হয়।

তবে অবশেষে বিক্ষুব্ধ গোষ্ঠীই জয় হাসিল করে। এই পরিস্থিতিতে জেলায় বিভিন্ন পঞ্চায়েত সমিতির স্থায়ী সমিতিগুলিতে কর্মাধ্যক্ষ নির্বাচন ঘিরে যাতে গোষ্ঠীকোন্দল রুখতেই নির্দেশ দিয়েছেন স্বপনবাবু। তাছাড়া ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজ শেষের পথে। দু মাস ধরে চলা এই কর্মসূচির সময়সীমা রয়েছে চলতি মাসের ৩১ তারিখ পর্যন্ত। তাই প্রতিটি বিধানসভা এলাকায় কতজন নতুন ভোটার এল,কতজনের নাম বাদ পড়ল,কতজনের নাম সংশোধন হল,সেসব ব্যাপারে সম্পূর্ণ তথ্য জেলা পার্টি অফিসে জমা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বিধায়কদের।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আগামী ১ জানুয়ারি যাদের বয়স ১৮ পূর্ণ হবে,এবার তাদের নাম ভোটার তালিকায় উঠতে চলেছে। এই নতুন ভোটারদেরই নাম সংক্রান্ত রিপোর্ট পেশ করা হবে পার্টি অফিসে। পাশাপাশি আগামী ২ নভেম্বর টাউন হলে জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বিজয়া সম্মিলনী অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়েছে। সেই অনুষ্ঠানে বেশি সংখ্যক কর্মী সমর্থকদের জমায়েত করার লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দেওয়া হয়েছে তৃণমূল বিধায়কদের। লোকসভা ভোটের আগে জনসংযোগ বৃদ্ধি করার উদ্দেশ্যেই এই নির্দেশ দিয়েছেন জেলা সভাপতি,এমনটাই জানা গিয়েছে তৃণমূল সূত্রের খবরে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!