এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > বিজেপির মতো মিথ্যাচারী, দুর্বৃত্ত, ভণ্ড আর কে আছে? প্রশ্ন ব্রাত্য বসুর

বিজেপির মতো মিথ্যাচারী, দুর্বৃত্ত, ভণ্ড আর কে আছে? প্রশ্ন ব্রাত্য বসুর

কয়েকদিন আগেই বাঁকুড়ার দুর্লভপুরে বিজেপি এক জনসভার আয়োজন করে। ওই সভায় বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, দলের নেতা মুকুল রায়, নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। ওই সভা থেকে দিলীপবাবুরা তৃণমূল নেতাদের কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন। ওই সভার পাল্টা হিসেবে এদিন দুর্লভপুর তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র লাগোয়া বিশাল ময়দানে তৃণমূল কংগ্রেস জনসভা করে। সেখানে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ মানস ভূঁইয়া, রাজ্যের দুই মন্ত্রী ব্রাত্য বসু, শ্যামল সাঁতরা, বাঁকুড়া জেলা তৃণমূল সভাপতি অরূপ খাঁ, জেলা পরিষদ সভাধিপতি অরূপ চক্রবর্তী, বিষ্ণুপুরের সংসদ সদস্য সৌমিত্র খাঁ প্রমুখ। ওই সভা থেকেই মন্ত্রী ব্রাত্য বসু বাংলার উন্নয়ন তুলে ধরার পাশাপাশি তীব্র আক্রমন করেন বিজেপিকে। ব্রাত্যবাবু বলেন,

১. তৃণমূল জমানায় বাংলার রাস্তাঘাট সিল্কের মতো ঝাঁ চকচকে হয়েছে
২. বর্তমানে কলকাতা থেকে খুব কম সময়ে রাজ্যের যে কোনও কোণে পৌঁছে যাওয়া যায়
৩. বাম আমলে কলকাতা থেকে সড়ক পথে বাঁকুড়া আসতে সারা শরীরে যন্ত্রণা হয়ে যেত
৪. রাস্তাঘাট সারা বছর খানাখন্দে ভরে থাকত
৫. ওই রাস্তা ধরে এসে বিজেপি নেতারা বাঁকুড়ার সভা থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে গালমন্দ করছেন
৬. এদের মতো মিথ্যাচারী, দুর্বৃত্ত, ভণ্ড আর কে আছে?
৭. বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে বিরোধীমনস্ক মানুষজনকে গুলি করে, কুপিয়ে খুন করা হচ্ছে
৮. ওরা এরাজ্যে ক্ষমতায় এলে এখানেও সন্ত্রাস সৃষ্টি করবে
৯. তবে বিজেপিকে বাংলার মানুষ মেনে নেবে না
১০. আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনে আমরা রাজ্যের সমস্ত জেলা পরিষদ দখল করব

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!