এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > বড়সড় ধাক্কা বন্ধন ব্যাঙ্কের! রিজার্ভ ব্যাঙ্কের বিপুল পরিমান জরিমানা! জানুন বিস্তারিত

বড়সড় ধাক্কা বন্ধন ব্যাঙ্কের! রিজার্ভ ব্যাঙ্কের বিপুল পরিমান জরিমানা! জানুন বিস্তারিত



2015 সালের এপ্রিল মাসে মাইক্রোফিনান্স সংস্থা বন্ধন ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস ব্যাংকিং ব্যবসায় নাম নথিভুক্ত করে। এবং তার নাম হয় বন্ধন ব্যাংক। দেশের আর্থিক অবস্থা সামাল দিতে ইতিমধ্যে বেশকিছু ব্যাংকের সংযুক্তিকরণ ঘটেছে। কিন্তু বন্ধন ব্যাংক এখনও পর্যন্ত সেই সংযুক্তিকরণের তালিকায় আসেনি। কিন্তু রিজার্ভ ব্যাংকের শর্ত না মানায় এবার রিজার্ভ ব্যাংকের পক্ষ থেকে বন্ধন ব্যাংক এর ওপর এক কোটি টাকার জরিমানা জারি করা হল। এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বন্ধন ব্যাংক এর আভ্যন্তরীণ পরিবেশে।

রিজার্ভ ব্যাংকের শর্ত না মানায় এবার বন্ধন ব্যাংকের ওপর রিজার্ভ ব্যাংক গত 29 শে অক্টোবর 1 কোটি টাকা জরিমানা জারি করল। রিজার্ভ ব্যাংক বন্ধন ব্যাংককে তাদের শর্ত মানার জন্য তিন বছর সময় দিয়েছিল। আর এই সময় সূচি সম্পূর্ণ হয়েছে 2018 সালের 23 আগস্ট।

রিজার্ভ ব্যাংকের শর্ত ছিল প্রধানত দুটি। ব্যবসা শুরু করার তিন বছরের মধ্যে বাজারে শেয়ার বিক্রি করতে হবে। ফলে শেয়ার সংস্থায় নাম নথিভুক্ত করতে হবে। আরেকটি হলো, নন-অপারেটিভ ফিন্যান্সিয়াল হোল্ডিং কোম্পানির অর্থাৎ যাদের কোনো ব্যবসা নেই এমন কোনো আর্থিক সংস্থা যদি ব্যাংকের সাথে যুক্ত হয় তাহলে সেই সংস্থার অংশীদারিত্ব 40 শতাংশের নিচে নামাতে হবে। কিন্তু তিন বছর অতিক্রান্ত হওয়ার পরেও বন্ধন ব্যাংক রিজার্ভ ব্যাংকের শর্ত না মানায় তাদের ওপর এই জরিমানা চাপল।

উল্লেখ্য, এ বছর মার্চে বন্ধন ব্যাংক শেয়ার বাজারের তালিকায় নাম নথিভুক্ত করে। এবং তার জেরে বন্ধন ব্যাংকের প্রোমোটার বন্ধন ফিনান্সিয়াল হোল্ডিংস লিমিটেডের অংশীদারিত্ব 89.62 শতাংশ থেকে কমে দাঁড়ায় 82.28 শতাংশ অর্থাৎ রিজার্ভ ব্যাংকের শর্ত এক্ষেত্রে পুরোপুরি মানা হলো না। কিন্তু গত বছরের 23 আগস্ট বন্ধন ব্যাংক এর শর্ত মানার সময়কাল সম্পূর্ণ হয়েছে।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

ফলে গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসেই ব্যাংকিং শর্ত না মানার দরুন রিজার্ভ ব্যাংক থেকে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয় বন্ধন ব্যাংকের নতুন শাখা খোলার ওপর। পাশাপাশি এই ব্যাংকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর তথা মুখ্য কার্যনির্বাহী আধিকারিক চন্দ্রশেখর ঘোষ এর বেতন বৃদ্ধির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

সেই ঘটনার পরেও এক বছর অতিক্রান্ত হয়েছে তার পরেও বন্ধন ব্যাংক রিজার্ভ ব্যাংকের শর্তের ওপর কোনো দিকপাত না করায় রিজার্ভ ব্যাংকের পক্ষ থেকে এবার বন্ধন ব্যাংকের ওপর এক কোটি টাকার জরিমানা ধার্য করা হয়েছে। অন্যদিকে বন্ধন ব্যাংক সম্প্রতি গ্রুথ ফিন্যান্সের সঙ্গে সংযুক্তিকরণ করেছে। ফলে প্রোমোটারের শেয়ার 82.2 6 শতাংশ থেকে কমে গিয়েছে 60.96 শতাংশ। এর থেকেও শেয়ার কমিয়ে তা 40% এ আনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এই ঋণদাতা সংস্থাটি।

মাইক্রোফিনান্সিয়াল সংস্থা থেকে বন্ধন ব্যাংকে রূপান্তরিত হয়ে খুব অল্প সময়ে নিজেদের পরিচিত করেছিল এ রাজ্যে। জায়গায় জায়গায় তাঁদের শাখা খোলে। রিজার্ভ ব্যাংকের জরিমানা চাপানো নিয়ে ইতিমধ্যে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বন্ধন ব্যাংকের অভ্যন্তরে। নানান আশঙ্কা কাজ করছে এই সংস্হাটিকে ঘিরে। আপাতত রিজার্ভ ব্যাংকের শর্ত মানতে গিয়ে ও এই বিপুল জরিমাণার ভার সামলাতে গিয়ে বন্ধন ব্যাংক কি পদক্ষেপ নেয় পরবর্তীতে, সে দিকেই এখন সমগ্র ব্যাংকিং সেক্টরের নজর।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!