এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বঙ্গ বিজয়ের লক্ষ্যে কাজ শুরু মোদী-শাহদের, বঙ্গ-বিজেপিকে নিয়ে বিশেষ পদক্ষেপ, জানুন বিস্তারিত

বঙ্গ বিজয়ের লক্ষ্যে কাজ শুরু মোদী-শাহদের, বঙ্গ-বিজেপিকে নিয়ে বিশেষ পদক্ষেপ, জানুন বিস্তারিত

ইতিমধ্যে 2019 এর লোকসভা ভোটে পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসকে রীতিমত কোণঠাসা করে ফেলেছিল রাজ্য বিজেপি। 42 টি আসনের মধ্যে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কোনরকমে 22 টি আসনে জিতে নিজেদের গড় বাঁচিয়েছে। অন্যদিকে, বিজেপি 18 টি আসনে জিতে পশ্চিমবঙ্গে নিজেদের দলকে সুবিধাজনক জায়গায় নিয়ে আসতে পেরেছে শুধুমাত্র সংগঠনের জোরে।

এবার 2021 এর বিধানসভা ভোট বিজেপির কাছে পাখির চোখ। তৃণমূল সরকারকে ফেলার জন্য রীতিমতো আঁটঘাট বেঁধে তৈরি হচ্ছেন তাঁরা। আর এ ব্যাপারে দলীয় রণকৌশল সাজাতে আসরে নামল গেরুয়া শিবির। গত লোকসভা নির্বাচনে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের মধ্যে বাংলায় বিজেপির সাফল্য চোখে পড়ার মতো। 2019 এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির ভোট 40.30 শতাংশ বেড়ে গেছে। আসন সংখ্যা গত পাঁচ বছরে বেড়েছে 2 থেকে 18। তাই সম্পূর্ণ পরিস্থিতিকে নজরে রেখে উৎসবের শেষে বিজেপি আবার ভোট মঞ্চ সাজাতে নেমে গেছে।

শারদীয় উৎসব ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। জনজীবনে কর্মব্যস্ততা শুরু হয়েছে। যথারীতি রাজনীতির ময়দানে আবার শুরু হয়ে গেছে একের পর এক কৌশল রূপায়ণের পালা। 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনকে লক্ষ্য রেখে বিজেপি এবার বাংলায় ‘ভিশন 2021’ রূপায়ণ করতে চলেছে। এবং সেই লক্ষ্যে গেরুয়া শিবির ক্রমেই এগিয়ে চলেছে। বাংলা থেকে তৃণমূল হঠাতে পদ্ম শিবিরের পক্ষ থেকে প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়েছে।

2021 এর বিধানসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে এবার কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বঙ্গ বিজেপিকে প্রশিক্ষিত করে তুলতে চাইছেন। দলবদল এর সুযোগে বিভিন্ন দলের নেতাকর্মীরা বিজেপিতে প্রবেশ করেছে। তাই বিজেপির আদর্শে তাদের শিক্ষিত করা একান্তই জরুরী বলে এই প্রশিক্ষণের আয়োজন।

তাই মোদি-শাহরা এবার 2021 এর বাংলায় বিধানসভা নির্বাচনকে লক্ষ্য রেখে কেন্দ্রীয় নেতাদের বাংলায় পাঠাচ্ছেন বঙ্গ বিজেপি শিবিরকে প্রশিক্ষিত করে তোলার জন্য। 2019 এর লোকসভা ভোটে তৃণমূল বিজেপির থেকে অনেকটাই পিছিয়ে আছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। লোকসভায় জয়ের ফলে বাংলায় তৃণমূল এমনিতেই কোণঠাসা। আর তাতেই বিজেপি অর্ধেক জয় দেখছে। পরবর্তী 2021 এ এই বাংলা বিজেপি অধ্যুষিত হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এ রাজ‍্যে 2019 এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির আসন সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে 18 এ। আর এতেই বঙ্গ বিজেপি শিবির তুমুল উচ্ছ্বসিত। তাই আগামী দিনের চলার পথকে আরও মসৃণ করে তুলতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পরামর্শ অনুযায়ী চলা শুরু করেছে বঙ্গ বিজেপি শিবির।

ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, 2021 এর নির্বাচনে বঙ্গ বিজেপি টিম অপরিবর্তিতই আছে। এই প্রশিক্ষণের দ্বারা বাংলার পদ্ম শিবিরের নেতাকর্মীদের সক্রিয় করে তোলা যেমন উদ্দেশ্য, তেমনি এনআরসি, নাগরিকত্ব বিল নিয়ে প্রচারও সারা হবে এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে।

এই প্রশিক্ষণের সমগ্র পরিকল্পনার ছক করে দিয়েছেন সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। আর সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী রাজ্য বিজেপি নির্বাচনী প্রচারে তৃণমূলকে কোণঠাসা করে দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে এখনো পর্যন্ত শাসক শিবির থেকে কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, বিজেপি যেভাবে বাংলাকে পাখির চোখ করেছে, যেভাবে সমগ্র পরিকল্পনা করে ভোট যুদ্ধে নামতে চলেছে, তাতে পদ্ম শিবির যথেষ্ট আশার আলো দেখতেই পারে।

তবে এ প্রসঙ্গে শাসক শিবিরের দাবি, বিজেপি যে পরিকল্পনাই করুক না কেন, পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের আসরে বিজেপি বরাবরই তৃণমূলের থেকে পিছিয়ে থাকবে। তৃণমূল যেভাবে বাংলায় আছে, আগামী দিনে তাঁরা সেভাবেই বাংলার বুকে বিরাজ করবে। অন্যদিকে তৃণমূল বিভিন্ন পরিকল্পনামাফিক 2021 এর ভোট যুদ্ধে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!