এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > বড়সড় জয় পেলো তৃণমূল, ভাটপাড়া নিয়ে ধাক্কা বিজেপির

বড়সড় জয় পেলো তৃণমূল, ভাটপাড়া নিয়ে ধাক্কা বিজেপির

ভাটপাড়া নিয়ে বিজেপির সাথে তৃণমূলের সংঘাত আজকের নয়, সংঘাত শুরু হয়েছিল তৃণমূল ছেড়ে অর্জুন সিং এর বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই। এই দল পরিবর্তনের ফলে অর্জুন সিং এর গড় ভাটপাড়াও রাজনৈতিক রঙ পরিবর্তন করে। এরপর যথারীতি বিরোধিতা চরমে ওঠে ভাটপাড়ায়। নতুন দলে পা দিয়েই অর্জুন সিং নিজের পূর্বতন নেত্রীর বিরুদ্ধে মুখ খুলতে শুরু করেছিলেন। অন্যদিকে, তৃণমূলও ভাটপাড়া দখলে রাখার জন্য অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে আসে। যদিও এই অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় বিজেপি, কিন্তু হাইকোর্ট এবার তৃণমূলের দিকেই তার রায় দিলেন।

গত 2 জানুয়ারির অনাস্থা ভোটের পর এদিন আবারো ভাটপাড়া পুরসভায় আস্থা ভোট হল। এবং এই ভোট হাইকোর্টের নির্দেশে হয়েছে বলে জানা গেছে। গত 2 জানুয়ারির ভোটের পর বিজেপি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। কিন্তু আদালত জেলাশাসকের রিপোর্ট দেখার পরেই পুরসভা পরিচালনায় সবুজ সঙ্কেত দিয়েছে তৃণমূলকেই। তবে কিছু আইনি নিষ্পত্তির জন্য আপিল মামলাটি এখনো ডিভিশন বেঞ্চের বিচারাধীন আছে। দুই সপ্তাহ পর আপিল মামলাটি নিয়ে শুনানির পালা। হাইকোর্টের নির্দেশ পাওয়ার পরই এবার ভাটপাড়া পুরসভায় চেয়ারম্যান নির্বাচনের পালা। আগামীকাল বৃহস্পতিবার ভাটপাড়ায় চেয়ারম্যান নির্বাচন হবে বলে জানা গেছে।

গত 10 জানুয়ারি ভাটপাড়ায় অনাস্থা ভোট হয় এবং সেখানে তৃণমূল জয়লাভ করে। যদিও সেই অনাস্থা ভোটের ফলাফল নিয়ে বিজেপি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। হাইকোর্টের নির্দেশে মঙ্গলবার দ্বিতীয়বার ভাটপাড়া পৌরসভায় নতুন করে আস্থা ভোট হলো এবং এই আস্থা ভোটে আগের অনাস্থা ভোটের ফলাফলই পুনরাবৃত্তি হলো। 19 – 0 ফল করে পুরসভা দখল করল তৃণমূল শিবির। সম্পূর্ণ আস্থা ভোটটি জেলাশাসকের উপস্থিতিতে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে হয়। এবং জেলাশাসকও সেই নির্বাচনের ফলাফল হাইকোর্টে জমা দেন। যে রিপোর্ট খতিয়ে দেখে আস্থা ভোটের রেজাল্ট এর উপর সীলমোহর দিল হাইকোর্ট।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, গত 10 জানুয়ারি ভাটপাড়া পুরসভায় তৃণমূল কংগ্রেস অনাস্থা প্রস্তাব এনেছিল। কিন্তু সেই প্রস্তাব খারিজ হয়ে যায়। কারণ, ভোটের ফলাফলকে চ্যালেঞ্জ করে বিজেপি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। এরপর সোমবার আবার নতুন করে ভাটপাড়ায় আস্থা ভোটের নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। আস্থা ভোট ঘিরে নিরাপত্তা জারি করতে মঙ্গলবার ভাটপাড়া থানা এলাকায় 144 ধারা জারি ছিল। বিশাল পুলিশবাহিনী ও র‍্যাফ এলাকায় নামে। দুপুর 1 টা নাগাদ ভোট হয় এবং ভোট যুদ্ধে শেষ হাসি হাসে তৃণমূল শিবির। আপাতত নতুন চেয়ারম্যান এর অপেক্ষায় পুরসভা।

জয়ের খবর আসতেই ভাটপাড়া জুড়ে তৃণমূল কর্মীরা উল্লাস শুরু করে দেন। যদিও এদিন জানা গেছে, বিজেপির পক্ষ থেকে সুপ্রিম কোর্টে একটি মামলা করা হবে ভাটপাড়া নিয়ে। কিন্তু পদ্ধতিগত ত্রুটির কারণে তা এদিন হয়নি বলে জানা গেছে। অন্যদিকে, অর্জুন সিং এর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাঁর সাথে যোগাযোগ করা যায়নি বলে জানা গেছে। নৈহাটি, গারুলিয়া, কাঁচরাপাড়ার পর এবার ভাটপাড়া পুরসভাও হাতের বাইরে চলে গেল বিজেপির। যথারীতি বলার অপেক্ষা রাখেনা যে একের পর এক পুরসভা বেদখল হওয়ায় বিজেপি শিবির যথেষ্ট চিন্তিত। এ নিয়ে কাটাছেঁড়া চলছে বিজেপি মহলে। আপাতত দেখার ভাটপাড়া পুরসভাকে পুনর্দখল করতে বিজেপি সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়ে নতুন কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করে কিনা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!