এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বড়সড় ফাটল দেখা যাচ্ছে সরকারের, ক দিন টিকবে? দলের অন্দরে তীব্র উৎকণ্ঠা

বড়সড় ফাটল দেখা যাচ্ছে সরকারের, ক দিন টিকবে? দলের অন্দরে তীব্র উৎকণ্ঠা

অবশেষে বড়সড় ফাটল ধরল মহারাষ্ট্রের জোট সরকারে। বস্তুত, এতদিন কেন্দ্রের এই নয়া নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রবল বিরোধিতা করতে দেখা যাচ্ছিল মহারাষ্ট্রের জোট শরিক এনসিপি এবং কংগ্রেসকে। কিন্তু এবার প্রকাশ্যেই এই তিনদলের মতানৈক্য সামনে চলে এল। জানা গেছে, এদিন শিবসেনা প্রধান তথা মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে বলেন, “নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে কোনো উদ্বেগ প্রকাশ করার দরকার নেই।”

আর যখন অন্য দুই জোট শরিক এর বিরুদ্ধে মত পোষণ করছে, তখন শিবসেনা প্রধানের এই মন্তব্য যে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ, তা বুঝতে বাকি নেই কারোরই। অনেকেই বলছেন, এই মন্তব্যের মধ্যে দিয়েই মহারাষ্ট্রের জোট সরকারের ভঙ্গুর দশা প্রকাশ্যে আসবে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

যদিও বা এই ব্যাপারে এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পাওয়ার বলেন, “আমাদের জোট বজায় রয়েছে, বজায় থাকবে। উদ্ধব ঠাকরে যা বলেছেন, এটা তার দৃষ্টিভঙ্গি। তিনি মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর নিজস্ব মতামত রয়েছে। মহারাষ্ট্রে আমরা একটি জোট সরকারে রয়েছি। তবে কিছু বিষয় দলগুলির মতামত আলাদা হতেই পারে। আমরা তো এক দল নই, আমরা পৃথক দল। এটা আমাদের একলা চলায় কোনো বাধা সৃষ্টি করবে না।” তবে এই ব্যাপারে তারা আলোচনায় বসে শীঘ্রই একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছবেন বলেও জানিয়ে দিয়েছেন শরদ পাওয়ার।

যেখানে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে গোটা ব্যাপারটি সম্পর্কে বোঝানো হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। তবে শরদ পাওয়ার যে কথাই বলুন না কেন, মহারাষ্ট্রে পরিস্থিতি যে অত্যন্ত জোরালো হয়ে উঠছে এবং এই পরিস্থিতির ফলে জোট সরকারের ফাটল কতটা চওড়া হয়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!