এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বিধানসভায় বাজিমাত বুথ এজেন্টদের নিয়ে বড়সড় পরিকল্পনায় শাসক শিবির – জানুন বিস্তারিত

বিধানসভায় বাজিমাত বুথ এজেন্টদের নিয়ে বড়সড় পরিকল্পনায় শাসক শিবির – জানুন বিস্তারিত

Priyo Bandhu Media


সাধারণ মানুষের পাশে সব সময় থাকতে হবে এবং তার ফলেই যে সাফল্য আসবে, তা লোকসভা নির্বাচনের পর জনসংযোগ কর্মসূচীর মধ্যে দিয়ে টের পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। লোকসভায় পর্যদুস্ত হওয়ার পর বুথ ভিত্তিক সংগঠনের ওপর জোর দিয়েছে রাজ্যের শাসক দল। আর তার ফলেই সদ্যসমাপ্ত রাজ্যের বিধানসভা উপনির্বাচনে সাফল্য পেয়েছে ঘাসফুল শিবির। ভোটার তালিকা সংক্রান্ত কাজে এলাকার মানুষের সমস্যা সমাধানের জন্য সব সময় বুথ কমিটির এজেন্টের দেখাশোনা করার নির্দেশ দিল তৃণমূল নেতৃত্ব।

জানা গেছে, আগামী 16 ডিসেম্বর থেকে খড়গ্রাম এলাকায় ভোটার তালিকার কাজ শুরু হবে। যার জন্য 12 টি পঞ্চায়েতের 223 টি বুথে সরকারি কর্মীরা সেই কাজ করবেন। তবে এই কাজে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে অভিনব উদ্যোগ নিল খড়গ্রাম ব্লক তৃণমূল নেতৃত্ব। সূত্রের খবর, সম্প্রতি খড়গ্রাম ব্লক তৃণমূলের পক্ষ থেকে নগরগ্রামে একটি দলীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। আর সেখানেই তৃনমূলের বুথ এজেন্টরা কিভাবে এই কাজে সাধারণ মানুষদের সহযোগিতা করবেন! তা অঞ্চল কমিটির সভাপতিদের বুঝিয়ে দেওয়া হয়।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

পরবর্তীতে অঞ্চল সভাপতিরা তা বুথ কমিটির সভাপতিদের বুঝিয়ে দেন। আর সাধারণ মানুষের পাশে এই কাজে দাঁড়ানোর জন্য ভোটার তালিকার ফর্ম পূরণ করে দেওয়া থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করার দায়িত্ব তৃণমূল তাদের নেতৃত্বদের উপর দিয়ে দিয়েছে। অর্থাৎ তৃণমূল নেতৃত্ব ভোটার তালিকা সংশোধনে সাধারণ মানুষের পাশে থেকে আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আগে জনসংযোগ প্রকল্পের ওপর বেশি করে জোর দিতে চাইছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

এদিন এই প্রসঙ্গে মহিষার এক বুথ এজেন্ট বলেন, “একমাস বাসিন্দাদের ভোটার তালিকার কাজ করতে হবে। দলের নির্দেশ মেনে কাজ করব। কিন্তু সংসার কিভাবে চলবে, তা বুঝতে পারছি না।” অন্যদিকে মাড়গ্রামের একটি বুথের এজেন্ট বলেন, “দলের নির্দেশ উপেক্ষা করার সাহস কারোর নেই।” তবে এই কর্মসূচি করে দল কি সুফল পাবে!

এদিন এই প্রসঙ্গে ফরওয়ার্ড ব্লক যুব তৃনমূলের সভাপতি জ্যোতির্ময় মণ্ডল বলেন, “শুধু বুথ এজেন্টরা নয়, আমরাও টানা একমাস ধরে মানুষের পাশে থাকার অঙ্গীকার বদ্ধ হয়েছি। মানুষের পাশে থাকতে হবে।” অন্যদিকে এই ব্যাপারে খড়গ্রাম ব্লক তৃণমূল সভাপতি মফিজউদ্দিন মন্ডল বলেন, “নিজেদের আখের গোছানোর জন্য আমরা রাজনীতি করি না। মানুষের উপকার, সমস্যার সমাধান করাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। দলীয় কর্মীরা সক্রিয়ভাবে এই কাজে শামিল হয়েছেন।”

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারবার ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজে দলের নেতৃত্বকে সাধারণ মানুষের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন। আর দলের সর্বোচ্চ নেত্রীর সেই নির্দেশকে মানতা দিয়েই আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আগে ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজে সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চাইছে গোটা তৃণমূল পরিবার বলে মত রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!