এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমানের একদা ‘লালদুর্গেও’ পাল্টা প্রতিরোধে নিজেদের শক্তি বোঝাচ্ছে বিজেপি

বর্ধমানের একদা ‘লালদুর্গেও’ পাল্টা প্রতিরোধে নিজেদের শক্তি বোঝাচ্ছে বিজেপি

পঞ্চায়েত নির্বাচনের মনোনয়ন জমা দেওয়া নিয়ে বিজেপির ওপর শাসকদলের হামলা এখনো অব্যাহত দাবি বিজেপির। আর তাই নিজেদের প্রতিরোধ নিজেদের গড়ে টুলবার নির্দেশ দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর ‘মারের পাল্টা মার’ এই নিদেশ মেনেই এদিন মাঠে নামলো বিজেপি। বর্ধমানের মন্তেশ্বর ব্লক অফিস তৃণমূল কর্মীরা ঘিরে থাকলে এদিন প্রায় ১২০০ বিজেপি কর্মী তাদের তারা করে। পালিয়ে যায় তারা। এদিকে কালনা ১ ব্লকে মনোনয়ন জমা দেওয়া নিয়ে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ বাঁধলে লাঠি চার্জ করে পুলিশ। এদিন বর্ধমান জেলার পর্যবেক্ষক অনল বিশ্বাস হুঁশিয়ারি সহকারে বলেন, “বিজেপি সমর্থক ও প্রার্থীদের ওপর লাগাতার হামলার ঘটনায় বুধবার ফুঁসে উঠল বিজেপি নেতা-কর্মীরা। পূর্ব বর্ধমান জেলায় বিভিন্ন ব্লকে ব্লকে ৩দিন ধরে বিজেপি সমর্থকদের ওপর শাসকদলের হামলার ঘটনা বন্ধ না হলে গোটা জেলা জুড়ে আগুন জ্বলবে।”

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

অনল বিশ্বাসের সাথে বিজেপির জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দী, নবকুমার হাজরা বর্ধমানের সদর মহকুমা শাসক পুষ্পেন সরকারের কাছে এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানান বলে খবর। এদিন সন্দীপ বাবু বলেন, “গোটা জেলা জুড়ে ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র জমা দেবার কাজ শুরু হওয়ার পর থেকেই রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকেরা বিজেপি সমর্থকদের ওপর লাগামছাড়া সন্ত্রাস নামিয়ে নিয়ে এসেছেন।” এদিকে বিজেপি মনোনয়নপত্র জমা দিতে গেলে বর্ধমান সদরের কামনাড়া, বড়শুল, আউশগ্রাম ১ ও ২, গলসী ১ ও ২, রায়না ১ ও ২, জামালপুর, খণ্ডঘোষ বিডিও অফিসে তাদের ওপর বেপরোয়া ভাবে হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ। বড়শুলের হামলার ঘটনা এক মহিলা সাংবাদিক ভিডিও করতে গেলে ওই মহিলা সহ আরো অন্যান্য সাংবাদিকদের ওপরেও হামলা চালানো হয়। আহত সাংবাদিকদের বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলে জানা গেছে। বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি শ্যামল রায় এদিন বলেন, “এই হামলা বন্ধ না হলে জেলাশাসক ও জেলা পুলিশ সুপার অফিস ঘেরাও করে রাখা হবে।” বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকেও জানানো হয়েছে বলে খবর।তাই রাজনৈতিকমহল এতে সিঁদুরে মেঘ দেখছেন।তাদের মতে বিজেপি ভেতরে ভেতরে বাড়ছে যার ফলে কোনো অঘটন না ঘটে যায় আগামী পঞ্চায়েতে। অন্যদিকে তৃণমূলের দাবি বিজেপির এত লোক নেই বাইরে থেকে লোক এনে তৃণমূলের কর্মীদের উপর হামলা চালাচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!