এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নেই ত্রাণ! বিজেপি কর্মীর পদক্ষেপে চমকে গেল প্রশাসন! জানুন বিস্তারিত

নেই ত্রাণ! বিজেপি কর্মীর পদক্ষেপে চমকে গেল প্রশাসন! জানুন বিস্তারিত

বিগত 3 বছর আগে ভয়াবহ বন্যায় ঠিক এরকম সময়ে প্লাবিত হতে দেখা গিয়েছিল উত্তরবঙ্গের মালদহ সহ একাধিক এলাকাকে। সেই সময় প্রশাসনের বিরুদ্ধে ত্রাণ পাওয়ার অভিযোগ তুলে সরব হয়েছিলেন একাংশ। এমনকি পরবর্তীতে নির্বাচনী প্রচারে বন্যা পরিস্থিতির সময় শাসক শিবিরের কোনো নজর সেদিকে ছিল না বলেও অভিযোগ তুলতে দেখা গিয়েছিল বিরোধী দল বিজেপিকে। তবে একবার ভুল হলে সেই ভুল আর পরবর্তীতে কারোর হয় না। বিশ্বাস করে বিরোধীদল ফায়দা তুলবে, এমন ব্যাপারে ভুল করে নিজেদের সর্বনাশ কখনই ডাকতে চায় না শাসকবর্গ।

এবারে যেন সেই একই ভুলের ঘটনা ঘটতে দেখা গেল মালদহে। লাগাতার বৃষ্টিতে পুরাতন মালদহের মহানন্দা নদী বরাবর অসংরক্ষিত এলাকা প্লাবিত হওয়ায় এবং সেখানে ত্রাণ না পৌঁছানোয় প্রশাসনের বিরুদ্ধে প্রবল বিক্ষোভে সরব হন দুর্গতরা। যেখানে আশ্চর্যজনকভাবে এই বিক্ষোভ চলাকালীন পুরাতন মালদহ পঞ্চায়েত সমিতির বিরোধী দলনেতা বিজেপির নিতাই মন্ডল প্রশাসনকে কার্যত নাস্তানাবুদ করে ছাড়েন।

সূত্রের খবর, এদিন এই বিক্ষোভ চলার সময় ব্লক অফিসের ছাদে উঠে নিতাইবাবু হুমকি দেন, যদি দুর্গতরা পর্যাপ্ত ত্রাণ না পান, তাহলে তিনি ছাদ থেকে ঝাঁপ দেবেন। আর এতেই রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়। প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাকে নীচে নামানোর চেষ্টা করা হলেও শেষ পর্যন্ত তা ব্যর্থ হয়। তবে নিতাইবাবুর এই জনদরদি ভাবমূর্তি দেখে এলাকার বাসিন্দারা তাকে অনুরোধ করেন নীচে নেমে আসতে। পরে শেষ পর্যন্ত তিনি নিচে নেমে আসেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, “সাতদিন ধরে বৃষ্টিতে বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে গিয়েছে। কোনরকম ত্রাণ মিলছে না। তাই নিয়ে আমরা বিক্ষোভ দেখাতে এসেছিলাম। নিতাইবাবু আমাদের এই আন্দোলন সমর্থন করেছেন। অবিলম্বে ত্রাণ পেলে আরও বড় আকারে আন্দোলন হবে।”

এদিকে এই প্রসঙ্গে মালদহ পঞ্চায়েত সমিতির বিরোধী দলনেতা বিজেপির নিতাই মন্ডল বলেন, “বেশ কয়েকদিন ধরে বৃষ্টি পড়ছে। নদীতে জল বাড়ছে। মানুষ কষ্টের মধ্যে দিনযাপন করছেন। অনেকে ত্রাণের জন্য ঘুরেও ত্রাণ পাচ্ছেন না। সব দিক দিয়েই আমাদের অন্ধকারে রাখা হয়েছে। এদিন ব্লকের ছাদের উপরে ধরনায় বসে ছিলাম। দুর্গতরা পর্যাপ্ত ত্রাণ না পেলে আবার ব্লক অফিসে আসব।”

তবে নিতাইবাবু সাধারণ মানুষের জন্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে ধর্ণায় বসলে এদিন তাকে সম্পূর্ণরূপে কটাক্ষ করেছেন মালদহ পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি তৃণমূলের হারেজ আলী। তিনি বলেন, “যে কোনো ক্ষেত্রে ত্রাণ দিতে গেলে এলাকার রিপোর্টের ভিত্তিতে তা দেওয়া হয়। আগে সেই সমস্ত কাজ সম্পূর্ণ হোক। তা না করে এই সমস্ত নাটক করে লাভ নেই।”

তবে পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূলের সহ-সভাপতি এই গোটা ঘটনাকে ‘নাটক’ বলে অভিহিত করলেও বিজেপির নিতাই মন্ডল সাধারন মানুষের জন্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে ত্রাণ না দেওয়ার অভিযোগ তুলে সাধারণ মানুষের মনে যে অনেকটাই গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠেছেন, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত বিশেষজ্ঞমহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!